Inqilab Logo

বৃহস্পতিবার, ০৯ ডিসেম্বর ২০২১, ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ০৪ জামাদিউল আউয়াল ১৪৪৩ হিজরী

ফুডপ্যান্ডা ও রেবেল ফুডস’র হাত ধরে এশিয়ার সর্ববৃহৎ ভার্চুয়াল ব্র্যান্ড পার্টনারশিপ

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৪ অক্টোবর, ২০২১, ৮:০৭ পিএম

রেস্টুরেন্ট পার্টনার ও ক্লাউড কিচেন অপারেটরদের স্বল্প বা বিনা প্রারম্ভিক খরচে অধিক প্রবৃদ্ধি অর্জনে সক্ষম করার লক্ষ্যে এশিয়ার সবচেয়ে বড় খাবার ও গ্রোসারি ডেলিভারি প্ল্যাটফর্ম ফুডপ্যান্ডা বিশ্বের সর্ববৃহৎ ইন্টারনেট রেস্টুরেন্ট প্রতিষ্ঠান রেবেল ফুডস’র সাথে এক দীর্ঘমেয়াদী অংশীদারিত্ব ঘোষণা করেছে। আজ ঘোষিত এই অংশীদারিত্বের মাধ্যমে, উভয় প্রতিষ্ঠান প্রথম পাঁচ বছরে এই অঞ্চলে দুই হাজারের বেশি আউটলেটে দশটির বেশি ভার্চুয়াল ব্র্যান্ড চালু করার লক্ষ্য নির্ধারণ করেছে। এটি এশিয়ার বৃহত্তম ভার্চুয়াল ব্র্যান্ড পার্টনারশিপ।

রেবেল ফুডস’র রয়েছে রন্ধনসম্পর্কীয় সুদীর্ঘ অভিজ্ঞতা, সুদক্ষ পরিচালন পদ্ধতি ও বিভিন্ন আকর্ষণীয় ব্র্যান্ড। এ অংশীদারত্বের ফলে সহ¯্রাধিক রেস্টুরেন্ট পার্টনার ও ক্লাউড কিচেন অপারেটরদেরকে ফুডপ্যান্ডা তাদের বিদ্যমান কার্যক্রমকে ভার্চুয়াল ব্র্যান্ডে অন্তর্ভুক্ত করার মাধ্যমে স্বল্প বা বিনা প্রারম্ভিক খরচে অধিক প্রবৃদ্ধি অর্জনে সক্ষম করবে। ফুডপ্যান্ডা প্ল্যাটফর্মের ক্ষুদ্র ও মাঝারি উদ্যোক্তা এবং রেস্টুরেন্ট পার্টনাররা নতুন রেসিপি গ্রহণের মাধ্যমে নিজেদের মেন্যুকে ভিন্নধর্মী করে তুলতে পারবে।

 

ভার্চুয়াল ব্র্যান্ড শুধুমাত্র অনলাইনে ডিজিটালভাবে এর কার্যক্রম পরিচালনা করে এবং এখানে ডাইন-ইন এর কোন ব্যবস্থা নেই। এক্ষেত্রে, আউটলেট থেকে খাবার শুধুমাত্র ডেলিভারি বা পিক-আপ করা যায়। ভার্চুয়াল ব্র্যান্ড কোন রেস্টুরেন্টের রান্নাঘর থেকে অথবা ক্লাউড কিচেনের মাধ্যমে কার্যক্রম পরিচালনা করতে পারে। এই অংশীদারিত্বের মাধ্যমে এশিয়ার গ্রাহকরা পাঁচটি ভার্চুয়াল ব্র্যান্ড থেকে খাবার উপভোগ করতে পারবেন। এ ব্র্যান্ডগুলো হলো ফাসোস, বেহরৌজ বিরিয়ানি, দ্য বিরিয়ানি লাইফ, লাঞ্চবক্স ও অনেস্ট বোল।

ফুডপ্যান্ডা’র সিওও পেদ্রাম আসাদি বলেন, আধুনিক ডিজিটাল অর্থনীতিতে খাবার ও পানীয়’র ব্যবসায়ীদের কার্যক্রম পরিচালনায় সক্ষম করতে ফুডপ্যান্ডা সবসময় নতুন এবং উদ্ভাবনী উপায়ের অনুসন্ধান করে। আমরা চাই আমাদের ইকোসিস্টেমকে ভবিষ্যত উপযোগী করে তুলতে। ফুডপ্যান্ডা ও রেবেল ফুডস’র এই অংশীদারিত্ব এশিয়ায় ডিজিটাল-ফার্স্ট এফ অ্যান্ড বি পদ্ধতির সূচনা করেছে। এই ভার্চুয়াল ব্র্যান্ডগুলো আমাদের রেস্টুরেন্ট পার্টনার এবং ক্ষুদ্র ও মাঝারি উদ্যোক্তাদের অধিক আয়ের সুযোগ প্রদান করবে।

 

২০১৯ সালের ডিসেম্বরে শুরু হওয়া অংশীদারিত্বের প্রথম পর্যায়ে, ফুডপ্যান্ডা নেটওয়ার্কেও মাধ্যমে সিঙ্গাপুর, মালয়েশিয়া, বাংলাদেশ, থাইল্যান্ড, হংকং এবং ফিলিপাইনের ছয়টি বাজারে চারটি ব্র্যান্ড চালু করে রেবেল ফুডস। বিগত ছয় মাসে ফুডপ্যান্ডা অ্যাপে রেবেল ফুডস’র ব্র্যান্ডের অর্ডার গড়ে ৪০ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছে এবং ছয়টি বাজারের দুইশো’রও বেশি আউটলেট ভার্চুয়াল ব্র্যান্ড যুক্ত করার জন্য সাইন আপ করেছে।

 

রেবেল ফুডস’র সহ-প্রতিষ্ঠাতা কল্লোল ব্যানার্জী বলেন, বিগত কয়েক বছরে আমরা কিছু উল্লেখযোগ্য ব্র্যান্ড ও পূর্ণাঙ্গ অপারেটিং সিস্টেম তৈরি করতে পেরেছি। ফুডপ্যান্ডার সাথে অংশীদারিত্ব করতে পেরে আমরা অত্যন্ত আনন্দিত এবং আমরা আশা করি, এশিয়ায় ফুডপ্যান্ডার বিস্তৃত নেটওয়ার্ক আমাদের ব্র্যান্ডগুলোকে স্থানীয় মানুষের জন্য খাবার সরবরাহে সাহায্য করবে।

 

ভার্চুয়াল ব্র্যান্ড ছাড়াও, ফুডপ্যান্ডা এর রেস্টুরেন্ট পার্টনারদের প্রবৃদ্ধির জন্য প্যান্ডাবক্স, প্যান্ডাক্লিকস ও প্যান্ডাপিকসের মতো বিভিন্ন ডিজিটাল টুল চালু করেছে।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ