Inqilab Logo

রোববার, ০৫ ডিসেম্বর ২০২১, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ২৯ রবিউস সানী ১৪৪৩ হিজরী

কনর্সাটে হজরে তালবিয়া অবমাননায় সামাজিক মাধ্যমে প্রতিবাদের ঝড়

বিনোদন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৫ অক্টোবর, ২০২১, ৫:৩২ পিএম

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র-শিক্ষক কেন্দ্রে (টিএসসি) গানরে মধ্যে পবত্রি হজরে আহকাম 'লাব্বাইক আল্লাহুম্মা লাব্বাইক'-কে বাদ্যযন্ত্ররে সাথে গানরে মধ্যে পরবিশেনরে ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদের ঝড় উঠছেে সামাজকি যোগাযোগ মাধ্যমে। গানরে মধ্যে তালবিয়া পরিবেশনের একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে ফেসবুকে। এটি শেয়ার করে ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন র্ধমপ্রাণ মুসলিমরা।

সমালোচকরা বলছনে, সম্প্রীতির কথা বলে হজরে পবত্রি তালবিয়া (লাব্বাইক) এভাবে গান বানিয়ে প্রচার করার কোনো যৌক্তকিতা থাকতে পারে না। টিএসসিতে গানরে মধ্যে 'লাব্বাইক আল্লাহুম্মা লাব্বাইক' উপস্থাপন করে উপহাস করা হয়েছে। এতে তারা গভীরভাবে ক্ষুব্ধ ও র্মমাহত।


ফেসবুকে প্রতবিাদ জানিয়ে ইউসুফ মাহিম লিখেছেন, ‘‘প্রকাশ্যে ইসলামকে অবমাননা করা হলো। এখন সুশীল সমাজরে মানুষরো কোথায়? হাজরিা হজ করতে গয়িে আল্লাহর কাছে বলনে 'লাব্বাইক আল্লাহুম্মা লাব্বাইক, লাব্বাইকা লা শারকিা লাকা লাব্বাইক, ইন্নাল হামদা ওয়ান্ন'িমাতা লাকা ওয়ালমুল্ক্, লা শারকিা লাকা। ' র্অথাৎ—'আমি হাজরি, হে আল্লাহ আমি হাজরি, তোমার কোনো শরকি নইে, সব প্রশংসা ও নযি়ামত শুধু তোমারই, সব সাম্রাজ্যও তোমার।' টএিসসতিে মঘেদল যা করছে তা সম্পন্ন হারাম এবং ইসলামকে অবমাননা করা। এদরেকে দ্রুত আইনরে আওতায় এনে শাস্তি দওেয়া হোক।’’

শরিাজ উল ইসলাম লখিছেনে, ‘‘সাম্প্রদায়কি সম্প্রীতরি নামে সাম্প্রদায়কি সম্প্রীতি বনিষ্টরে উসকানি দওেয়া বন্ধ হলইে প্রকৃত সম্প্রীতি বজায় থাকব।ে উস্কানি দাতাদরে আইনরে আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তরি ব্যবস্থা করা হোক।’’


চাপা ক্ষোভ থকেে পারভজে আল সানয়িাদ লখিছেনে, ‘‘আহ! বুকটা ফটেে যাচ্ছ!েহজ্বে পাঠ কৃত তালবযি়্যা 'লাব্বাইক আল্লাহুম্মা লাব্বাইক' বলে কনর্সাটে গান গযে়ে বকিৃত করা হচ্ছে নাউজুবল্লিাহ। এখন কি র্ধম অবমাননা হচ্ছে না?.......এইগুলা থকেে কি সহংিসতা সৃষ্টি না?......আল্লাহ'র কাছে এতোটুকুই চাওয়া, হয়তো আল্লাহ এদরে হদোয়তে দকি নাহয় এদরে ধ্বংস করে দকি। (আমনি)।’’


মহেদেী মাসুদ ক্ষুব্ধ প্রতক্রিয়িা জানয়িে লখিছেনে, ‘‘ফাজলামোর একটা সীমা থাকা দরকার। র্ধমরে বরিুদ্ধে এমন বাড়াবাড়ি কখনই গ্রহণযোগ্য নয়। অসাম্প্রদায়কি প্রমাণ করতে আর কী কী করতে চায় কথতি সকেুলাররা? আপনার মন চাইলে মন্দরিে পুঁজা দনি, র্গীজায় মাথা ঠুকুন, শাহবাগে বরিানী খান, কন্তিু ইসলাম নয়িে ফাজলামো করার অধকিার কে দয়িছে?ে বাইতুল্লাহ’র মহাপবত্রি তালবয়িাকে ডজিে গান বানয়িে শাহবাগে নৃত্য করার সাহস কোথায় পয়েছেো? বারবার র্ধমীয় অনুভূততিে আঘাত এবং উষ্কানদিাতা এই গোষ্ঠী থামাতে সরকাররে ভূমকিা প্রশ্নবদ্ধি...।’’

মুহাম্মাদ বনি বখতয়িাররে মন্তব্য, ‘‘আসলে র্থাডক্লাস এগুলো। এখন বুদ্ধজিীবীর তকমা মরেে ঘুড়ছ।েবভিন্নি হলগুলোর আশে পাশে যে অবধৈ বাচ্চা পাওয়া যাচ্ছ।েএগুলো এদরেই অবধৈ পাপরে ফসল।এদরে ঘৃণা ভরে প্রত্যাখ্যান করার সময় এসছে।ে’’

তাসনয়িা ফারনি লখিছেনে, ‘‘শা*হ*বা*গী বুদ্ধি প্রতবন্ধীরা আবারো ইসলাম অবমাননায় লপ্তি হয়ছে.ে.'লাব্বাইক আল্লাহুম্মা লাব্বাইক' ধ্বনকিে অবমাননা করা হচ্ছে তাও আবার র্মূতরি সামনে ব্যান্ড সঙ্গীতরে তালে তাল!েতথাকথতি বুদ্ধজিীবীগণ এখন নীরব..। উনাদরে মুখ ইসলাম অবমাননায় সব সময় কুলুপ এঁটে রাখনে..।এখন কউে শা*হ*বা*গীদরে এই র্কমকাণ্ডরে প্রতবিাদ করলে কথতি বুদ্ধজিীবীগণ আবারো জগেে উঠবনে..।আর কছিু পারুক না পারুক উনারা ডাবল স্ট্যার্ন্ডাড-এ চ্যাম্পযি়ন..। আল্লাহ্ এদরেকে হদোয়তে দকি নয়তো ধ্বংস করুক!’’


তানহা জাহান লখিছেনে, ‘‘লাব্বাইক, আল্লাহুম্মা লাব্বাইক, যার নগিূঢ় র্অথ দাঁড়ায়, ‘আল্লাহ,আপনি আমাকে আপনার ঘররে মহেমান হসিবেে কবুল করছেনে, এই যে আমি হাজরি আল্লাহ, আপনার দরবারে হাজরি।’সইে পবত্রি বাক্য, সইে পবত্রি ধ্বনকিে শরিকী কথার্বাতার সাথে সংযুক্ত করে হারাম মউিজকি জড়যি়ে এমন অবমাননা?!যাকে বলে প্রকাশ্য শরিকরে গুনাহ!আমাদরে রব সব ক্ষমা করে দতিে পারনে, ক্ষমা করনে না শুধু শরিকরে গুনাহ।বোধ কর,ি রবরে পাকড়াও বড্ড সন্নকিট!ে এই মধ্যরাতে হৃদয়রে চাপা কান্না গলায় আটকযি়ে রখেে বলছ,িঅন্যায় দখেওে চুপচাপ সহ্য করার অপরাধে সম্ভাব্য গজব থকেে আমরা নরিীহ মুমনিরো রহোই চাই,মালকি!প্রতরিোধ করার ক্ষমতা যহেতেু নইে তাই ঈমান নযি়ে পালযি়ে বাঁচতে চাই, মরলে ঈমানটুকু নযি়ে মরতে চাই!আমরা এই মুর্হূতে সবচযে়ে অসহায়। আল্লাহুম্মাগফরিলী, ওয়ারহামনী, ওয়াহদীন।ি রব্বি ইয়াসসরি!’’

মোঃ ইমরান হোসাইন লখিছেনে, ‘‘কুচক্রী মহল সাম্প্রদায়কি সম্প্রীতি বনিষ্ট করার জন্য একরে পর এক উস্কানি দয়িে যাচ্ছ।ে’’



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন