Inqilab Logo

শুক্রবার, ২৮ জানুয়ারী ২০২২, ১৪ মাঘ ১৪২৮, ২৪ জামাদিউস সানি ১৪৪৩ হিজরী

মুখ লুকিয়ে ফেরা...

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৬ নভেম্বর, ২০২১, ১২:০০ এএম

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে অংশ নিতে গত ৩ অক্টোবর দেশ ছেড়েছিল বাংলাদেশ দল। টাইগারদের ফ্লাইট নিয়ে সে সময় বেশ নাটক হয়েছিল। নাটকীয়তার মধ্য দিয়ে বিশ্বকাপ মিশনে গেলেও বিশ্বমঞ্চে নাটক জমাতে পারেনি লাল-সবুজের প্রতিনিধিরা। ব্যর্থতার ষোলকলা পূর্ণ করে দেশে ফিরেছে টিম টাইগার্স।
স্কটল্যান্ডের কাছে হেরে বাংলাদেশ দলের বিশ্বকাপ মিশন শুরু। এরপর ওমান আর পাপুয়া নিউগিনিকে হারিয়ে কোনোরকমে প্রথম পর্ব পার করে। তবে সুপার টুয়েলভে গিয়ে আবার ছন্নছাড়া টাইগাররা। এই পর্বে তারা খুলতেই পারেনি জয়ের খাতা। টানা ৫ ম্যাচে হেরে রীতিমতো বিধ্বস্ত হয় দল।
বিশ্বকাপ শেষ করে প্রথম দল হিসেবে গতকাল দেশে ফিরেছেন শরিফুল ইসলাম-নাইম শেখরা। বিকেল ৫টার দিকে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে নামে ক্রিকেটারদের বহনকারী বিমান। যদিও দুই ধাপে দেশে ফিরবেন ক্রিকেটাররা। শুরুতে দেশে এসেছেন শরিফুল ইসলাম, নাইম শেখ, নাসুম আহমেদ, মুস্তাফিজুর রহমান, রুবেল হোসেন, আফিফ হোসেন ও শামীম পাটোয়ারী। বিসিবি চিকিৎসক ও মিডিয়া ম্যানেজারও আছেন একই ফ্লাইটে।
অন্য আরেক ফ্লাইটে গতকাল রাতেই দেশে ফেরার কথা সৌম্য সরকার নুরুল হাসান সোহান ও শেখ মেহেদী হাসেনের। দুই ভাগে দল দেশে ফিরলেও আমিরাতে থেকে যাচ্ছেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, মুশফিকুর রহিম, লিটন দাস ও তাসকিন আহমেদ। মূলত পরিবারের সঙ্গে সময় কাটাতেই ছুটি নিয়েছেন এ চার ক্রিকেটার। যদিও বিশ্বকাপ অভিযান শেষ হলেও খুব বেশি দিন বিশ্রামে থাকার সুযোগ পাবেন না বাকি ক্রিকেটাররা। ১২ নভেম্বর থেকে অনুশীলনে যোগ দেওয়ার কথা বাংলাদেশ দলের। এই মুহ‚র্তে না ফেরা বাকি চার ক্রিকেটারও তখন অনুশীলনে যোগ দেবেন।
মাহমুদউল্লাহ-মুশফিকের মতো দলের সঙ্গে ফেরা হচ্ছে না কোচিং স্টাফদেরও। সপ্তাহ খানেকের ছুটি কাটিয়ে পাকিস্তান সিরিজ সামনে ১১ নভেম্বর দেশে ফেরার কথা রয়েছে তাদের।
ঘরের মাঠে বাংলাদেশ চলতি মাসেই খেলবে পাকিস্তানের বিপক্ষে। ১৯ নভেম্বর মিরপুর শেরে বাংলা ক্রিকেট স্টেডিয়ামে শুরু হবে প্রথম টি-টোয়েন্টি। ২০ তারিখ দ্বিতীয় ও ২২ তারিখ শেষ ম্যাচ। এরপর দুই দল খেলবে দুই টেস্টের সিরিজ।
এবার টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে প্রথম রাউন্ডে ওমান ও পাপুয়া নিউগিনির সঙ্গে পাওয়া দুই জয়ই বাংলাদেশের অর্জন। প্রথম রাউন্ডে স্কটল্যান্ড ও সুপার টুয়েলভে পাঁচ ম্যাচের সবগুলোই হারে মাহমুদউল্লাহর দল। দক্ষিণ আফ্রিকা ও অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে শেষ দুই ম্যাচে ৮৪ ও ৭৩ রানে গুটিয়ে চরম বিব্রতকর পরিস্থিতিতে পড়ে বাংলাদেশ দল।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: টি২০ বাংলাদেশ

৬ নভেম্বর, ২০২১

আরও
আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ