Inqilab Logo

শনিবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২১, ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ২৮ রবিউস সানী ১৪৪৩ হিজরী

মানব পাচার আইনে হয়রানি বন্ধে প্রজ্ঞাপন জারি করা হবে

সম্বর্ধনা অনুষ্ঠানে-স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৮ অক্টোবর, ২০২১, ৭:৫৬ পিএম

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান বলেছেন, জনশক্তি রফতানির ক্ষেত্রে দেশের সুনাম অক্ষুণ্ণ রাখতে হবে। বিদেশগামী কর্মীদের পুলিশ ক্লিয়ারেন্স ইস্যু সহজীকরণ করা হবে। মানব পাচারের ফাঁক ফোকড় বন্ধ করতে হবে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশের জন্য ১৮ ঘন্টা কাজ করছেন। এ জন্যই দেশ বিদেশে প্রধানমন্ত্রীর আকাশচুম্বী জনপ্রিয়তা। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী বলেন, দুবাই, ইস্তাম্বুল, লিবিয়া ও দক্ষিণ আফ্রিকায় মানব পাচারের ঘটনার শিকার হয়ে অনেকেই জেল খাটছে। ইউরোপে যাবার স্বপ্ন দেখে ভূ-মধ্যসাগরে নৌকা ডুবে বাংলাদেশি যুবকরা মারা গেলে তখন প্রশ্ন উঠে পুলিশ কি করেন। কিভাবে এসব মানুষের পুলিশের চোখ আড়াল করে পাচার হলো। পুলিশ তখন দায়িত্ববোধ থেকে মানব পাচার আইনে মামলা করতে বাধ্য হয়। এজন্য ভালো ব্যবসায়ীরা ক্ষতিগ্রস্ত হয়। বৈধভাবে পাঠালে সমস্যা হওয়ার কথা না। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী বলেন, মানব পাচার আইনে বৈধ রিক্রুটিং এজেন্সিগুলোকে হয়রানি বন্ধের লক্ষ্যে আইন মন্ত্রণালয়ের সাথে কথা বলে একটি প্রজ্ঞাপন জারি করা হবে। বুধবার রাতে রাজধানীর বনানীস্থ শেরাটন হোটেলের বল রুমে মানব পাচার আইনের হয়রানি থেকে মুক্ত করার জন্য স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খানের যুগান্তকারী সিদ্ধান্তের জন্য সম্মিলিত সমন্বয় পরিষদ বায়রার উদ্যোগে তাকে দেয়া সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে আসাদুজ্জামান খান কামাল এসব কথা বলেন।

বায়রার সাবেক সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা বেনজির আহমদ এমপির সভাপতিত্বে এতে গেস্ট অব অনার হিসেবে বক্তব্য রাখেন প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রণালয় বিষয়ক সংসদীয় স্থায়ী কমিটির চেয়ারম্যান ব্যারিস্টার আনিসুল ইসলাম মাহমুদ এমপি, ককাস সভাপতি ব্যারিস্টার শামীম হায়দার পাটোয়ারী এমপি। প্রধান বক্তা হিসেবে বক্তব্য রাখেন, প্রবাসী মন্ত্রণালয়ের সচিব ড. আহমেদ মুনিরুছ সালেহীন। এতে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, বিএমইটির মহাপরিচালক মো. শহীদুল আলম, বায়রার সাবেক সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা নূর আলী, বায়রার সাবেক সভাপতি আলহাজ আবুল বাসার, বায়রার সাবেক মহাসচিব বীর মুক্তিযোদ্ধা আলী হায়দার চৌধুরী, ড্রামস এর সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা শাহাদাত হোসেন ও বায়রার সাবেক মহাসচিব শামীম আহমেদ চৌধুরী নোমান। অনুষ্ঠানে পবিত্র কোরআন তেলাওয়াত করেন মুফতি এ এন এম জিয়াউল হক মজুমদার।

অনুষ্ঠানে জনশক্তি রফতানির ক্ষেত্রে ডিমান্ড লেটার পাওয়ার পর কর্মীদের বিদেশে যেতে পুলিশ ক্লিয়ারেন্স উঠিয়ে দেয়ার দাবি জানিয়েছেন জনশক্তি রপ্তানিকারক রিক্রুটিং এজেন্সির মালিকরা।

তারা বলছেন, পুলিশ ক্লিয়ারেন্সের নামে ২০ দিনের বেশি সময় নষ্ট হয়। কারণ পাসপোর্ট তৈরি করার সময়েই পুলিশ ক্লিয়ারেন্স হয়ে থাকে। ঐ সময়ে পুলিশ ক্লিয়ারেন্সটি অনলাইনে দিয়ে দিলেই সৃষ্ট সঙ্কট দূর হয়। দ্বিতীয় বার পুলিশ ক্লিয়ারেন্সের প্রয়োজন নেই। এর ফলে ডেসপাস কমে যায়। পৃথিবীর কোথাও পুলিশ ক্লিয়ারেন্স নেই। তাই পুলিশ ক্লিয়ারেন্স প্রথা উঠিয়ে দেয়া উচিত। ব্যবসায়ীদের দাবির প্রেক্ষিতে প্রধান অতিথির বক্তব্যে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান বলেন, পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সহজ করার চেষ্টা করা হবে।

তিনি বলেন, ইতোমধ্যে ই-পাসপোর্ট ও বিমান বন্দরে ই-গেইট চালু হয়েছে। এটা আরো বৃহৎ পরিসরে হবে। এছাড়া কয়েক দিনের মধ্যে এসব গেইটে ভিসা সঠিক আছে কি না সেটাও চেক করা যাবে। সব কিছু ঠিক থাকলে গেইট অটো চালু হয়ে যাবে। এতে পুলিশের ভিসা চেক করার দরকার হবে না। ইমিগ্রেশনে লাইন ধরে দাঁড়াতে হবে না। তিনি আরো বলেন, এতো দিন দুবাই ভিজিট ভিসা ছিল, এর ফলে অনেকে ভিজিট ভিসা নিয়ে দুবাই হয়ে ইউরোপ যাওয়ার চেষ্টা করতো। এখন দুবাই লেবার ভিসা চালু করেছে। এতে দুবাই হয়ে ইউরোপ যাওয়ার চেষ্টা বন্ধ হবে।

গেস্ট অব অনারে প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের সংসদীয় কমিটির চেয়ারম্যান ব্যারিস্টার আনিসুল ইসলাম মাহমুদ এমপি বলেন, জনশক্তি রফতানিতে গার্মেন্টস এর চেয়ে রেমিট্যান্স বেশি। গত বছর ২৪ মিলিয়ন মার্কিন ডলার রেমিট্যান্স এসেছে। করোনার কারণে গত বছর আগের চেয়ে কম ৭ থেকে ১০ লাথ মানুষ বিদেশে গেছে। মানুষ বিদেশে না গেলে সামাজিক ও রাজনৈতিক অস্থিরতা বাড়তো। আজ ১ কোটি ২৫ লাখ মানুষ দেশের বাইরে। সেখানে ভুল হতেই পারে। তবে আমরা ভুলের সমাধান চাই শ্রমবাজার বন্ধ করে নয়। বিশেষ অতিথির বক্তব্যে ড. আহমেদ মুনিরুছ সালেহীন, বলেন, আমরা জনশক্তি খাতকে মর্যাদাশীল করতে পারিনি। জনশক্তি রফতানির ক্ষেত্রে বৈধ রিক্রুটিং এজেন্সিগুলোকে দায়িত্বশীল হতে হবে। রিক্রুটিং এজেন্সিগুলোর যৌক্তিক ও নৈতিক দাবি পূরণে আমরা আপনাদের সর্বদাই পাশে আছি এবং থাকবো ইনশাআল্লাহ।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: বায়রা


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ