Inqilab Logo

বৃহস্পতিবার, ০৯ ডিসেম্বর ২০২১, ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ০৪ জামাদিউল আউয়াল ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

কোরআন মাজিদে সুনির্দিষ্ট কারো ফিঙ্গারপ্রিন্ট পাওয়া যায়নি

সাংবাদিকদের সিআইডি

সাদিক মামুন, কুমিল্লা থেকে : | প্রকাশের সময় : ২৭ অক্টোবর, ২০২১, ১২:০০ এএম

কুমিল্লায় পূজামন্ডপে পবিত্র কোরআন রাখার ঘটনায় প্রধান অভিযুক্ত ইকবাল হোসেনের মামলার আশি শতাংশ অগ্রগতি হয়েছে বলে জানিয়েছেন সিআইডি কুমিল্লার পুলিশ সুপার খান মোহাম্মদ রেজওয়ান। তিনি বলেন, এ মামলার আশি শতাংশ অগ্রগতি হয়েছে। আশা করছি বাকি বিশ শতাংশও দ্রæততম সময়ের মধ্যে উদ্ঘাটন হবে এবং ইকবালের ইন্ধনদাতা ও জড়িতদের খুঁজে বের করে আইনের আওতায় আনা হবে।
গতকাল মঙ্গলবার দুপুর আড়াইটায় কুমিল্লা কোতোয়ালি মডেল থানা পুলিশ ওই ঘটনা সংক্রান্ত মামলার সব নথি পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগের (সিআইডি) কাছে হস্তান্তরের পর সংস্থাটির পুলিশ সুপার সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন।
সিআইডি কুমিল্লার পুলিশ সুপার খান মোহাম্মদ রেজওয়ান আরো বলেন, রিমান্ডে ইকবাল যেসব তথ্য দিচ্ছেন তা যাচাই-বাচাই করে দেখা হচ্ছে জানিয়ে তিনি বলেন, তদন্তের স্বার্থে সেসব তথ্য বলা যাচ্ছে না। মামলার গুরুত্বপূর্ণ আলামত হচ্ছে মন্ডপ থেকে পুলিশের উদ্ধার করা পবিত্র কোরআন। তবে ওই কোরআন মাজিদ অনেকেরই ফিঙ্গারপ্রিন্ট থাকায় আমরা (সিআইডি) পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে এতে সুনির্দিষ্ট কারও ফিঙ্গারপ্রিন্ট পাওয়া যায়নি। তিনি বলেন, গত ২৪ অক্টোবর রাতে পুলিশ সদর দফতরের নির্দেশে মামলাটি তদন্তের জন্য সিআইডিতে হস্তান্তরের নির্দেশ দেয়া হয়। সে আলোকে গতকাল মঙ্গলবার দুপুর আড়াইটায় মামলার সব ডকুমেন্ট অনুষ্ঠানিকভাবে আমাদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। আমরা এরই মধ্যে মামলাটি গুরুত্ব সহকারে তদন্ত শুরু করেছি।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: কোরআন মাজিদ
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ