Inqilab Logo

শুক্রবার, ২৮ জানুয়ারী ২০২২, ১৪ মাঘ ১৪২৮, ২৪ জামাদিউস সানি ১৪৪৩ হিজরী

কলাপাড়ায় দাখিল পরীক্ষা কেন্দ্রে অসদুপায় অবলম্বনের পর পা ধরে পার পেলেন দুই পরীক্ষার্থী

কলাপাড়া (পটুয়াখালী) সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ১৪ নভেম্বর, ২০২১, ৯:০৩ পিএম

কলাপাড়ায় এসএসসি, দাখিল ও এএসসি (ভোকেশনাল) পরীক্ষার প্রথম দিনে খেপুপাড়া নেছার উদ্দীন ফাজিল মাদরাসা’র দু’শিক্ষার্থী কোরান মজিদ ও তাজভীদ বিষয়ে অসদুপায় অবলম্বনের দায়ে হাতে নাতে ধরা পড়ার পর কেন্দ্র সচিবের তদবিরে বহিস্কার না হওয়ার অভিযোগ উঠেছে। রবিবার সরকারী মোজাহার উদ্দীন বিশ্বাস কলেজ ভেন্যুতে পরীক্ষা শুরু হওয়ার পর এ ঘটনা ঘটে। এতে পরীক্ষা কেন্দ্রে দায়িত্বরত ট্যাগ অফিসারদের যথাযথ দায়িত্ব পালন নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে।

উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিস সূত্র জানায়, রবিবার উপজেলার ৪টি কেন্দ্রে এসএসসি, দু’টি কেন্দ্রে দাখিল ও ১টি কেন্দ্রে এসএসসি ভোকেশনাল পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। এসএসসি বিজ্ঞান, কলা ও বাণিজ্য অনুষদে মোট পরীক্ষার্থী সংখ্যা ২১৬১। দাখিল ৯৫৯ এবং এসএসসি (ভোকেশনাল) পরীক্ষার্থী সংখ্যা ৯৫৯।

অপর একটি সূত্র জানায়, রবিবার সকালে খেপুপাড়া নেছার উদ্দীন ফাজিল মাদরাসা দাখিল পরীক্ষা কেন্দ্রে (কেন্দ্র কোড ৫৭০) কোরান মজিদ ও তাজভীদ বিষয়ে অসদুপায় অবলম্বনের দায়ে হাতে নাতে ধরা পড়ে দু’শিক্ষার্থী। ইউএনও’র প্রতিনিধি হিসেবে উপজেলা প্রাথমিক সহকারী শিক্ষা অফিসার মো: রফিকুল ইসলাম এদের খাতা নিয়ে নেয়। কিন্তু ব্যবস্থা নেয়ার পূর্বেই কেন্দ্র সচিব খেপুপাড়া নেছার উদ্দীন ফাজিল মাদরাসা’র অধ্যক্ষ মো: নাসির উদ্দিন হাওলাদার তদবির করে তাদের খাতা ছাড়িয়ে নেয় এবং পরিক্ষার্থীদের দিয়ে তাদের পা ধরিয়ে মাফ চাওয়ায়। এসময় উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার মো: মোখলেসুর রহমান উপস্থিত ছিলেন বলে জানায় সূত্রটি।

এ বিষয়ে উপজেলা প্রাথমিক সহকারী শিক্ষা অফিসার মো: রফিকুল ইসলাম জানান, তারা পরস্পর দেখা দেখি করছিল। তাই তাদের খাতা নিয়ে ৩০ মিনিট আটকে রাখা হয়েছে।

খেপুপাড়া নেছার উদ্দীন ফাজিল মাদরাসা’র অধ্যক্ষ মো: নাসির উদ্দিন হাওলাদার ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, তারা পরস্পর দেখা দেখি করছিল। তাই তাদের খাতা নিয়ে নেয়া হয়েছিল। মানবিক বিবেচনায় তাদের বহিস্কার করা না হলেও তারা কেউ পাশ করবে কিনা সন্দেহ।

উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার মো: মোখলেসুর রহমান বলেন, এ বিষয় কিছু জানেননা।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: পটুয়াখালী


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ