Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার, ০৩ আগস্ট ২০২০, ১৯ শ্রাবণ ১৪২৭, ১২ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী

দায়িত্ব পালনে হাইকোর্টের নিষেধাজ্ঞা

প্রকাশের সময় : ১৯ অক্টোবর, ২০১৬, ১২:০০ এএম

মাদারীপুর জেলা সংবাদদাতা

মাদারীপুরের রাজৈর উপজেলার কদমবাড়ি ইউপি চেয়ারম্যান বিধান বিশ^াসের দায়িত্ব পালনের ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করেছেন হাইকোর্ট। কদমবাড়ি ইউনিয়নের ভোটারদের আবেদনের প্রেক্ষিতে গত রোববার বিচারপতি নাঈমা হালদার ও বিচারপতি সেলিমের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন। একই সাথে ঢাকার মূখ্য মহানগর আদালতের বিচারাধীন মানবপাচার মামলার পলাতক আসামি বিধান বিশ^াসকে চেয়ারম্যান পদ থেকে কেন অপসারণ করা হবে না তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেছেন আদালত। স্থানীয় সরকার সচিব, মাদারীপুর জেলা প্রশাসক, রাজৈর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এবং ইউপি চেয়ারম্যান বিধান বিশ^াসকে রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে। আদালতে আবেদনের পক্ষে শুনানি করেন অ্যাড. ইউসুফ হোসেন হুমায়ন, শ.ম রেজাউল করিম, এবিএম সিদ্দিকুর রহমান খান এবং জিয়াউর রহমান খান। বিধান বিশ^াসের পদে থাকার বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে গত সপ্তাহে ঐ ইউনিয়নের কিছুসংখ্যক ভোটার এবং সাবেক চেয়ারম্যান দিনেশ চন্দ্র বিশ^াস হাইকোর্টে রিট দায়ের করেন। রিটের শুনানিতে আইনজীবীরা বলেন, ‘২০১৪ সালের ২২ মে ঢাকার মূখ্য মহানগর আদালত বিধান বিশ^াসকে মানব পাচার মামলায় পলাতক ঘোষণা করেন। ২০ অক্টেবর মামলার দিন ধার্য রয়েছে। বিধান বিশ^াস তার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা থাকায় আত্মগোপন করেন। অবৈধভাবে ইউপি নির্বাচনে অংশ গ্রহণ করেন এবং নির্বাচিত হন। তাই বিধান বিশ^াস ঐ পদে থাকতে পারেন না।’ শুনানি শেষে আদালত বিধান বিশ^াসকে ইউপি চেয়ারম্যান হিসাবে দায়িত্ব পালনে নিষেধাজ্ঞা জারি করেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: দায়িত্ব পালনে হাইকোর্টের নিষেধাজ্ঞা
আরও পড়ুন