Inqilab Logo

শুক্রবার, ২০ মে ২০২২, ০৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ১৮ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

নির্দোষ ব্যক্তি ২৬ বছর ধরে জেলে

যুক্তরাষ্ট্রের বিচার ব্যবস্থা নিয়ে প্রশ্ন

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৪ নভেম্বর, ২০২১, ১২:০১ এএম

যুক্তরাষ্ট্রের নর্থ ক্যারোলিনার একজন ব্যক্তিকে ভুলভাবে হত্যার দায়ে দোষী সাব্যস্ত করে ২৬ বছর ধরে জেলে বন্দী করে রাখা হয়েছিল। ২০১৯ সালে জেল থেকে ছাড়া পাওয়ার দুই বছর পর অবশেষে তাকে পূর্ণ দায়মুক্তি দেয়া হয়েছে শুক্রবার।

১৯৯৪ সালে গ্রেফতার হওয়ার পর থেকে ডনটে শার্পে নিজেকে নির্দোষ প্রমাণ করার জন্য লড়াই করে আসছিলেন। অবশেষে ২০১৯ সালের আগস্টে তিনি কারাগার থেকে মুক্তি পান। আর নর্থ ক্যারোলিনার গভর্নর গত শুক্রবার তাকে পুরোপুরি নির্দোষ ঘোষণা করেন। শুক্রবার সাংবাদিকদের তিনি বলেন, ‘আমার পরিবারের নাম কালিমামুক্ত হয়েছে। আমার এবং আমার পরিবারের কাঁধ থেকে একটি বোঝা নেমে গেল’।
গভর্নর রয় কুপার ক্ষমা ঘোষণা করে এক বিবৃতিতে বলেছেন যে, তিনি এই মামলাটি যত্ন সহকারে পর্যালোচনা করেছেন এবং শার্পের মতো যারা ভুলভাবে দোষী সাব্যস্ত হয়েছেন তারা যে অবিচারের শিকার হয়েছেন তারা তার প্রকাশ্য স্বীকৃতি পাওয়ার যোগ্য। সম্পূর্ণ দায়মুক্তির সঙ্গে শার্পে এবার রাষ্ট্রের কাছ থেকে ক্ষতিপূরণের জন্য আবেদন করতে পারবেন।

শার্পে বলেন, ‘আমার স্বাধীনতা ততক্ষণ সম্পূর্ণ হবে না, যতক্ষণ কারাগারে অন্যায়ভাবে, ভুলভাবে দোষী সাব্যস্ত হওয়া এবং ক্ষমার অপেক্ষায় থাকা লোকেরা থাকবে’। শার্পে এখন ফরওয়ার্ড জাস্টিস নামের একটি সংগঠনের সদস্য। সংগঠনটি নর্থ ক্যারোলিনার ফৌজদারি বিচার ব্যবস্থা সংস্কারের জন্য লড়াই করছে।
জর্জ রেডক্লিফ নামে এক ব্যক্তিকে হত্যার অভিযোগে ১৯৯৫ সালে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেয়া হয় মন্টোয়ে ডনটে শার্পে’কে। ১৯৯৪ সালের ১১ ফেব্রুয়ারি পিকআপে গুলিবিদ্ধ হয়ে নিহত হয়েছেন জর্জ।

বিচারের সময় সাক্ষী কারলেনে জনসনের বয়স ছিল ১৫ বছর। তিনি চিহ্নিত করেন, মন্টোয়ে ডনটে শার্পে’কে ঘটনাস্থলে দেখেছেন তিনি। কিন্তু কয়েক মাস পরই নিজের সাক্ষ্য বদল করেন ওই নারী। তবে আদালতে সুষ্ঠু বিচার পেতে এতো দীর্ঘ সময় ধরে অপেক্ষা করতে হয় মন্টোয়ে ডনটে শার্পেকে। নর্থ ক্যারোলিনার বিচারক দুইদিন শুনানির পরই শার্পেকে নির্দোষ ঘোষণা করেন। তার পরেও কারাগার থেকে ছাড়া পেতে এত বছর সময় লেগে গেল তার।

শার্পে বলেছেন, ছাড়া পাওয়ার পর এবার তার আসল কাজ শুরু হয়েছে। তিনি যুক্তরাষ্ট্রের ফৌজদারি বিচার ব্যবস্থার সংস্কারের জন্য লড়াই করবেন। যাতে এভাবে আর কাউকে বিনা দোষে জেল খাটতে না হয়। ১৯৮৯ সাল থেকে এ পর্যন্ত যুক্তরাষ্ট্রে এমন আরও ২৮৮৭ জনেরও বেশি লোক নির্দোষ প্রমাণিত হয়েছেন, যাদেরকে প্রায় স্মমিলিতভাবে ২৫ হাজার বছর বিনাদোষে কারাগারে থাকতে হয়েছে।
শার্পের আইনজীবী ক্যাটলিন সোয়াইন বলেন, শার্পের যুদ্ধ প্রমাণ করে যে নর্থ ক্যারোলিনা এবং এ দেশে ন্যায়বিচার করার আরো ভাল উপায় থাকতে হবে।

শার্পেকে নির্দোষ প্রমাণ করার জন্য শেষ পর্যন্ত কয়েক দশকের লড়াই এবং নিবেদিত আইনজীবী, যাজক, সমর্থক এবং পরিবারের সদস্যদের একটি বিশাল বাহিনী লেগেছিল।
ক্যাটলিন সোয়াইন বলেন, শার্পে আমাকে বলেছেন যে, তার এই স্বাধীনতাকে অর্থপূর্ণ করার জন্য তিনি এবার আরো যারা বিনাদোষে জেলে রয়ে গেছেন তাদের মুক্ত করার জন্য লড়াই করবেন। শার্পে বলেছেন, ‘আমাদের সিস্টেম দুর্নীতিগ্রস্ত এবং এটি পরিবর্তন করা দরকার’। সূত্র : বিবিসি নিউজ।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: যুক্তরাষ্ট্রের


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ