Inqilab Logo

রোববার, ২৮ নভেম্বর ২০২১, ১৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ২২ রবিউস সানী ১৪৪৩ হিজরী

আজও শেষ হল না আরিয়ানের জামিন আবেদনের শুনানি

বিনোদন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৭ অক্টোবর, ২০২১, ৬:৫৬ পিএম

আজকেও (২৭ অক্টোবর) জামিন পেলেন না শাহরুখপুত্র আরিয়ান খান। আগামীকাল মুম্বাই হাইকোর্টে ফের জামিনের শুনানি হবে। প্রায় একমাস ধরে এনসিবি হেফাজতেই আছেন আরিয়ান। ৩ অক্টোবর গ্রেপ্তার করা হয়েছিল তাকে। আজকের রাতও আর্থার রোডের জেলেই কাটাতে হবে আরিয়ানকে। ইতিমধ্যেই মুম্বাইয়ের এসপ্ল্যান্ডেড আদালত ও এনডিপিএস আদালতে আরিয়ানের জামিনের আবেদন খারিজ হয়েছে।

জানা গেছে, আজ আরিয়ানের পাশাপাশি অন‍্য দুই অভিযুক্ত আরবাজ শেঠ মার্চেন্ট ও মুনমুন ধামেচার আইনজীবীরাও নিজেদের মক্কেলের হয়ে জামিনের আবেদন করেন। অমিত দেশাই, মুকুল রোহতাগি এবং আলি কাশিফ খান দেশমুখ অভিযুক্তদের পক্ষে আদালতে মামলা পরিচালনা করেন।

আজ আদালতে আরিয়ানের আইনজীবী মুকুল রোহাতগি বলেন, গ্রেফতারি পরোয়ানাতে সঠিক এবং উপযুক্ত তথ্য থাকা জরুরি, আমাকে কেন গ্রেফতার করা হচ্ছে সেটা স্পষ্ট করতে হবে। তিনি আরও বলেন, আরিয়ানের গ্রেফতারি পরোয়ানাতে বেশ কিছু জিনিসের উল্লেখ রয়েছে যা তার কাছ থেকে উদ্ধার করা হয়নি।

এতেই সময় লেগে যায় প্রায় ২ ঘন্টা। তখন নারকোটিকস কন্ট্রোল ব‍্যুরোর তরফে অ্যাডিশনাল সলিসিটর জেনারেলও দাবি করেন, এবার তারও বক্তব‍্য পেশ করতে কিছুটা সময় লাগবে। এর পরেই এনসিবির পক্ষ থেকে পাল্টা জবাব দেওয়া শুরুর আগেই মামলার শুনানি স্থগিত করে দেন বিচারপতি। তাই আগামীকাল বেলা তিনটের পর ফের শুরু হবে শুনানি।

শোনা যায়, নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরোর পক্ষ থেকে আরিয়ানের জামিনের তীব্র বিরোধিতা করা হয়। তাতে নাকি অভিযোগ করা হয়, শাহরুখপুত্র তথ্য ও প্রমাণ লোপাটের চেষ্টা করছেন। এমনকী শাহরুখের ম্যানেজার পূজা দদলানি নাকি মুম্বইয়ের এনসিবি অফিসে গিয়ে সাক্ষীকে প্রভাবিত করার চেষ্টা করেছেন। মঙ্গলবার দুই পক্ষের যুক্তি শোনার পরই নিজের সিদ্ধান্তের কথা জানিয়েছিলেন মুম্বাই হাইকোর্টের আইনজীবী।

উল্লেখ্য, ২রা অক্টোবর সমীর ওয়াংখেড়ের নেতৃত্বে মুম্বাইয়ের বিলাসবহুল কর্ডেলিয়া ক্রুজে হানা দেয় নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরো। কর্ডেলিয়া ক্রুজের পার্টি থেকেই আরিয়ান ও তার সঙ্গীদের আটক করা হয়। বেশ কয়েক দফা জিজ্ঞাসাবাদের পর ৩ অক্টোবর শাহরুখপুত্রকে গ্রেফতার করা হয়। প্রথমে আর্থার রোড জেলের কোয়ারেন্টাইন সেলে রাখা হয় আরিয়ানকে। পরে অন্য জেলে পাঠানো হয়।

ছেলের গ্রেফতারির বেশ কয়েকদিন পরে আর্থার রোড জেলে তার সঙ্গে দেখা করতে গিয়েছিলেন শাহরুখ। প্রথমে আরিয়ানের জামিনের ভার তিনি দিয়েছিলেন আইনজীবী সতীশ মানেশিন্ডেকে। কিন্তু পরে দুই বার আইনজীবী বদল করা হয়।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: আরিয়ান খান


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ