Inqilab Logo

রোববার, ১৪ আগস্ট ২০২২, ৩০ শ্রাবণ ১৪২৯, ১৫ মুহাররম ১৪৪৪

তুরস্কে বেলারুশগামী ৩ দেশের নাগরিকদের প্লেনে ওঠা নিষিদ্ধ

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১২ নভেম্বর, ২০২১, ৬:৩১ পিএম

অভিবাসনপ্রত্যাশীদের ঠেকাতে সীমান্তে ব্যাপক পুলিশ মোতায়েন করেছে পোল্যান্ড। এরই মধ্যে আজ শুক্রবার (১২ নভেম্বর) তুরস্কের সিভিল এভিয়েশন জেনারেল ডিরেক্টরেট (এসএইচজিএম) জানিয়েছে, তারা সিরিয়া, ইয়েমেন ও ইরাকি নাগরিকদের নিয়ে আর বেলারুশে যাবে না। আরব নিউজের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়।
বেলারুশ বিশ্বের যুদ্ধ বিধ্বস্ত এলাকাগুলো থেকে পালিয়ে আসা হাজার হাজার অভিবাসনপ্রত্যাশীকে পোল্যান্ড সীমান্ত অতিক্রমে উৎসাহিত করছে বলে দাবি করেছে ইউরোপিয়ান ইউনিয়ন। তাই বেলারুশ ও তাদের উড়োজাহাজ সংস্থাগুলোর ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপের কথা বলছে ইইউ।
তাছাড়া অভিযোগ আনা হয় তুরস্ক ও তাদের তার্কিশ এয়ার লাইনস এ অভিবাসন সংকটে ভূমিকার রাখছে। কিন্তু সে অভিযোগ অস্বীকার করেছে আঙ্কারা কর্তৃপক্ষ।
তুরস্কের এসএইচজিএম এক টুইটার বার্তায় জানায়, বেলারুশ ও পোল্যান্ড সীমান্তে অভিবাসন সংকট মারাত্মক আকার ধারণ করেছে। তাই ইরাক, সিরিয়া ও ইয়েমেনের নাগরিকদের নিয়ে বেলারুশে কোনো প্লেন যাবে না। এ তিনটি দেশের নাগরিকদের কাছে টিকিট বিক্রি বন্ধ করেছে তারা।
এর আগে পোল্যান্ড-বেলারুশ সীমান্তে শত শত অভিবাসনপ্রত্যাশী অবস্থান নেয়। অভিবাসনপ্রত্যাশীদের প্রবেশ ঠেকাতে সেখানে কয়েক হাজার পুলিশ মোতায়েন করে পোল্যান্ড সরকার। সীমান্তে এমন জটিল পরিস্থিতির জন্য রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভøাদিমির পুতিনকে দায়ী করেন পোল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী মারেউতস মোরাউইকি।
পোল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী অভিযোগ করেন, বেলারুশ কর্তৃপক্ষের সঙ্গে রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভøাদিমির পুতিনের ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক রয়েছে। বেলারুশ সীমান্তের দিকে অভিবাসনপ্রত্যাশীদের ঠেলে দেওয়ার অভিযোগ করে তিনি বলেন, এ সংকটের মাস্টারমাইন্ড মস্কো। সূত্র : আরব নিউজ



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: তুরস্ক


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ