Inqilab Logo

বৃহস্পতিবার, ২৭ জানুয়ারী ২০২২, ১৩ মাঘ ১৪২৮, ২৩ জামাদিউস সানি ১৪৪৩ হিজরী

বরগুনায় মামার শালীকে বিয়ে করতে না পেরে মামাকে কুপিয়ে ভাগ্নের আত্মহত্যা

বরগুনা জেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ১ নভেম্বর, ২০২১, ৯:২০ এএম

বরগুনায় মামাকে কুপিয়ে চাচার বাড়ি তালতলীতে লুকাতে এসে রেইনট্রি গাছে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে মো. মাহফুজ (১৮) নামে এক কিশোর।

ঘটনাটি ঘটেছে রোববার (৩১ অক্টোবর) রাত ১০টায় তালতলী উপজেলার ছোটবগী ইউনিয়নের গাবতলী গ্রামে। মাহফুজ বরগুনা জেলার ৬নং বুড়িরচর ইউনিয়নের বড় লবণগোলা এলাকার নিজাম হাওলাদারের পুত্র।


বুড়িরচর ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ডের মেম্বার ফারুক হোসেন জানিয়েছেন, মামার শালীকে বিয়ে করতে না পেরে গত ২৬ অক্টোবর সন্ধ্যায় মাহফুজ তার আপন মামা ফজলু প্যাদাকে কুপিয়ে আহত করেছে। এরপর আত্মগোপনে থাকার জন্য গত ৪-৫ দিন পূর্বে তার বাবার মামাতো ভাই ছোটবগী ইউনিয়নের পশ্চিম গাবতলী এলাকার বাদশা হাওলাদারের বাড়িতে যায়। বিয়ে করতে না পারার লজ্জা ও মামাকে কোপানোর মামলায় ফেঁসে যাওয়ার চিন্তায় তার বাবার আরেক মামাতো ভাই মো. কাওসার হাওলাদারের বসতঘরের দক্ষিণ পাশে রেইনট্রি গাছের সঙ্গে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেন মাহফুজ।

বাদশা হাওলাদার তাকে গাছের সঙ্গে ঝুলন্ত অবস্থায় দেখে তালতলী থানা পুলিশকে খবর দেয়। পুলিশ ময়নাতদন্তের জন্য লাশ থানায় নিয়ে আসেন।

এ ব্যাপারে তালতলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. কামরুজ্জামান মিয়া জানান, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে লাশের সুরতহাল রিপোর্ট তৈরি করে। সোমবার সকালে ময়না তদন্তের জন্য লাশ মর্গে প্রেরণ করা হয়। এ ঘটনায় থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা দায়ের করা হয়েছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: আত্মহত্যা


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ