Inqilab Logo

শুক্রবার, ০১ জুলাই ২০২২, ১৭ আষাঢ় ১৪২৯, ০১ যিলহজ ১৪৪৩ হিজরী

সিলেটে ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনী যুদ্ধে ৮ প্রবাসী

সিলেট ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ২ নভেম্বর, ২০২১, ৬:৪৩ পিএম

জাতীয় নির্বাচনের মতো স্থানীয় নির্বাচনেও প্রবাসীদের অংশ গ্রহন চোখে পড়ার মতো সিলেটে। নির্বাচন মৌসুমে এলেই দেশে এসে শুরু করেন দৌড়ঝাঁপ। এবারও একই পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়েছেন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনকে ঘিরে। আগামী ১১ নভেম্বর দ্বিতীয় দফায় ইউপি নির্বাচনেও আটজন প্রবাসী প্রার্থী হয়েছেন চেয়ারম্যান পদে। তাদের মধ্যে আবার তিনজন মনোনয়নও পেয়েছেন আওয়ামী লীগের দলীয়। প্রবাসীদের নির্বাচনমুখী মানসিকতাকে ইতিবচাচক হিসেবে দেখছেন ভোটারর্ওা। এরমধ্যে দিয়ে দেশের সাথে একটি সেতু বন্ধন থাকবে প্রবাসীদের। প্রবাসে অর্জনকৃত অর্থ ্ও অভিজ্ঞতা দেশের মানুষের কল্যানে কাজে লাগানোর একটি সুযোগ তৈরী হবে বলে অনেকের অভিমত। সিলেটের প্রায় ২৫ লাখ মানুষ যুক্তরাজ্য, যুক্তরাষ্ট ্রসহ বাস করছেন বিভিন্ন দেশে। বিভিন্ন নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার আগে-পরে সিলেটের প্রায় সব এলাকায় মনোনয়ন প্রত্যাশী অনেক প্রবাসী নির্বাচনী মাঠে থাকেন। বিভিন্ন রাজনৈতিক দল থেকেও কেউ কেউ মনোনয়ন পান। আবার অনেকে স্বতন্ত্র প্রার্থীও হন। দ্বিতীয় দফায় সিলেট জেলার সদর, কোম্পানীগঞ্জ ও বালাগঞ্জ উপজেলার ১৫টি ইউপিতে নির্বাচন হবে। নির্বাচন কার্যালয় থেকে পাওয়া প্রার্থীদের তালিকা ঘেঁটে দেখা গেছে, সিলেটের ১৫টি ইউপিতে মোট ৭১ জন প্রার্থী রয়েছেন। তাদের মধ্যে সিলেট সদর উপজেলার জালালাবাদ ইউপিতে দুজন এবং মোগলগাঁও ইউপিতে একজন রয়েছেন প্রবাসী প্রার্থী। অন্যদিকে বালাগঞ্জ উপজেলার পশ্চিম গৌরীপুর ইউপিতে তিনজন, দেওয়ানবাজার ইউপিতে একজন এবং পূর্ব পৈলনপুর ইউপিতে প্রার্থী হয়েছেন একজন প্রবাসী। সিলেট সদর উপজেলার জালালাবাদ ইউপিতে চেয়ারম্যান পদে স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়েছেন জয়নাল আবেদীন ও সমছুল হক। জয়নাল ফ্রান্স প্রবাসী এবং সমছুল বাহরাইন প্রবাসী। সমছুল বাহরাইন বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশনের সহ-সভাপতিও।

এদিকে, সিলেট সদর উপজেলার মোগলগাঁও ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান মো. হিরন মিয়া যুক্তরাজ্য প্রবাসী। গত নির্বাচনে আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন পেয়ে চেয়ারম্যান হয়েছিলেন তিনি। এবারও দলের মনোনয়ন পেয়েছেন তিনি। হিরন মিয়া ১৯৮১ সাল থেকে প্রবাসী হয়েছেন। ২০০৮ সাল থেকে দেশে আছেন তিনি । মাঝে মাঝে প্রবাসে যাওয়া-আসা করেন। বালাগঞ্জ উপজেলার পশ্চিম গৌরীপুর ইউনিয়নে তিনজন প্রবাসী প্রার্থী হয়েছেন। তারা হলেন ইউপির বর্তমান চেয়ারম্যান ও যুক্তরাজ্য প্রবাসী মো. আমিরুল ইসলাম, যুক্তরাজ্য প্রবাসী মহিবুল রহমান এবং ইতালি প্রবাসী মো. আব্দুর রহমান। আমিরুল ইসলাম গতবারের মতো এবারও নৌকা প্রতীকে প্রার্থী হয়েছেন। উপজেলা আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ সম্পাদকের দায়িত্বেও আছেন তিনি। আমিরুল ইসলাম জানান, ১৯৮১ সালে যুক্তরাজ্য প্রবাসী হয়েছিলেন তিনি । তবে ২০০৩ সাল থেকে দেশে বাস করছেন। আব্দুর রহমান বলেন, ২০০৫ সালের পর থেকে ইতালিতে নিয়মিত যাওয়া-আসা করলেও বেশির ভাগ সময় কাটান দেশেই। বালাগঞ্জের দেওয়ানবাজার ইউপিতে আওয়ামী লীগের প্রার্থী হয়েছেন যুক্তরাজ্য প্রবাসী আওয়ামী লীগ নেতা ছহুল আব্দুল। বালাগঞ্জের উপজেলার পূর্ব পৈলনপুর ইউপিতে বিদ্রোহী প্রার্থী হয়েছেন বর্তমান চেয়ারম্যান মো. আব্দুল মতিন। গত নির্বাচনে তিনি আওয়ামী লীগের মনোনয়নে নৌকা প্রতীক নিয়ে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হলেও এবার মনোনয়ন পাননি। উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মতিন ১৯৯৮ সালে যুক্তরাজ্য প্রবাসী হয়েছিলেন। মতিন বলেন, যুক্তরাজ্য প্রবাসী হলেও কখনো যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়নি এলাকার মানুষের সঙ্গে। এ বিষয়ে সুশাসনের জন্য নাগরিকের (সুজন) সিলেট শাখার সভাপতি ফারুক মাহমুদ চৌধুরী বলেন, প্রবাসীরা নির্বাচনে অংশ নেন, এটা সিলেট অঞ্চলে নতুন কোনো বিষয় নয়। তবে তাদের এ অংশ গ্রহন ইতিবাচক।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ