Inqilab Logo

রোববার, ১৪ আগস্ট ২০২২, ৩০ শ্রাবণ ১৪২৯, ১৫ মুহাররম ১৪৪৪
শিরোনাম

আগামীকাল দেখা যাবে সিংহরাশির আলোক ঝর্ণা!

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৬ নভেম্বর, ২০২১, ৪:৪৭ পিএম | আপডেট : ১০:০০ পিএম, ১৬ নভেম্বর, ২০২১

আলো ঝরে পড়বে আকাশ থেকে! দেখা যাবে খোলা চোখেই। প্রতি বছরই নভেম্বর মাসে আকাশ থেকে এরকম আলো ঝরে পড়ে। আলো ঝরে মানে, আলোর বিন্দু ঝরে পড়ে। জ্যোতির্বিজ্ঞানীরা বা নক্ষত্র পর্যবেক্ষকেরা প্রতিবছরই এই সময়টির জন্য অপেক্ষা করেন।

চলতি বছর ৬ নভেম্বর থেকে এই আলোকপাত শুরু হয়েছে। চলবে নভেম্বরের ৩০ তারিখ পর্যন্ত। এর মধ্যে ১৭ নভেম্বর, অর্থাৎ, আগামি কাল এই আলোকপাত তুঙ্গে অবস্থান করবে বলেই অনুমান জ্যোতির্বিজ্ঞানীদের। প্রত্যেকবারই এই আলোকপাত ধূমকেতুপাতে পরিবর্তিত হয় না। মোটামুটি ৩৩ বছর পর পর দিগন্তে ধূমকেতুর মতো আছড়ে পড়ে এই ‘লিওনিডস মিটিওর শাওয়ার’ বা সিংহরাশির আলোক ঝর্ণা।

বিষয়টি প্রথম জানা যায় ১৮৮৩ সালে। একটি ধূমকেতুর লেজের অংশবিশেষকেই আকাশে দেখা গিয়েছিল। ‘৫৫পি/টেম্পেল-টাটল’ নামক ধূমকেতু পৃথিবীর আবহমণ্ডলে ঢুকে পড়ে। আর তখনই আবহমণ্ডলের সঙ্গে সংঘর্ষে আগুন জ্বলে ওঠে। নৈশ-আকাশে আলোর রেখা দেখা যায়। আকাশের সিংহরাশির অঞ্চল থেকে এই আলোকবিন্দু ঝরতে দেখা যায় বলে এই আলোকবর্ষণের নাম দেওয়া হয়েছে ‘লিওনিডস মিটিওর শাওয়ার’।

ধূমকেতুর লেজের ওই বাতিল জঞ্জাল যাদের ‘ডেব্রি’ হিসেবে উল্লেখ করা হয়, মহাশূন্যে তাদের ছুটে চলার গতি হল প্রতি ঘন্টায় দু’লাখ পঞ্চান্ন হাজার ছয়শো কিলোমিটার। যেখানে আলোর দূষণ নেই, যে-অঞ্চলে আকাশ ঘন কালো আঁধারে ঢাকা সেখান থেকে এই আলোকবর্ষণ ভালো ভাবে দেখা যাবে। তবে আকাশে চাঁদের আলো থাকলে তা প্রাথমিক ভাবে একটু অসুবিধার সৃষ্টি করতে পারে। সূত্র: ইউকে মেট্রো।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ