Inqilab Logo

শুক্রবার, ২৮ জানুয়ারী ২০২২, ১৪ মাঘ ১৪২৮, ২৪ জামাদিউস সানি ১৪৪৩ হিজরী

চিকিৎসায় দেরি হলে কমে স্ট্রোকে উন্নতির সম্ভাবনা

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৩১ অক্টোবর, ২০২১, ১২:০৩ এএম

স্ট্রোকের চিকিৎসা যত দ্রুত করা সম্ভব তত ফলাফল ভালো হয়। চিকিৎসায় দেরি করলে উন্নতি হওয়ার সম্ভবনা কমে যায়। যদি মুখ বেঁকে যায়, এক হাত অবশ হয়ে যায়, কথা জড়িয়ে যায় তাহলে দেরি না করে দ্রুত হাসপাতালে নিতে হবে। সাড়ে চার ঘণ্টার মধ্যে নিউরোসায়েন্স হাসপাতালে নিলে অত্যাধুনিক আইভি থ্রোম্ব^লাইসিস করা সম্ভব। স্ট্রোক প্রতিরোধে ডায়াবেটিস, উচ্চ রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণ করা, ধূমপান না করা ও নিয়ন্ত্রিত জীবন-যাপন করা জরুরি।

গতকাল শনিবার ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব নিউরোসায়েন্সে বিশ্ব স্ট্রোক দিবস উপলক্ষে আয়োজিত বৈজ্ঞানিক সেমিনারে এসব তথ্য জানানো হয়। সোসাইটি অব নিউরোলজিস্ট অব বাংলাদেশ এবং বাংলাদেশ সোসাইটি অব স্ট্রোক ও নিউরোইন্টারভেনশনের উদ্যোগে সকাল ৮টায় র‌্যালি অনুষ্ঠিত হয়। চেয়ারপার্সন হিসেবে ছিলেন প্রখ্যাত নিউরোলজিস্ট প্রফেসর ডা. কাজী দীন মোহাম্মদ। প্রধান অতিথি ছিলেন প্রফেসর ডা. ফিরোজ আহম্মেদ কোরাইশি এবং বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন প্রফেসর ডা. মো. বদরুল আলম ও প্রফেসর ডা. আবু নাসার রিজভী। বৈজ্ঞানিক প্রবন্ধ উপস্থাপনা করেন ডা. খাইরুল কবির পাটোয়ারি, ডা. শিরাজী শফিকুল ইসলাম ও ডা. এটিএম হাছিবুল হাসান।
এসময় জানানো হয়, স্ট্রোকের অত্যাধুনিক চিকিৎসা যেটাকে মেকানিক্যাল থোম্বে^ক্টমি বলে। আগামী বছর থেকে দেশে প্রথমবারের মতো নিন্সেই শুরু হবে। নিন্সেই নিয়মিতভাবে স্ট্রোকের আধুনিক চিকিৎসা আইভি থ্রোম্ব^লাইসিস, রক্তনালীর ফোস্কা বা এনিউরিজম, এভিএম বা অস্বাভাবিক রক্তনালীর চিকিৎসা হচ্ছে।
প্রসঙ্গত, স্ট্রোক একটি মারণ ব্যাধি। প্রতি বছর প্রায় দেড় কোটি মানুষ এ রোগের আক্রান্ত হন। এর মধ্যে অর্ধ কোটি মানুষের মৃত্যু হয়, অর্ধ কোটি পঙ্গুত্ব বরণ করেন। বিশ্বব্যাপী মৃত্যুর দ্বিতীয় কারণ এটি। মৃতদের দুই-তৃতীয়াংশ আমাদের মতো নিম্ন আয়ের দেশে ঘটে। গবেষকরা ধারনা করছেন, ২০৫০ সালের মধ্যে এ হার প্রায় ৮০ গুণ বেড়ে যাবে। বাংলাদেশেও এ হার কিন্তু কম নয়। গবেষণায় দেখা গেছে, দেশে প্রতি ১ হাজার জনে প্রায় ১২ জন স্ট্রোকে আক্রান্ত হন। ঘাতক এ ব্যাধি থেকে বেঁচে থাকতে সচেতনতার বিকল্প নেই।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: চিকিৎসা

৬ জানুয়ারি, ২০২২

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ