Inqilab Logo

বুধবার, ১৯ জানুয়ারী ২০২২, ০৫ মাঘ ১৪২৮, ১৫ জামাদিউস সানি ১৪৪৩ হিজরী

সউদী আরবে মদ পানের অনুমতি দেয়া হবে?

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৩১ অক্টোবর, ২০২১, ৫:৩৫ পিএম

সউদী আরবে বিদেশি বিনিয়োগ আকৃষ্ট করতে সর্বাধুনিক প্রযুক্তির সমন্বয়ে নিওম মেগাসিটি গড়ে তোলা হচ্ছে। সেখানে অ্যালকোহল বা মদ পানের অনুমতি দেয়ার বিষয়টি এখনও বাতিল করা হয়নি বলে এএফপিকে জানিয়েছেন ঐ প্রকল্পের একজন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা।

সউদী যুবরাজ মোহাম্মেদ বিন সালমানের ‘ভিশন ২০৩০’ এর অংশ হিসেবে নিওম গড়ে তোলা হচ্ছে। ৫০০ বিলিয়ন ডলার খরচ করে এই মেগাসিটি গড়ে তোলা হচ্ছে। এর মাধ্যমে তেলের উপর নির্ভরতা কমাতে চান তিনি। বিদেশি বিনিয়োগ আকৃষ্ট করতে সর্বাধুনিক প্রযুক্তির সমন্বয়ে নিওম তৈরি হচ্ছে। রোবট, এয়ারবোর্ন ট্যাক্সিসহ নানান প্রযুক্তি সেখানে ব্যবহৃত হবে। ২০২৫ সালে সেখানে প্রথম ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠান কাজ শুরু করতে পারে। তখন মানুষও বসবাস শুরু করবে।

নিজস্ব আইনের মাধ্যমে নিওম পরিচালিত হবে। এক-দুই বছরের মধ্যে সেই আইন তৈরি হয়ে যাবে। নিওম পরিচালনা পরিষদের চেয়ারম্যান হচ্ছেন বিন সালমান। নিওমের টেক অ্যান্ড ডিজিটাল হোল্ডিং কোম্পানির প্রধান নির্বাহী জোসেফ ব্র্যাডলি বুধবার রিয়াদে ‘ফিউচার ইনভেস্টমেন্ট ইনিশিয়েটিভ’ অনুষ্ঠানে এএফপিকে বলেন, বিদেশি মেধাবী মানুষ ও পর্যটক আকর্ষণে অ্যালকোহলের গুরুত্বের বিষয়টি ‘সবাই বোঝেন’।

নিওম পরিচালনার জন্য যে আইন করা হচ্ছে সেটি দেখেননি জানিয়ে তিনি এএফপির সাংবাদিককে বলেন, ‘আমি আপনাকে খুব স্পষ্টভাবে জানাতে পারি যে, সবাই বুঝতে পারেন, আমরা এমন একটি আইন তৈরি করতে যাচ্ছি যেটা পর্যটকদের আকৃষ্ট করবে, প্রযুক্তি খাতকে আকৃষ্ট করবে এবং নির্মাণ শিল্পকে আকৃষ্ট করবে।’ নিওমে অ্যালকোহল নিয়ে কী সিদ্ধান্ত হবে সে বিষয়ে অনেকের কাছ থেকে তিনি প্রশ্ন শুনতে পান বলেও জানিয়েছেন ব্র্যাডলি। ‘এটা পরিষ্কার যে নিওমকে প্রতিযোগিতি সক্ষম করে গড়ে তোলা হবে। আমরা চাই বিশ্বের সেরা মেধাবীরা নিওমে আসুক।’

উপসাগরীয় দেশগুলোতে বিদেশিরা সীমিত পরিসরে বৈধ উপায়ে অ্যালকোহল পান করতে পারলেও সউদী আরবে এখনও সে ব্যাপারে নিষেধাজ্ঞা রয়েছে। এ মাসের শুরুতে সউদী আরবের একজন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা এএফপিকে বলেছিলেন, সীমিত পরিসরে (নির্দিষ্ট জায়গায় কিংবা শুধু বিদেশিদের জন্য) অ্যালকোহল পানের অনুমতির বিষয়টি বিবেচনায় আছে। তবে এটাকে ‘স্পর্শকাতর ইস্যু’ আখ্যায়িত করে তিনি বলেন এর ফলে কর্তৃপক্ষ ‘সামাজিক সমালোচনা' শুরুর আশঙ্কাও করছে। সূত্র: এএফপি, ডয়চে ভেলে।



 

Show all comments
  • jack ali ৩১ অক্টোবর, ২০২১, ৯:৪১ পিএম says : 0
    ও আল্লাহ আমাদের প্রিয়নবী সাল্লাল্লাহু সালাম সৌদি আরবে শুয়ে আছেন আর এই শয়তান সৌদি আরব কে কাফের কান্ট্রি বানিয়ে ফেলেছে ও আল্লাহ আমাদেরকে ধ্বংস করো আবার সৌদি আরব মুসলিম কান্ট্রি হিসেবে পরিচালিত করো
    Total Reply(0) Reply
  • Nayeemul ৩১ অক্টোবর, ২০২১, ৭:০৫ পিএম says : 0
    সালমান কি মুসলিম নাকি ইহুদী? সালমানের মাথা গোবরে ভরা। একজন বুদ্ধিমান মুসলমান পবিত্র ভূমিতে এই ধরণের অর্জনের কথা ভাবেন না। খুব তাড়াতাড়ি পৃথিবী ধ্বংস হয়ে যাবে বলে মনে হচ্ছে
    Total Reply(0) Reply
  • মোহাম্মদ দলিলুর রহমান ৩১ অক্টোবর, ২০২১, ৭:০২ পিএম says : 0
    استاغفيرللا. আসতাগপিরুললা,نعجوبللا.নাওজুবিললাহ, মুসলিম দেশ গুলি শুনলে হয়তো মক্কা মদিনায় আর যেতে চাইবে না,যেখানে মক্কা আর মদিনা সেখানে এই সমস্ত আইনে পরিণত হলে আর ইসলামের কি থাকবে,আল্লা ভালো জানেন।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: সউদী আরব

২ জানুয়ারি, ২০২২

আরও
আরও পড়ুন