Inqilab Logo

রোববার, ০৫ ডিসেম্বর ২০২১, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ২৯ রবিউস সানী ১৪৪৩ হিজরী

ভারতকে হারানোর খুশিতে...

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৭ অক্টোবর, ২০২১, ১২:০৬ এএম | আপডেট : ৯:১৭ পিএম, ২৭ অক্টোবর, ২০২১

 ইমরান খান, ওয়াসিম আকরাম, ইনজামাম উল হক, শহিদ আফ্রিদির মতো কিংবদন্তিরা যা করে দেখাতে পারেননি, তাই করে দেখিয়েছেন বাবর আজম। উচ্ছ¡াসটা তো তার একটু বেশি হতেই পারে। ভারতের বিপক্ষে ঐতিহাসিক জয় তুলে বড় মনের পরিচয়ও দিলেন পাকিস্তানের অধিনায়ক। ২৫০ শিশুর পড়াশোনার সম্প‚র্ণ দায়িত্ব নিলেন তিনি। অ্যাডটেক প্ল্যাটফর্ম নুনে’র সঙ্গে কাজ করবেন বাবর। তাদের অংশীদারিত্বে ২৫০ জন যোগ্য শিক্ষার্থীকে শিক্ষিত করেই পাকিস্তানের জয় উদযাপন করতে চান অধিনায়ক। আর তার এ পদক্ষেপ নিজের বাবা মোহাম্মদ আজম ও সায়া কর্পোরেশনকে উৎসর্গ করেছেন তিনি।
বাবর এর আগে বেশ কিছু সাক্ষাৎকারেই জানিয়েছেন নিজের রোল মডেল বাবা আজম। বাবার কথা মতোই ভারত বধের উদযাপনে এমন এক মহৎ উদ্যোগ নিয়েছেন বাবর। ২৭ বছর বয়সী এ তারকা জানিয়েছেন, শিক্ষার্থীদের শিক্ষা প্রদান করার উদ্যোগটি তার বাবার। জানা গেছে, এর জন্য পাকিস্তানি মুদ্রায় ২০ লাখ রুপির একটি তহবিল বরাদ্দ করা হবে। গতকাল সামাজিক মাধ্যম টুইটারে বাবর লিখেছেন, ‘আমি শীর্ষস্থানীয় অ্যাডটেক প্ল্যাটফর্ম নুনের মাধ্যমে ২৫০ জন যোগ্য শিক্ষার্থীকে শিক্ষিত করে উদযাপন করতে চাই। এটি আমার বাবা এবং রোল মডেল, মোহাম্মদ আজম এবং সায়া কর্পোরেশনের জন্য উৎসর্গ করলাম।’
গত রোববার ভারতকে ১০ উইকেটের ব্যবধানে হারায় পাকিস্তান। একপেশে সেই ম্যাচে শুরুতেই কোহলিদের চেপে ধরে মাত্র ১৫১ রানে বেঁধে ফেলে তারা। এরপর দুই ওপেনার বাবর ও মোহাম্মদ রিজওয়ানের ব্যাটেই জয় তুলে নেয় তারা। ভারতের বিপক্ষে অসাধারণ এই জয়ের দিন মাঠেই ছিলেন বাবরের বাবা আজম। ভারতের বিপক্ষে প্রথম জয় এনে দেওয়া শটটাও ছিল পাকিস্তান অধিনায়কের। গ্যালারিতে বসেই সেটা দেখেছেন তার বাবা। তখন আর আবেগ ধরে রাখতে পারেননি। আনন্দে কেঁদেই দিয়েছিলেন তিনি।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: টি২০ কাপ


আরও
আরও পড়ুন