Inqilab Logo

সোমবার, ২৯ নভেম্বর ২০২১, ১৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ২৩ রবিউস সানী ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

৩০ একর জমির চাষাবাদ বন্ধ ৫ বছর

বিদ্যুতের হেলেপড়া খুঁটির ভয়

এস এম বাবুল (বাবর), লক্ষ্মীপুর থেকে | প্রকাশের সময় : ২৫ অক্টোবর, ২০২১, ১২:০৭ এএম

লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার মান্দারী ইউনিয়নের রতনপুর গ্রামে পল্লী বিদ্যুতের ১০টি হেলেপড়া খুঁটির ভয়ে পাঁচ বছর ধরে ত্রিশ একর জমি চাষাবাদ করতে পারছেন না কৃষকরা। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে যাওয়ার পথে ভয় পায় শিক্ষার্থীরা, স্থানীয়রাও রয়েছেন আতঙ্কে। এ নিয়ে স্থানীয় এলাকাবাসী ও কৃষি বিভাগের উদ্যোগে একাধিকবার পল্লী বিদ্যুৎ অফিসের দ্বারস্থ হলেও কোন প্রতিকার পাওয়া যায়নি বলে জানান স্থানীয়রা।
গ্রামের জিয়া উদ্দিন ফাহাদ রিপন, সেলিম উদ্দিনসহ কয়েকজন জানান, রতনপুর মাদরাসার পাশে প্রায় ত্রিশ একর ফসলি জমি গত ৫ বছর আগেও চাষাবাদ হতো। কিন্ত এখন হয় না। কৃষক এ মাঠে আসে না ভয়ে। এ জমিগুলোর ওপর দিয়ে পল্লীবিদ্যুৎ ১১ হাজার ভোল্টের ৪ তারের লাইন টেনে রেখেছে। জমির সীমানার মধ্যে ১০টি পিলার গত ৫ বছর আগে হেলে পড়ে। স্থানীয়রা অভিযোগ করলে পল্লী বিদ্যুৎ কর্তৃপক্ষ খুঁটিগুলো সোজা না করে আরো ২০টি ছোট খুঁটি এনে বড় খুঁটিগুলোকে হেলান দিয়ে রাখে। ফলে কৃষি জমির পরিমাণ আরো কমে যায়। এখন সবগুলো হেলানো খুঁটি ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে পড়েছে। সামান্য বাতাস এলেই আগুন ধরে গ্রামের গাছে গাছে। ফসলী জমির পাশাপাশি বিভিন্ন বাড়ির বাগানের দিকেও খুঁটিগুলো হেলে পড়েছে। পল্লী বিদ্যুতের কাছে অভিযোগ দিয়েও কোন সুরাহা পাওয়া যায়নি। ইউনিয়নের দায়িত্বপ্রাপ্ত কৃষি কর্মকর্তা আবদুস সহিদ জানান, গত ২ বছর আগে তিনি বিএডিসির মাধ্যমে পল্লী বিদ্যুৎকে ঘটনাটি জানিয়েছেন, কিন্ত কোন প্রতিকার হয়নি। তিনি জানান, কৃষকরা ওইখানে ঠিক মতো চাষাবাদ করতে পারছে না হেলানো খুঁটির ভয়ে।
লক্ষ্মীপুর পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির সিনিয়র জেনারেল ম্যানেজার আবু তাহের জানান, খোঁজ নিয়ে সমস্যাটি দ্রুত সমাধান করা হবে হবে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন