Inqilab Logo

রোববার, ০৫ ডিসেম্বর ২০২১, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ২৯ রবিউস সানী ১৪৪৩ হিজরী

ফেসবুক নিয়ে শুরু হয়েছে ট্রোল

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৩ অক্টোবর, ২০২১, ৮:১৬ এএম

নাম বদলের খবর সত্যি হোক অথবা মিথ্যা, খবর সামনে আসায় ফেসবুক নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় মজার মন্তব্য করতে ছাড়েননি নেটিজেনরা। নাম বদলের খবরে হাস্যকর মিমস এবং কৌতুক ভাগ করার সুযোগটি পুরোদমে ব্যবহার করেছিলেন তারা। কেউ কেউ তাদের মন্তব্যে বলেছেন ফেসবুক আবার হয়তো তার পুরনো নাম দ্য ফেসবুকে পরিণত হতে চলেছে। প্রসঙ্গত ২০০৪ সালের ৪ ফেব্রুয়ারি দি ফেসবুক নামের যাত্রা শুরু করেছি সংস্থা। পরে তার থেকে ‘দ্য’ নামটি বাদ দেয়া হয়েছিল।

নাম পরিবর্তনের ঘোষণা দিয়ে বিপাকে পড়েছে ফেসবুক । ঘোষণার পর থেকে ট্রোলের শিকার হচ্ছে সংস্থাটি। দ্য ভার্জের রিপোর্ট অনুসারে নাম বদলাতে চলেছে ফেসবুক। সম্পুর্ণ নতুন মেটাভার্স সংস্থা হিসেবে আত্মপ্রকাশ করতে চলেছে ফেসবুক। আর নাম বদলের খবর প্রকাশ্যে আসতেই সোশ্যাল মিডিয়ায় ফেসবুক নিয়ে শুরু হয়েছে ট্রোল।

‘মেটাভার্স’ নির্মাণ চেষ্টার অংশ হিসেবে রিব্রান্ডিং-এর জন্য এই পরিকল্পনা করা হয়েছে। অক্টোবরের ২৮ তারিখে ফেসবুকের বার্ষিক কানেক্ট সম্মেলনে মার্ক জাকারবার্গ এই নাম পরিবর্তনের পরিকল্পনার ব্যাপারে আলোচনা করবেন বলে ভক্স মিডিয়া পরিচালিত মার্কিন প্রযুক্তিবিষয়ক ব্লগ দ্য ভার্জ এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে। আর তার পর থেকেই সোশ্যাল মিডিয়া জুড়ে প্রচুর প্রতিক্রিয়া নজরে এসেছে। আগামী সপ্তাহে সংস্থার বার্ষিক সভাতেই নাম পরিবর্তনের বিষয়টি চূড়ান্ত হতে পারে। যদিও এখন পর্যন্ত এই গুঞ্জনকে উড়িয়েই দিয়েছে মার্ক জাকারবার্গের সংস্থা।

যদিও অতীতে অনেক কোম্পানি তাদের নাম পরিবর্তন করেছে বা পরিষেবা সম্প্রসারণের জন্য পুনরায় ব্র্যান্ড করেছে, অনেকে মনে করেছে ফেসবুকের পদক্ষেপটি বর্তমান সমস্যাগুলো থেকে মনোযোগ সরানোর একটি অন্যতম সেরা উপায়। সাম্প্রতিক সময়ে বড় পরিসরে নানাবিধ ইন্টারনেট সমস্যা নিয়ে তোপের মুখে পড়েছে ফেসবুক। এ রকম সমস্যার মধ্যে ভুল তথ্য ছড়িয়ে পড়া থেকে শুরু করে কিশোর বয়সীদের উপর সোশ্যাল মিডিয়াটির নেতিবাচক প্রভাব বিস্তারের মতো বিষয়ও রয়েছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ফেসবুক


আরও
আরও পড়ুন