Inqilab Logo

বৃহস্পতিবার, ০২ ডিসেম্বর ২০২১, ১৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ২৬ রবিউস সানী ১৪৪৩ হিজরী

দিনাজপুর হাজী দানেশ বিশ্ববিদ্যালয়ের গুচ্ছ পদ্ধতির পরীক্ষায় ধরা খেয়ে পুলিশ হেফাজতে তরুনী

আবারও পরীক্ষার হলে মোবাইল

দিনাজপুর অফিস | প্রকাশের সময় : ২৪ অক্টোবর, ২০২১, ৯:২৮ পিএম

আবারও মোবাইল নিয়ে মোবাইল নিয়ে পরীক্ষার হলে। প্রশ্নপত্রের ছবি পাঠানোর মাধ্যমে মাধ্যমে উত্তরপত্র তৈরীর (খাতায় লিখার) সময় ধরা পড়ে এখন পুলিশের হেফাজতে রয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে দিনাজপুরের হাজী দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষার হলে ২০২০-২০২১ শিক্ষাবর্ষের গুচ্ছ পদ্ধতিতে ভর্তি পরীক্ষায়। তরুনীকে আটক অতঃপর পুলিশে হস্তান্তর পরীক্ষা শেষে ঘটনাটি জানাজানি হতে সন্ধা গড়িয়ে যায়। আটক তরুনী এখন (রাত সাড়ে আটটা) দিনাজপুর কোতয়ালী থানা পুলিশের হেফাজতে রয়েছে। পুলিশ জানিয়েছে ব্যবহৃত মোবাইল জব্দ করা হয়েছে। কোতয়ালী থানার অফিসার ইনচার্জ মোজাফফর আহমেদ তার বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছেন।
আজ রোববার দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের কয়েকটি ভবনে গুচ্ছ পদ্ধতির ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। এবারের পরীক্ষায় ৭ হাজারের বেশী পরীক্ষার্থী অংশ নিচ্ছে। পরীক্ষার্থীরা যথারীতি হলে প্রবেশ করতে শুরু করে। বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়াজেদ ভবনে বি ইউনিটের পরীক্ষায় অংশগ্রহনকারী উক্ত তরুনী কর্তৃপক্ষের চোখকে ফাকি দিয়ে হলে প্রবেশ করে। ৩০৫ রুমে ঐ তরুনী জামার ভিতরে থাকা মোবাইল ফোনের মাধ্যম্যে পরীক্ষা শুরুর সাথে সাথেই প্রশ্নপত্রের ছবি তুলে কাংখিত ঠিকানায় পাঠিয়ে দেয়। কিছুক্ষনের মধ্যে উত্তরও চলে আসে। হোয়াটস এ্যাপে আসা উত্তর দেখে লেখার সময় ধরা পড়ে যায় তরুনী। বিষয়টি প্রথমে অন্য পরীক্ষার্থীদের নজরে এলে তাঁরা হল পরিদর্শক হিতেন্দ্র নাথকে জানান। পরে নারী পুলিশের সহায়তায় মুঠোফোনটি উদ্ধার করা হয় এবং ওই রুণীকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করা হয়।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন