Inqilab Logo

বৃহস্পতিবার, ০২ ডিসেম্বর ২০২১, ১৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ২৬ রবিউস সানী ১৪৪৩ হিজরী

সোশ্যাল মিডিয়ায় তীব্র অপমান, মুসলিম বলেই কি টার্গেটে শামি: ওয়াইসি

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৬ অক্টোবর, ২০২১, ৩:১৯ পিএম

বিশ্বকাপের মঞ্চে এই প্রথম পাকিস্তানের কাছে হারল ভারত। হারটা আবার ১০ উইকেটের ব্যবধানে। এরপরে ক্ষীপ্ত হয়ে উঠেছে গোটা ভারতীয় ক্রিকেট সমর্থকরা। আর সমর্থকদের রোষানলে পড়েছেন পেসার মোহাম্মদ শামি।

শামিকে এভাবে দায়ী করার পেছনে ভিন্ন কারণ দেখছেন সর্বভারতীয় মজলিস-ই-ইত্তেহাদুল মুসলিমিন দলের প্রেসিডেন্ট আসাদউদ্দিন ওয়াইসি। শামিকে আক্রমণকারীদের কার্যত ‘মুসলিমবিরোধী’ তকমা দিয়ে বিষয়টিকে মৌলবাদ হিসেবেই চিহ্নিত করেন তিনি। আসাদউদ্দিন প্রশ্ন তোলেন, দলে ১১ জন ক্রিকেটার। সবাই মিলে হেরেছে। তারপরও শুধু শামিকেই কেন দোষারোপ করা হচ্ছে? মুসলিম বলে?

ওয়াইসি বলেন, সোশ্যাল মিডিয়ায় মোহাম্মদ শামিকে আক্রমণ করা হচ্ছে। এটা স্পষ্ট মৌলবাদ। মুসলিমদের প্রতি ঘৃণা থেকেই এমনটা করা হচ্ছে। খেলায় আপনি জিততে পারেন, হারতেও পারেন। দলে ১১ জন ক্রিকেটার রয়েছে। তাহলে হারের জন্য শুধু একজন মুসলিম ক্রিকেটারকে টার্গেট করা হচ্ছে কেন?

ম্যাচ শেষের পরপরই শামির ইনস্টাগ্রামে হামলে পড়েন ওই উগ্র সমর্থকরা। একজন তাকে বিশ্বাসঘাতক বলে লেখার অযোগ্য গালাগাল করেন। কেউ তাকে বলেছেন, ‘ভারত দলের পাকিস্তানি খেলোয়াড়।’ কেউ আবার লিখেছেন, ‘পাকিস্তানি দলের দ্বাদশ খেলোয়াড়।’ একজন আবার ছাড়িয়ে গেছেন সমস্ত মাত্রা। সরাসরি ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত হেনে লিখেছেন দিয়েছেন, ‘মুসলিম।’

ধর্ম নিয়ে শামির প্রতি এমন আক্রমণের পর তার পাশে দাঁড়িয়েছেন শচীন টেন্ডুলকার, বীরেন্দর শেওয়াগসহ ভারতের সাবেক ও বর্তমান খেলোয়াড়েরা। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমেই শামিকে সমর্থন দিয়েছেন তারা। টুইটারে শামির প্রতি সমর্থনে এক ক্ষুদে বার্তা দিয়েছেন শচীন। তিনি লেখেন, ‘আমরা যখন ভারতের ক্রিকেট দলকে সমর্থন করি, তখন আমরা দলের এগারো জনকেই সমর্থন করি। মোহাম্মদ শামি খুবই নিবেদিত এবং বিশ্বমানের একজন বোলার। যেকোনো খেলোয়াড়ের মতো সেও মাঠে একটা বাজে দিন কাটিয়েছে। আমি শামি এবং ভারত দলের পাশে আছি।’

এদিকে মোহাম্মদ শামির সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এভাবে হেনস্তার শিকার হওয়ায় কষ্ট পেয়েছেন বীরেন্দর শেওয়াগও। তিনি লেখেন, ‘মোহাম্মদ শামির ওপর অনলাইনে এমন হামলা খুবই ন্যক্কারজনক এবং আমরা সবাই তার পাশে আছি। সে একজন চ্যাম্পিয়ন এবং যারা ভারতের টুপি পরে মাঠে নামেন, তারা সবাই হৃদয়ে ওই অনলাইন আক্রমণকারীদের তুলনায় ভারতকে অনেক বেশি ধারণ করেন। তোমার সঙ্গেই আছি শামি। পরের ম্যাচে দেখিয়ে দিও তোমার ক্ষমতা!’ এছাড়াও ইরফান পাঠান, হরভজন সিং, যুজবেন্দ্র চাহালও শামির পাশে দাঁড়িয়ে সমর্থন জানিয়েছেন। সূত্র: ডন, টিওআই।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন