Inqilab Logo

বৃহস্পতিবার, ২৬ মে ২০২২, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২৪ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী

কাপাসিয়ায় নির্বাচন পরবর্তী সহিংসতা : প্রতিপক্ষের বাড়িতে হামলা

ভাংচুর ও লুটপাটের অভিযোগ

কাপাসিয়া (গাজীপুর) উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ১৪ নভেম্বর, ২০২১, ৬:৫০ পিএম

গাজীপুর কাপাসিয়ায় ইউপি নির্বাচনে পরাজিত সদস্য পদপ্রার্থী আওয়ামীলীগ নেতা জাহাঙ্গীর আলম সরকারের পক্ষে নির্বাচন ও টিউবওয়েল প্রতীকে ভোট না দেয়ায় প্রতিপক্ষের সমর্থক ফারুক সিকদারের বাড়িতে হামলা, ভাংচুর ও লুটপাটের করেছে। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার চাঁদপুর ইউনিয়নের বড়সিটের স্কুল পাড়ায় নির্বাচিত সদস্য আওয়ামীলীগ নেতা মোহাম্মদ আলীর সমর্থক ফারুক সিকদারের বাড়িতে। মৃত ছামির উদ্দিন সিকদারের পুত্র ফারুক স্থানীয় যুবলীগের সিনিয়র সহসভাপতি। এব্যাপারে থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দেয়া হয়েছে।

বাদী ও স্থানীয়দের অভিযোগের ভিত্তিতে জানা যায়, ইউপি নির্বাচনে সদস্য পদপ্রার্থী জাহাঙ্গীর আলম সরকারের বিপক্ষে নির্বাচন করায় আগে থেকেই প্রাণনাশের হুমকিসহ নির্বাচন সাধ মিটিয়ে দিবে বলে আসছিল। গত মেয়াদে জাহাঙ্গীর আলম ইউপি সদস্য ছিলো। এবছর বৃহস্পতিবারের সদস্য পদে নির্বাচনে জাহাঙ্গীর পরাজিত হলে সন্ধ্যায় তার নির্দেশে ৮/১০ জনের একটি মোটরসাইকেল দল দেশীয় অস্ত্র নিয়ে ফারুকের বাড়িতে হামলা, ভাংচুর ও লুটপাট করে প্রায় লক্ষাধিক টাকার মালামাল নিয়ে যায় এর পরক্ষণেই ডেফুলিয়া ছাইদুরের বাড়িতে হামলাসহ মোটরসাইকেল ভাংচুর করেছে। এব্যাপারে ফারুকের স্ত্রী শাহিনুর জানান, জাহাঙ্গীর আগে থেকেই আমার স্বামীকে প্রাণ নাশের হুমকি দিয়ে আসছিল এবং তার নির্দেশে আমার বাড়িতে হামলা চালিয়ে আমার টিনের ঘরটি দা দিয়ে কোপাতে থাকে এবং আমার বিল্ডিংয়ের রুমে ঢোকে স্বর্ণালংকারসহ প্রায় লক্ষাধিক টাকার মালামাল নিয়ে বলে যায় ভোট দেয়ার স্বাধ ও নির্বাচনে ব্যয় হওয়া সবটাকা ফারুককে দিতে হবে বলে প্রাণনাশের হুমকি দিয়ে চলে যায়।

এ ব্যাপারে কথা হয় ইউনিয়ন আ'লীগের সাধারণ সম্পাদক হালিম সরকারের সাথে তিনি বলেন, ফারুক আমাদের যুবলীগ নেতা। তার বাড়িতে হামলা, ভাংচুর ও লুটপাটের খবর পেয়ে ইউনিয়ন আ'লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি বিল্লাল মোড়ল, সাংগঠনিক সম্পাদক রফিকুল ভুঁইয়া, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক রাসেল সিকদার ও ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক আনিছুর ভুইয়াসহ ফারুকের বাড়িতে যেয়ে ঘটনার সত্যতা পেয়েছি এবং এর তীব্র নিন্দাসহ অপরাধীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানাই।

এ ঘটনার নির্দেশদাতা জাহাঙ্গীর সরকারকে একাধিক বার ফোন ও ক্ষুদে বার্তা পাঠালেও কোন বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

এবিষয়ে কাপাসিয়া থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা এএফএম নাসিম বলেন, এ ঘটনার একটি লিখিত অভিযোগ পেয়েছি তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করব।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: গাজীপুর


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ