Inqilab Logo

বৃহস্পতিবার, ০৭ জুলাই ২০২২, ২৩ আষাঢ় ১৪২৯, ০৭ যিলহজ ১৪৪৩ হিজরী

স্বাস্থ্যবিধি উপেক্ষিত

জেলা-উপজেলায় করোনা পরিস্থিতি

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৯ অক্টোবর, ২০২১, ১২:০২ এএম

করোনার দ্বিতীয় ঢেউ নিয়ন্ত্রণে আসায় সাধারণ মানুষের মধ্যে স্বাস্থ্যবিধি উপেক্ষার প্রবণতা দেখা দিয়েছে। আমাদের সংবাদদাতাদের প্রতিবেদন।
রাজশাহী ব্যুরো জানায়, রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে গত ২৪ ঘণ্টায় আরো পাঁচজন মারা গেছেন। তাদের মধ্যে করোনায় একজন, উপসর্গ নিয়ে তিনজন এবং করোনা নেগেটিভ হয়েও অন্যান্য শারীরিক জটিলতায় একজন মারা গেছেন।
এদিকে রোগী কমে আসায় আরেক দফা শয্যা কমানো হয়েছে রামেক হাসপাতালের করোনা ইউনিটে। ১৯২ শয্যা থেকে নামিয়ে শয্যা রাখা হয়েছে ১০৪টি। বর্তমানে রাজশাহীর ২২ জন, চাঁপাইনবাবগঞ্জের ১১ জন, নাটোরের সাতজন, নওগাঁর ছয়জন এবং পাবনার চারজন রোগী হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন। হাসপাতালে করোনা নিয়ে ভর্তি রয়েছেন ছয়জন। করোনার উপসর্গ নিয়ে ভর্তি রয়েছেন ৩৮ জন। করোনা ধরা পড়েনি ভর্তি ছয়জনের। গত ২৪ ঘণ্টায় ভর্তি হয়েছেন সাতজন।
বরিশার ব্যুরো জানায়, দক্ষিণাঞ্চলে করোনা সংক্রমন শূন্যের কোঠায় নেমে এসেছে। গতকাল সকালের পূর্ববর্তী ২৪ ঘণ্টায় দক্ষিণাঞ্চলের ৬ জেলায় ২৩০ জনের নমুনা পরীক্ষায় কারো দেহেই করোনা পজিটিভ শনাক্ত হয়নি। এর আগে গত মঙ্গলবারও ১৩০ জনের নমুনা পরীক্ষায় কোন কোভিড রোগীর সন্ধান মেলেনি। তবে করেনা সংক্রমন পরিস্থিতির উন্নতির সাথে সমগ্র দক্ষিণাঞ্চল থেকেই নুন্যতম স্বাস্থ্যবিধিও বিদায় হয়েছে। শহর এলাকার ৫% মানুষও এখন মাস্ক ব্যবহার করেন না। শহরের বাইরে থেকে তা বিদায় হয়েছে আরো দু’ মাস আগে।
নারায়ণগঞ্জ থেকে স্টাফ রিপোর্টার জানান, প্রাণঘাতি করোনাভাইরাসের সংক্রামণ কমতে শুরু করেছে। ২২ দিনে জেলায় কোনো মৃত্যু নেই। মৃত্যুর সংখ্যা ৩২৭ জনই আছে। এছাড়া গত ২৪ ঘণ্টায় জেলায় ৩৭৫ জনের নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। এতে ৮ জন আক্রান্ত হয়েছে। এ নিয়ে জেলায় আক্রান্তের সংখ্যা ২৬ হাজার ৪২৮ জন। সুস্থ্য হয়েছেন ২৬ হাজার ৩৪ জন। এ পর্যন্ত জেলায় মোট নমুনা সংগ্রহ হয়েছে ১ লাখ ৮৪ হাজার ৫ জনের।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ