Inqilab Logo

ঢাকা মঙ্গলবার, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৪ আশ্বিন ১৪২৭, ১১ সফর ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

ইউপি নির্বাচনী বিরোধ চৌদ্দগ্রামে দু’পক্ষের হামলায় মহিলাসহ আহত ৯

প্রকাশের সময় : ১৫ অক্টোবর, ২০১৬, ১২:০০ এএম

চৌদ্দগ্রাম উপজেলা সংবাদদাতা : কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামে ইউপি নির্বাচনের জের ধরে দুই পক্ষের হামলায় মহিলাসহ অন্তত ৯ জন আহত হয়েছেন। গতকাল শুক্রবার বিকেলে উপজেলার চিওড়া ইউনিয়নের বেরলা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। আহতদের মধ্যে সুলতান আহমদের পুত্র সিরাজ(৪৫), আলী আহমদের পুত্র গফুর মিয়া(৫০) ও মিতু মিয়ার পুত্র কালামকে (২২) চৌদ্দগ্রাম উপজেলা স্বাস্থ্য কমপেক্সে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে আশঙ্কাজনক অবস্থায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।
বেরলা গ্রামের নাসির উদ্দিন কালু মিয়া জানান, ইউপি নির্বাচনে মেম্বার প্রার্থী নাজির ইসলাম ডলু ও বাহার মিয়ার সমর্থকদের মাঝে নির্বাচনের দিন ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। এনিয়ে দায়েরকৃত পাল্টাপাল্টি মামলায় উভয় পক্ষ গত বৃহস্পতিবার কুমিল্লার আদালতে হাজিরা দেয়। আদালত চত্বরে উভয় পক্ষের লোকজনের কথা কাটাকাটির জের ধরে গতকাল শুক্রবার দুপুরে বাহারের নেতৃত্বে সন্ত্রাসীরা দেশীয় অস্ত্রসস্ত্র নিয়ে ডলুর বাড়িঘর ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগ করে। হামলায় বাধা দিলে সন্ত্রাসীরা ডলুর মা নুরজাহান বেগম, বোন মনোয়ারা বেগম ও শরিফা বেগমসহ ৬ জন আহত হয়।
অভিযুক্ত বাহার মিয়ার স্ত্রী ফিরোজা বেগম জানান, ডলু মিয়ার লোকজনের হামলায় বাহার, আবু ও হুমায়ন কবির আহত হয়।
এ ব্যাপারে চৌদ্দগ্রাম থানার এসআই হোসাইন জানান, নির্বাচনোত্তর ঘটনাকে কেন্দ্র করে উভয় পক্ষের মাঝে মারামারির খবর শুনেছি। খবর পেয়ে পুলিশ দ্রæত ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ইউপি নির্বাচনী বিরোধ চৌদ্দগ্রামে দু’পক্ষের হামলায় মহিলাসহ আহত ৯
আরও পড়ুন