Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১১ আশ্বিন ১৪২৫, ১৫ মুহাররাম ১৪৪০ হিজরী‌

দ্রুত কমিটি ঘোষণার দাবি তৃণমূলের

প্রকাশের সময় : ১৯ অক্টোবর, ২০১৬, ১২:০০ এএম

ফরিদপুর জেলা সংবাদদাতা

ফরিদপুর জেলা বিএনপির কমিটি গঠন করে দ্রুত বাস্তবায়নের দাবি জানান ফরিদপুর জেলার ৯টি উপজেলার তৃণমূল নেতাকর্মীরা। দীর্ঘদিন ধরে ফরিদপুর জেলা কমিটি এ পর্যন্ত জোড়ালো কোনো আন্দোলন করতে পারে নাই। বৃহত্তর ফরিদপুরের বিএনপির দায়িত্বপ্রাপ্ত নেত্রী শামা ওবায়েদের মাধ্যমে পরিপূর্ণ একটি জেলা কমিটি গঠন চাই। যে কমিটিতে থাকবে ৯০ সনের এরশাদ বিরোধী গণআন্দোলনের এক ঝাঁক সাবেক ছাত্র-নেতারা। এরশাদ বিরোধী আন্দোলনের অন্যতম সাবেক ছাত্রনেতারা হচ্ছেন দেলোয়ার হোসেন দিলা, আফজাল হোসেন খান পলাশ, হামিদুল হক ঝন্টু, সৈয়দ জুলফিকার হোসেন জুয়েল, আলী আশরাফ নান্নু, জসীম উদ্দিন মৃধা, একে কিবরীয়া স্বপনসহ একঝাঁক সাবেক তুখোর ছাত্রনেতারা। আর এদেরকে প্রত্যক্ষভাবে সহযোগিতা করবেন কেন্দ্রীয় যুবদল নেতা মাহবুবুল হাসান পিংকু ও বিএনপির আরেক প্রভাবশালী নেতা রাশিদুল হাসান লিটন। একাধিক সিনিয়র নেতাকর্মীরা দলের চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়াকে ধন্যবাদ জানান যে, দলের দুঃসময়ে এমন এক নেত্রীকে ফরিদপুরের বিভাগীয় সাংগঠনিক হালধরার দায়িত্ব দিয়েছেন তিনি বর্ষিয়ান নেতা কেএম ওবায়দুর রহমানের কন্যা ও তার আদর্শের সৈনিক শামা ওবায়েদকে। তারা আরো বলেন, একমাত্র শামা ওবায়েদই পারেন ফরিদপুর জেলা বিএনপির একটি সুষ্ঠু গণতান্ত্রিক কমিটি তৈরী করতে। তার প্রতি আমাদের জোড়ালো দাবি থাকবে ৯০ গণআন্দোলনের সাবেক ছাত্রনেতাদের নিয়েই দ্রুত কমিটি করে জিয়াউর রহমানের আদর্শ বাস্তবায়ন করবেন। নাম প্রকাশ না করার শর্তে একাধিক নেতারা জানান, দীর্ঘ কয়েকবছর ধরে বিএনপির সাংগঠনিক কোনো কর্মকা- নেই। সকলেই এখন সাংগঠনিক ও রাজপথের রাজনীতি বাদ দিয়ে ফেসবুকে রাজনীতি শুরু করেছেন। কেন্দ্রীয় নেতাদের নিকট ফেসবুক পেস্ট করে ফায়দা লুটার চেষ্টা করছেন। আগামীতে যেন এ ধরনের নেতারা কোনো কর্মকা- করতে না পারেন সেদিকে সজাগ থাকার আহ্বান জানান।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।