Inqilab Logo

শুক্রবার, ২১ জানুয়ারী ২০২২, ০৭ মাঘ ১৪২৮, ১৭ জামাদিউস সানি ১৪৪৩ হিজরী

১০৬ বছর পর তুরস্কের আমানত ফেরত দিলো ফিলিস্তিনি পরিবার

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৫ নভেম্বর, ২০২১, ৭:৩৩ পিএম

১৯১৪ সালের ২৮ জুলাই শুরু হওয়া প্রথম বিশ্বযুদ্ধের সময় উসমানিয়া সামরিক বাহিনীর এক সৈন্যের আমানত রাখা অর্থ তুরস্কের কাছে ফেরত দিয়েছে ফিলিস্তিনি এক পরিবার।
গতকাল বৃহস্পতিবার (৪ নভেম্বর) অধিকৃত ফিলিস্তিনি ভূখণ্ড পশ্চিম তীরের নাবলুস শহরে এক অনুষ্ঠানে ফিলিস্তিনি আল-আলউল পরিবার তুর্কি কনস্যুল জেনারেল আহমদ রিজা দেমিরের হাতে এই অর্থ ফেরত দেয়।
ওই পরিবারের সূত্রে জানা যায়, যুদ্ধ চলাকালীন সময়ে ওই সৈন্য তাদের কাছে এই অর্থ নিরাপদে রাখার জন্য দিয়ে বলেছিলেন, 'যদি আমরা জয়ী হয়ে ফিরতে পারি, তখন আমি তা ফেরত নেবো।'
কিন্তু প্রথম বিশ্বযুদ্ধে উসমানিয়াদের হারিয়ে ব্রিটেন ফিলিস্তিন দখল করার ফলে ওই সৈন্য আর ফেরত আসেননি।
কনস্যুল জেনারেল আল-আলাউল পরিবারের কাছে তার কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে জানান, ফিলিস্তিনি ও তুর্কি জনগণের মধ্যে সাদৃশ্য বিপুল।
অনুষ্ঠানে তিনি বলেন, 'এক শ' বছর আগে আমাদের শাসনগত বিচ্ছেদ হলেও আমাদের হৃদয় সর্বদাই একত্রে ছিলো।'
আল-আলাউল পরিবারের বর্তমান প্রধান রাগিব আল-আলউল বলেন, এই অর্থ তার চাচা ওমর আল-আলাউলের কাছে গচ্ছিত রাখা হয়েছিলো।
তিনি বলেন, 'তিনি (উসমানিয়া সৈন্য) আমার চাচার কাছে তা গচ্ছিত রেখেছিলেন এবং আজ পর্যন্ত তা আমাদের কাছেই গচ্ছিত ছিলো। আমরা জানি না যে ওই তুর্কি সৈন্য কি যুদ্ধে নিহত হয়েছেন বা পরে মারা গেছেন। আমার চাচাও ওই সৈন্যের নাম ভুলে গিয়েছিলেন, তাই আমরা তার নাম জানি না।'
রাগিব আল-আলাউল জানান, ওই সৈন্য ১৫২ উসমানিয়া লিরা আমানত রেখেছিলেন। ঐতিহাসিকদের বিবেচনায় তা বর্তমানে ৩০ হাজার ডলার (২৫ লাখ ৭৩ হাজার সাত শ' ২৫ টাকা) সমপরিমাণ।
১৯১৭ সালে প্রথম বিশ্বযুদ্ধে ব্রিটেনের কাছে ফিলিস্তিন হারানোর আগে চার শ' বছর উসমানিয়া সুলতানাত ভূখণ্ডটি শাসন করে। সূত্র : টিআরটি ওয়ার্ল্ড



 

Show all comments
  • jack ali ৫ নভেম্বর, ২০২১, ৯:১৩ পিএম says : 0
    ও আল্লাহ ফিলিস্তিনকে আমাদের কাছে আবার ফিরিয়ে দাও আর কাফের ইহুদিদেরকে ফিলিস্তিনের জন্মভূমি থেকে বের করে দাও ওরা হচ্ছে ফেতনাবাজ
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: তুরস্ক


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ