Inqilab Logo

বৃহস্পতিবার, ০৯ ডিসেম্বর ২০২১, ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ০৪ জামাদিউল আউয়াল ১৪৪৩ হিজরী

যৌন হয়রানির শিকার!

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৮ অক্টোবর, ২০২১, ১২:০২ এএম

যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী ও প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ডেমোক্রেট দলের প্রার্থী হিলারি ক্লিনটনের সাবেক একজন ঘনিষ্ঠ সহযোগী হুমা আবেদিন। একটি নতুন স্মৃতিকথা লিখেছেন তিনি। সেখানে দাবি করেছেন একজন সিনেটর তাকে যৌন হয়রান করেছেন। এ ঘটনা প্রকাশ পাওয়ার পর তোলপাড় শুরু হয়েছে যুক্তরাষ্ট্রজুড়ে। তবে কোন সিনেটর তাকে যৌন হয়রান করেছিলেন তার নাম প্রকাশ করেননি।

হুমা বলেছেন, ওই সিনেটর তাকে তার বাসায় কফি পানের আমন্ত্রণ করেন ২০০০-এর দশকের মধ্যভাগে। ওই সিনেটরের সঙ্গেই তার বাসায় গিয়ে বসেন হুমা। সেখানেই ওই সিনেটর তাকে যৌন হয়রান করেন। এক পর্যায়ে তিনি হুমা আবেদিনকে চুমু দেন। আরও বেশি অগ্রসর হওয়ার চেষ্টা করেন। কিন্তু তিনি তা প্রত্যাখ্যান করেন এবং তার কবল থেকে মুক্ত হয়ে বেরিয়ে আসেন। হুমা আবেদিনের নতুন বই ‘বোথ/অ্যান্ড: এ লাইফ ইন মাই ওয়ার্ল্ডস’-এ এসব কথা বিস্তারিত লিখেছেন। বইটি আগামী সপ্তাহে প্রকাশ পাওয়ার কথা।
২০১৬ সালে প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ডেমোক্রেট দল থেকে যেসব প্রার্থী মনোনয়ন চেয়েছিলেন তার মধ্যে মিস হুমা আবেদিন অন্যতম। সাবেক প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার সময়ে হিলারি ক্লিনটন যখন যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী, তখন হিলারির সবচেয়ে বিশ্বস্ত সহযোগী ছিলেন হুমা আবেদিন। এক সময় তাকে নিজের ‘দ্বিতীয় কন্যা’ হিসেবে বর্ণনা করেছিলেন হিলারি ক্লিনটন । ২০০১ সাল থেকে ২০০৯ সাল পর্যন্ত নিউ ইয়র্ক থেকে যুক্তরাষ্ট্রের সিনেটর ছিলেন হিলারি ক্লিনটন। ওই সময়ে তার সহযোগী হয়ে কাজ করতেন হুমা। এই সময়ের মধ্যেই ওই যৌন হয়রানির ঘটনা ঘটে বলে তিনি বর্ণনা করেছেন। হুমা আবেদিন বলেছেন, এক পর্যায়ে ওই সিনেটরকে বিস্মিত দেখায় এবং তিনি তার কাছে ক্ষমা চেয়েছেন। জানিয়েছিলেন, হুমা আবেদিন তার ডাকে সাড়া দেবেন কিনা এটা জানার আগে, তার সঙ্গে তিনি ভুল আচরণ করেছেন। হুমা লিখেছেন, ‘তখন আমার বয়স ২০ প্লাস। আমার এই বয়সের সঙ্গে আমি বিষয়টি দেখার চেষ্টা করেছিলাম এবং বলেছিলাম- আমি দুঃখিত। এরপরই সেখান থেকে বেরিয়ে আসি এবং বিষয়টিকে যতটা সম্ভব উদাসীনতা হিসেবে দেখার চেষ্টা করি।’ সূত্র : দ্য গার্ডিয়ান, বিবিসি।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ