Inqilab Logo

বুধবার, ১৯ জানুয়ারী ২০২২, ০৫ মাঘ ১৪২৮, ১৫ জামাদিউস সানি ১৪৪৩ হিজরী

‘সরকার দলীয়করণের মাধ্যমে ক্রীড়াঙ্গন ধ্বংস করে দিয়েছে’

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৬ নভেম্বর, ২০২১, ১২:০১ এএম

সরকার দলীয়করণের মাধ্যমে ক্রীড়াঙ্গনকে ধ্বংস করে দিয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন। তিনি বলেন, রাষ্ট্রক্ষমতাকে দখলে রাখতে আওয়ামী লীগ সরকার সর্বত্রই দলীয়করণ করছে। আমাদের সর্বক্ষেত্রে অবক্ষয়, সর্বক্ষেত্রে দলীয়করণ চলছে। আজকে কোথায় সেই ফুটবল? ক্রিকেট উন্নত করছি না। কেনো? গত ১২ বছরে শুধু দলীয়করণ করে প্রত্যেকটি ক্রীড়া ফেডারেশনকে ধবংস করে দেয়া হয়েছে।
গতকাল সোমবার ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে বিএনপির স্বাধীনতার সূবর্ণ জয়ন্তী উদযাপন ক্রীড়া কমিটির উদ্যোগে ‘ বাংলাদেশের ক্রীড়া অঙ্গনে জিয়া পরিবার’ শীর্ষক আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

খন্দকার মোশাররফ বলেন, অর্থনীতিকে যেভাবে ধবংস করে দেয়া হয়েছে, সামাজিক সুবিচারকে যেভাবে বিতাড়িত করা হয়েছে, আইনের শাসনকে যেভাবে বিতাড়িত করা হয়েছে, ক্রীড়াঙ্গনেও দলীয়করণ করে ধ্বংস করে দেয়া হয়েছে। কোথায় দলীয়করণ হয় নাই, সর্বত্র, চারিদিকেই দেখবেন তাদের দলীয়করণ।

দেশের ক্রীড়াঙ্গনের অবস্থা তুলে ধরে জাতীয় দলের সাবেক আলোচিত ফুটবলার ও বিএনপির ভাইস-চেয়ারম্যান হাফিজ উদ্দিন আহমেদ বলেন, বাংলাদেশে আগা খান ফুটবল গোল্ড কাপ চমৎকার টুর্নামেন্ট ছিলো। বিভিন্ন দেশের জাতীয় দল এই কাপে খেলতে আসতো। ওই সময়ে ক্লাব ফুটবল ‘সো অর্গানাইজড’ ছিলো। কী চমৎকার ক্রীড়া সংগঠন ছিলো। খেলোয়াড়রাও প্রাণপণ দিয়ে খেলতো, ওই সময়ে টাকা পয়সা তেমন ছিলো না। আমরা তো প্রথমদিকে পয়সাই পাই নাই। টাকা-পয়সা ছাড়াই খেলেছি। অর্থ কোনো ব্যাপারই ছিলো না। আজকে তো অর্থই অর্থ। ক্রিকেট বোর্ডে তাদের নাকী ৯‘শ কোটি টাকা ফিক্সড ডিপোজিট আছে। এটা তো গর্ব করার বিষয়। কিন্তু কত জন প্লেয়ার আছে দেখেন? প্লেয়ার তো দুই জন। সাকিব আর তামিম। ৯‘শ কোটি টাকা রেখে লাভ হলো কী? কয়জন আন্তর্জাতিক মানের প্লেয়ার আপনার তৈরি করেছেন?

স্বাধীনতার সূবর্ণ জয়ন্তী উদযাপন ক্রীড়া কমিটির সদস্য সচিব আমিনুল হকের পরিচালনায় আলোচনা সভায় বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান নিতাই রায় চৌধুরী, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা কাউন্সিলের সদস্য আবদুস সালাম, নির্বাহী কমিটির সদস্য শাহ নুরুল কবির শাহিন, তাবিথ আউয়াল, জাতীয় প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক ইলিয়াস খান প্রমূখ বক্তব্য রাখেন।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: সরকার


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ