Inqilab Logo

শনিবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২১, ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ২৮ রবিউস সানী ১৪৪৩ হিজরী

তিনজনের স্বীকারোক্তি

চৌমুহনীতে পূজামণ্ডপে হামলা

নোয়াখালী ব্যুরো : | প্রকাশের সময় : ২৫ অক্টোবর, ২০২১, ১২:০৩ এএম

চৌমুহনী বাজারের পূজামণ্ডপ, মন্দির, ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান ও বাড়িতে হামলা, ভাঙচুর অগ্নিসংযোগ ও হত্যার ঘটনায় গতকাল ভিডিও ফুটেজ দেখে শনাক্তকৃত আটক ৮ জনের মধ্যে ৩ জন গত শনিবার বিকেলে আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি প্রদান করেছে। গতকাল রোববার দুপুরে পুলিশ সুপার মো. শহীদুল ইসলাম এ তথ্য জানান। এ নিয়ে ৪ জন স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি প্রদান করে। জবানবন্দি প্রদানকৃতরা হলেন, রিপন আহাম্মেদ মাহীর, আরাফাত হোসেন আবির ও ইব্রাহিম খলিল ওরফে রাজিব। এর আগে, গত বৃহস্পতিবার চৌমুহনী পৌরসভার করিমপুর গ্রামের আবদুল হাশিম এর ছেলে আবদুর রহিম সুজন স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি প্রদান করেছিল। এরআগে ভিডিও ফুটেজ দেখে শনাক্তকৃত ও গ্রেফতারকৃত ৮ জন ও সন্দেহভাজন ৫ জনসহ ১৩ জনকে আটক করা হয়।

আটক ৮ আসামি হলো, সুবর্ণচর উপজেলার চর জব্বর ইউনিয়নের চর বহুলা গ্রামের আবু তাহের এর ছেলে ফরহাদ, চৌমুহনী পৌরসভার গণিপুর গ্রামের মৃত সাহাব উদ্দিন এর ছেলে মো. শামীম, একই গ্রামের জয়নাল আবেদিন এর ছেলে রিপন আহাম্মেদ মাহীর, বেগমগঞ্জ উপজেলার ছয়ানি ইউনিয়নের নারায়নপুর গ্রামের দেলোয়ার এর ছেলে জহিরুল ইসলাম জুয়েল, হাজীপুর ইউনিয়নের নুরুল হক ভূইয়া এর ছেলে ইব্রাহিম খলিল ওরফে রাজিব, ছয়ানি ইউনিয়নের ছোট শরীফপুর গ্রামের কামরুল হাসান এর ছেলে আরাফাত হোসেন আবির, চৌমুহনী পৌরসভার মধ্যম নাজিরপুর গ্রামের মৃত বাবুল হেসেন এর ছেলে দুলাল হোসেন ও সদর উপজেলার আন্ডারচর ইউনিয়নের পশ্চিম মাইজচরা গ্রামের তাজুল ইসলাম এর ছেলে কামাল হোসেন এবং পূজা মন্ডপে হামলাকারী সন্দেহভাজন আসামী হিসেবে শহীদ, হুমায়ুন (ইসকন কর্তৃক সনাক্তকৃত), মো. কাশেম বিন আবু জুবায়ের অরিন, ইমাম হোসেন রাজু ও মো. আলাউদ্দিন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: পূজামণ্ডপে হামলা

২৫ অক্টোবর, ২০২১
আরও পড়ুন