Inqilab Logo

বৃহস্পতিবার, ২০ জানুয়ারী ২০২২, ০৬ মাঘ ১৪২৮, ১৬ জামাদিউস সানি ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

দুবাই দুঃখ ভুলে ঢাকায় পাকিস্তান

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৪ নভেম্বর, ২০২১, ১২:০১ এএম

প্রত্যাশা পূরণের পথে থাকলে আজ তাদের ব্যস্ত থাকার কথা ছিল দুবাইয়ে বিশ্বকাপ ফাইনালের প্রস্তুতি নিয়ে। কিন্তু সেমি-ফাইনালে বদলে গেছে গতিপথ। বিশ্বকাপ থেকে ছিটকে পড়ে ফাইনালের আগের দিন পাকিস্তান দল চলে এলো ঢাকায়। দুবাই দুঃখ ভুলে এবার তাদের অভিযান বাংলাদেশের বিপক্ষে সিরিজ। মরূর দেশ থেকে গতকাল সকাল ৮টার দিকে ঢাকায় পা রাখে পাকিস্তান দল। তবে দলের সঙ্গে আসেননি অধিনায়ক বাবর আজম ও অভিজ্ঞ শোয়েব মালিক। তারা ঢাকায় আসতে পারেন মঙ্গলবার। ক্রিকেটার-সাপোর্ট স্টাফ মিলিয়ে ২৭ জনের বহর বিমানবন্দর থেকে পৌঁছে গেছে হোটেলে। সেখানে কোভিড পরীক্ষা শেষে গতকালের দিনটিই শুধু কোয়ারেন্টিনে থাকতে হয়েছে তাদের। সবাই নেগেটিভ হলে আজ থেকেই শুরু করতে পারবেন অনুশীলন।

বিশ্বকাপে এবার শুরু থেকেই দারুণ আলোচিত দল ছিল পাকিস্তান। ভারতকে ১০ উইকেট উড়িয়ে শুরু হয় তাদের সাড়া জাগানো পথচলা। ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি মিলিয়ে বিশ্বকাপে ১৩ বারের চেষ্টায় চিরপ্রতিদ্বন্দ্বিদের প্রথমবার হারাতে পারে তারা। সেই থেকে টানা পাঁচ জয়ে আসরের একমাত্র অপরাজিত দল হিসেবে ওঠে তারা সেমি-ফাইনালে। শেষ চারের নাটকীয় লড়াইয়ে অস্ট্রেলিয়ার কাছে তারা হেরে যায় মার্কাস স্টয়নিস ও ম্যাথু ওয়েডের শেষের ঝড়ে।
বিশ্বকাপের সেই প্রায় পুরো দলটাকেই বাংলাদেশ সফরে রেখেছে পাকিস্তান। বিশ্বকাপ দলের চার রিজার্ভ ক্রিকেটারও আছেন এই সফরে। কেবল অভিজ্ঞ অলরাউন্ডার মোহাম্মদ হাফিজ এই সিরিজ থেকে বিরতি নিয়েছেন স্বেচ্ছায়। বিশ্বকাপ দলের বাইরে থেকে যুক্ত করা হয়েছে অলরাউন্ডার ইফতিখার আহমেদকে। টি-টোয়েন্টি সিরিজের দল ঘোষণা করা হলেও টেস্টের স্কোয়াড দেওয়া হবে পরে। টি-টোয়েন্টি সিরিজ শেষে কয়েকজন ক্রিকেটার ফিরে যাবেন নিজ দেশে। সেখানে যোগ দেবেন টেস্ট বিশেষজ্ঞ কয়েকজন।
১৯ নভেম্বর মিরপুর শেরে বাংলা ক্রিকেট স্টেডিয়ামে শুরু হবে দু’দলের প্রথম টি-টোয়েন্টি। একই ভেন্যুতে ২০ ও ২২ নভেম্বর হবে বাকি দুটি ম্যাচ। চট্টগ্রাম জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে ২৬ নভেম্বর শুরু প্রথম টেস্ট। ৪ ডিসেম্বর মিরপুরে ফিরে হবে দ্বিতীয় টেস্ট। টেস্ট সিরিজটি বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের অংশ। দ্বিপাক্ষিক সিরিজ খেলতে পাকিস্তান সবশেষ ঢাকায় আসে ২০১৫ সালে। সেবার দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজে পাকিস্তান জয় পায় ১-০ ব্যবধানে। ওয়ানডে সিরিজটি বাংলাদেশ জিতে নেয় ৩-০ ব্যবধানে।
পাকিস্তান টি-টোয়েন্টি দল : বাবর আজম (অধিনায়ক), শাদাব খান (সহ-অধিনায়ক), আসিফ আলি, ফখর জামান, হায়দার আলি, হারিফ রউফ, হাসান আলি, ইফতিখার আহমেদ, ইমাদ ওয়াসিম, খুশদিল শাহ, মোহাম্মদ নওয়াজ, মোহাম্মদ রিজওয়ান (উইকেটরক্ষক), মোহাম্মদ ওয়াসিম জুনিয়র, সরফরাজ আহমেদ, শাহিন শাহ আফ্রিদি, শাহনাওয়াজ দাহানি, শোয়েব মালিক, উসমান কাদির।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: "টি২০ কাপ"

১৪ নভেম্বর, ২০২১
১৪ নভেম্বর, ২০২১
১৩ নভেম্বর, ২০২১
১৩ নভেম্বর, ২০২১

আরও
আরও পড়ুন