Inqilab Logo

বৃহস্পতিবার, ২৬ মে ২০২২, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২৪ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

লিবিয়ার প্রেসিডেন্ট পদে দাঁড়াচ্ছেন গাদ্দাফিপুত্র সাইফ

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৪ নভেম্বর, ২০২১, ১০:৪৫ পিএম

লিবিয়ার সাবেক একনায়ক মোয়াম্মার আল-গাদ্দাফির ছেলে সাইফ আল-ইসলাম আল-গাদ্দাফি আগামী ২৪ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিতব্য লিবিয়ার প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। গাদ্দাফির মৃত্যুর পর খুব কমই জনসম্মুখে এসেছেন তিনি। রোববার প্রেসিডেন্ট প্রার্থী হিসেবে নিবন্ধনের জন্য তিনি জনসম্মুখে আসেন বলে ব্রিটিশ গণমাধ্যম গার্ডিয়ানের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে।

লিবিয়ার দক্ষিণাঞ্চলীয় শহর সেবাতে তিনি তার মনোনয়ন নিবন্ধন করেছেন বলে জাতীয় নির্বাচন কমিশন নিশ্চিত করেছে।

মনোনয়ন পত্রে স্বাক্ষর করার সময় ৪৯ বছর বয়সী সাইফকে সাদা দাড়িতে চশমা পরিহিত অবস্থায় দেখা গেছে। এ সময় তার পরনে ছিল বাদামি চাদর, তার বাবা গাদ্দাফির পোশাকের সঙ্গে যার মিল রয়েছে। দেশে তার কতটা জনসমর্থন আছে বা তার প্রার্থী হওয়ার আগ্রহ মূলত পশ্চিমা মিডিয়ার উপর নির্ভর করছে কি না সেটাই এখন দেখার বিষয়।

এর আগে মার্কিন গণমাধ্যম নিউইয়র্ক টাইমসকে সাইফ জানিয়েছিলেন, লিবিয়ার প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে লড়তে চান। তিনি বলেন, আমি দশ বছর ধরে লিবিয়ার জনগণ থেকে দূরে রয়েছি। ধীরে ধীরে ফিরে আসতে হবে। জনগণের মন জয় করতে হবে।

২০১৩ সালে ত্রিপোলির একটি আদালত সাইফসহ গাদ্দাফির শাসনামলের প্রায় ৩০ জন শীর্ষস্থানীয় কর্মকর্তাকে ২০১১ সালের অভ্যুত্থানের সময়কার অপরাধের জন্য অভিযুক্ত করা হয়।

ওই অভুত্থানে গাদ্দাফি ক্ষমতাচ্যুত ও নিহত হন। পরে ২০১৫ সালে সাইফসহ আটজনের বিরুদ্ধে ফাঁসির আদেশ দিয়েছেন দেশটির একটি আদালত।
বাবা গাদ্দাফি হত্যার পর তাকেই লিবিয়ার পরবর্তী উত্তরসূরি ভেবেছিলেন অনেকে। কিন্তু তা হয়ে উঠেনি। গাদ্দাফির সাত সন্তানের মধ্যে হত্যাকাণ্ডের শিকার হন তিনজন।

২০১১ সালে বিদ্রোহীদের হাতে গাদ্দাফি খুন হওয়ার একদিন পর সাইফও ধরে পড়েন। ২০১৭ সালে বিদ্রোহীদের কবল থেকে মুক্তি পাওয়ার পর সাইফকে আর জনসম্মুখে তেমন দেখা যায়নি। সূত্র : গার্ডিয়ান



 

Show all comments
  • মোহাম্মদ দলিলুর রহমান ১৪ নভেম্বর, ২০২১, ১১:২৬ পিএম says : 0
    এক মাত্র উপযুক্ত গাদদাফীর ছেলে।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: লিবিয়া


আরও
আরও পড়ুন