Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৯ আশ্বিন ১৪২৫, ১৩ মুহাররাম ১৪৪০ হিজরী‌

তেজগাঁও থেকে জেএমবির সন্দেহভাজন ৭ সদস্য গ্রেফতার

প্রকাশের সময় : ১৯ অক্টোবর, ২০১৬, ১২:০০ এএম

ডাকাতির মালামাল উদ্ধার : ৬ দিনের রিমান্ডে
স্টাফ রিপোর্টার : রাজধানীর তেজগাঁও থানা এলাকার একটি বাসা থেকে সন্দেহভাজন জামাআতুল মুজাহিদীন বাংলাদেশ-এর (জেএমবি) সন্দেহভাজন সাত সদস্যকে গ্রেফতার করা হয়েছে। সংগঠনের জন্য অর্থ সংগ্রহে তারা ডাকাতি করতো।
তাদের কাছ থেকে ডাকাতির মালামাল উদ্ধার করা হয়েছে। তাদেরকে ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ৬ দিনের পুলিশি রিমান্ডে নেয়া হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) মিডিয়া সেন্টারে এক সংবাদ সম্মেলনে ডিএমপির কাউন্টার টেররিজম ইউনিটের প্রধান মনিরুল ইসলাম বলেন, সোমবার রাতে তেজগাঁও এলাকার একটি বাসায় অভিযান চালিয়ে ওই সন্দেহভাজন ৭ জঙ্গিকে গ্রেফতার করা হয়েছে। গ্রেফতারকৃতরা জঙ্গি সংগঠনের জন্য অস্ত্র কেনা এবং কারাবন্দী নেতাদের মুক্ত করতে প্রয়োজনীয় অর্থ সংগ্রহের জন্য ডাকাতি করতো। এরা হলো, জুয়েল সরকার ওরফে সোহরাব ওরফে সরকার (৩২), মো. রাশেদ ওরফে কাকলীর বাবা (২৭), মো. সেন্টু হাওলাদার ওরফে জাহিদ (২৬), নাজমুল হাসান ওরফে নয়ন ওরফে নরেশ (২৩), মো. আবদুল বাসেদ (২২), মো. কাসেম ওরফে কাওসার ওরফে কাসু (২০) ও মো. আবু বকর সিদ্দিক ওরফে শুভ্র ওরফে আকাশ (২০)। তাদের কাছ থেকে ৬৭ ভরি সোনা, ৪টি পিস্তল, ৫টি ম্যাগাজিন, ১০টি গুলি, ৯টি চাপাতি, ২টি রামদা, ৮ বোতল রাসায়নিক পদার্থ, ৩ প্যাকেট রাসায়নিক পাউডার, নগদ ৬ লাখ টাকা, ১০টি মোবাইল, ২টি টিভি, ৪টি ক্যামেরা, ২টি ল্যাপটপ, ১টি মোটরসাইকেল ও সোনা মাপার ৪টি যন্ত্র উদ্ধার করা হয়েছে। তিনি জানান, গত জুনে বনানী ও অক্টোবরে তেজগাঁও থানা এলাকায় দুটি ডাকাতির ঘটনা ঘটে। এই দুটি ঘটনায় দায়ের হওয়া মামলা তদন্ত করতে গিয়ে ওই সাতজনকে গ্রেপ্তার করা হয়। তারা জেএমবির মূল ধারার সক্রিয় সদস্য। বাসা ভাড়া নেওয়ার কথা বলে তারা বিভিন্ন বাসায় ঢুকে নগদ অর্থ, স্বর্ণালংকারসহ মূল্যবান জিনিসপত্র লুট করে।
ডাকাতির অভিযোগে দায়ের করা মামলায় গতকাল তাদের আদালতে তোলা হয়। সেখানে প্রত্যেকের ১০দিন করে রিমান্ডের আবেদন করেন পুলিশের কাউন্টার টেরোরিজম এ্যান্ড ট্র্যান্সন্যাশনাল ক্রাইম ইউনিটের (সিটিটিসি) উপ-পরিদর্শক সাইফুল ইসলাম। কিন্তু আদালত ছয় দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।