Inqilab Logo

ঢাকা মঙ্গলবার, ২৬ জানুয়ারি ২০২১, ১২ মাঘ ১৪২৭, ১২ জামাদিউস সানী ১৪৪২ হিজরী

হলে সিট বাতিলের হুমকি জাবিতে চাঁদা না পেয়ে শিক্ষার্থীকে ছাত্রলীগ কর্মীদের মারধর

প্রকাশের সময় : ১২ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬, ১২:০০ এএম

জাবি সংবাদদাতা : জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের এক শিক্ষার্থীর কাছে চাঁদা দাবির পর তা দিতে না পারায় ওই শিক্ষার্থীকে মারধর করার অভিযোগ উঠেছে বিশ্ববিদ্যালয়ের আ ফ ম কামালউদ্দিন হলের তিন ছাত্রলীগ কর্মীর বিরুদ্ধে। অভিযুক্ত ছাত্রলীগকর্মীরা হলো ইতিহাস বিভাগের ইমরান হোসেন বিপ্লব, আইন ও বিচার বিভাগের নুসরাত সিদ্দিকী তনিম ও পরিবেশ বিজ্ঞান বিভাগের শিহাব। অভিযুক্ত এবং ভুক্তভোগী শিক্ষার্থীরা সবাই বিশ্ববিদ্যালয়ের দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী। মারধরের শিকার মার্কেটিং বিভাগের শিক্ষার্থী শামসুল ইসলাম নাঈম জানান, ‘টাকা না দিলে হলের সিট বাদ হয়ে যাবে বলে ইমরান আমার কাছে ৫০০ টাকা চাঁদা দাবি করে। আমি টাকা ম্যানেজ করার জন্য আমার বন্ধুদের কাছে টাকা ধার চাই। কারো কাছে টাকা না পাওয়ায় ইমরানকে আমি দুইশ টাকা দিতে পারব বলি। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে ইমরান আমাকে পাঁচ মিনিটের মধ্যে টাকা না দিলে মেরে হল থেকে বের করে দিবে বলে। পরে ইমরানসহ তনিম, শিহাব আমাকে শার্টের কলার ধরে ভাসানী হলের পুকুর পাড়ে নিয়ে যায়। সেখানে তারা পাঁচশ টাকা চাইছি দিসনি এখন পাঁচ হাজার টাকা দিবি, না দিলে আজীবনের জন্য হলের সিট বাতিল হয়ে যাবে বলে ধমকাধমকি করে। এ সময় ইমরান আমাকে কিল-ঘুষি মারে।’ গত ৮ তারিখ শুক্রবার এ ঘটনা ঘটেছে বলে জানিয়েছেন নাঈম। এ ব্যাপারে জানতে চাইলে অভিযুক্ত ইমরান বলেন, ‘এটা তো বন্ধুদের ব্যাপার। আর এ ধরনের কোনো ঘটনা ঘটেনি।’



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: হলে সিট বাতিলের হুমকি জাবিতে চাঁদা না পেয়ে শিক্ষার্থীকে ছাত্রলীগ কর্মীদের মারধর
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ