Inqilab Logo

শুক্রবার, ২৮ জানুয়ারী ২০২২, ১৪ মাঘ ১৪২৮, ২৪ জামাদিউস সানি ১৪৪৩ হিজরী

অপ্রীতিকর কিছু ঘটানোর চেষ্টা করলে কঠোর ব্যবস্থা

ভার্চুয়াল সভায় সিইসি

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৬ নভেম্বর, ২০২১, ১২:০২ এএম

প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কেএম নূরুল হুদা বলেছেন, ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে নির্বাচনী কর্মকর্তাদের সাহসী ভূমিকা পালন করতে হবে। নির্বাচনী পরিবেশ ভালো না থাকলে সংশ্লিষ্ট এলাকার ভোট বন্ধ করা হবে। এছাড়া কোনও প্রার্থী আচরণবিধি লঙ্ঘন করলে তার প্রার্থিতা বাতিলের হুঁশিয়ারি দেন তিনি। গতকাল দুপুরে দ্বিতীয় ধাপে ইউপি নির্বাচন নিয়ে আইনশৃঙ্খলা পর্যালোচনা সভায় ভার্চুয়াল অংশ নিয়ে এসব কথা বলেন তিনি।

সিইসি বলেন, আচরণবিধি লঙ্ঘন করার কোনও অভিযোগ আসলে সাথে সাথে ব্যবস্থা নেই। বিলম্ব করি না। কোথাও অসুবিধা হলে সমস্যাগুলো আমাদের কাছে আসতে হবে। রিটার্নিং কর্মকর্তা যদি মনে করেন যে, সেই এলাকার নির্বাচনী পরিবেশ ভালো না। তাহলে সেখানকার নির্বাচন বন্ধ করে দেবো। কোনও প্রার্থীর আচরণবিধি ভঙ্গের কারণে নির্বাচন চ্যালেঞ্জিং হয় তাহলে তদন্ত করে সত্যতা পেলে প্রার্থিতা বাতিল করার ক্ষমতা আমাদের আছে। সিইসি আরো বলেন, জেলা প্রশাসকরা পাশে থেকে সাহস যোগাবেন। অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটিয়ে কেউ যাতে পাড় পেয়ে যেতে না পারে সে জন্য ব্যবস্থা নিতে উৎসাহ দিতে হবে। কোনও অপ্রীতিকর কিছু ঘটানোর চেষ্টা করলে তারা আইনের আওতায় আসবে এবং এজন্য কঠোর শাস্তির ব্যবস্থা থাকবে।

মাঠ প্রশাসনের উদ্দেশে তিনি বলেন, আপনাদের কাছ থেকে কোনও অভিযোগ আসলে আমরা তা ফাইলবন্দি করে রাখি না। সাথে সাখে ব্যবস্থা নিয়ে থাকি। নির্বাচন অত্যন্ত প্রতিযোগিতামূলক হবে। আমি আশ্বস্ত হয়েছি যে, নির্বাচনী পরিস্থিতি সারাদেশেই ভালো হয়েছে। আটটি বিভাগের মধ্যে ঢাকা আর খুলনায় উত্তেজনা রয়েছে। খুলনা নিয়ন্ত্রণে এসে গেছে। ঢাকার ব্যাপারে সচেতন থাকবো। আপনাদের মধ্যে সমন্বয় রয়েছে। এটাই সুষ্ঠু নির্বাচন করার জন্য যথেষ্ট। আশা করি, নির্বাচন সুষ্ঠু হবে। কোনও কর্মকর্তা যদি পক্ষপাতমূলক আচরণ করেন, মাঠপর্যায়ের কর্মকর্তা যারা নির্বাচনের দায়িত্বে থাকেন তাদের কোনও দল, মত, ব্যক্তি বিশেষের প্রতি আগ্রহ থাকতে পারে না। নিরপেক্ষ দৃষ্টিভঙ্গিতে ভোটাররা ভোট দিয়ে চলে যাবেন, এই রকম একটি পরিবেশ সৃষ্টি করবেন। ইসি সচিব মো. হুমায়ুন কবীর খোন্দকারের সভাপতিত্বে এবং অতিরিক্ত সচিব অশোক কুমার দেবনাথের পরিচালনায় ভার্চুয়াল সভায় নির্বাচন কমিশনার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল শাহাদাত হোসেন চৌধুরী (অব.), সংশ্লিষ্ট নির্বাচনী এলাকার বিভাগীয় কমিশনার, উপ-মহাপুলিশ পরিদর্শক, পুলিশ কমিশনার ও আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তারা সংযুক্ত ছিলেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: সিইসি

৩ নভেম্বর, ২০২১

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ