Inqilab Logo

শনিবার, ২৯ জানুয়ারী ২০২২, ১৫ মাঘ ১৪২৮, ২৫ জামাদিউস সানি ১৪৪৩ হিজরী

চমক আকবর আলী!

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৮ নভেম্বর, ২০২১, ১২:০৫ এএম

পাকিস্তানের বিপক্ষে মাঠে নামার তিন দিন আগে টি-টোয়েন্টি দল ঘোষণা করল বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। ক্ষুদ্র সংস্করণের বিশ্বকাপে ভরাডুবির পর অনুমিতভাবেই দলে পরিবর্তনের হিড়িক। বড় খবর হল প্রথমবারের মত জাতীয় দলে ডাক পেলেন অনূর্ধ্ব-১৯ দলের বিশ্বকাপজয়ী অধিনায়ক আকবর আলী। নেতৃত্বে কোনো পরিবর্তন আসেনি আপাতত। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের মত এবারও দলের দায়িত্বে অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। তবে, দলে নেই সিনিয়র ক্রিকেটার মুশফিকুর রহিম, লিটন দাস আর সৌম্য সরকারও।
গতকাল দুপুরে মিরপুর শেরে বাংলা ক্রিকেট স্টেডিয়ামে সংবাদ সম্মেলনে তিন ম্যাচের সিরিজের জন্য ১৬ জনের দল ঘোষণা করেন প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদিন নান্নু। প্রথমবারের মতো টি-টোয়েন্টিতে ডাক পেলেন ৫ টেস্ট খেলা ওপেনার সাইফ হাসান, ইয়াসির আলি রাব্বি ও শহিদুল ইসলাম। বিশ্বকাপ দলে উপেক্ষীত থাকলেও ফিরেছেন আরেক ওপেনার নাজমুল হোসেন শান্ত।
সেমিফাইনালের স্বপ্ন নিয়ে গেলেও সংযুক্ত আরব আমিরাতে অনুষ্ঠিত বিশ্বকাপে ভরাডুবি হয় বাংলাদেশের। সুপার টুয়েলভের টিকেট বাংলাদেশ কোনোক্রমে পেলেও সেমিফাইনালে উঠতে ব্যর্থ হয়। এই পর্বে সবগুলো ম্যাচই হারে মাহমুউল্লাহর দল। বিশ্বকাপ স্কোয়াড থেকেই দলে এসেছে মোট ৬ বদল। সাকিব আল হাসান ও মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন চোটে থাকায় দুটি বদল অনুমিতই ছিল। আপাতত টি-টোয়েন্টি থেকে বাদ দেওয়া হয়েছে লিটন, সৌম্যকে। এই দুজনের বদলে নেওয়া হয়েছে সাইফ আর শান্তকে। নানা সময়ে বিভিন্ন সংস্করণে দলে ঠাঁই পাওয়া ব্যাটসম্যান ইয়াসির, পেসার শহিদুলও এবার আছেন এই টি-টোয়েন্টি স্কোয়াডে। অভিজ্ঞ মুশফিকে বিকল্প হিসেবে দলে রাখা হয়েছে ইয়াসিরকে। আর সাইফুদ্দিনের চোটে বিশ্বকাপ স্কোয়াডে রুবেল হোসেনকে যুক্ত করা হলেও কোন কারণ ছাড়াই পাকিস্তানের বিপক্ষে সিরিজে তাকে বাদ দিয়ে নেওয়া হয়েছে শহিদুলকে।
কিন্তু বিশ্বকাপে দলের সঙ্গী হয়ে না খেলার আক্ষেপ নিয়ে মাঝ পথে দেশে ফেরা লেগ স্পিনার আমিনুল ইসলাম বিপ্লবও ঠাঁই করে নিয়েছেন জায়গা। নতুন আসাদের মধ্যে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অভিষেকের অপেক্ষায় আছেন- ইয়াসির, আকবর, শহিদুল। সাইফ টেস্ট খেললেও এখনো টি-টোয়েন্টি খেলেননি। শান্ত দেশের হয়ে কেবল তিনটি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলেছেন। তবে আকবরের দলে আসা অবশ্য বেশ চমকের। গত কয়েকদিন ধরে চলা অনুশীলনেও ডাকা হয়নি তাকে। তিনি খেলছিলেন জাতীয় লিগে। তাকে সেখান থেকে ডাকা হয়েছে টি-টোয়েন্টি সিরিজে। গতবছর অন‚র্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপে বাংলাদেশের শিরোপা জয়ী অধিনায়ক আকবরকে দ্বিতীয় কিপার হিসেবে বিবেচনায় নেওয়া হয়েছে বলে জানান প্রধান নির্বাচক। গত জুনে ঢাকা প্রিমিয়ার লিগ টি-টোয়েন্টিতে অবশ্য ব্যাট হাতে খুব একটা ভালো করতে পারেননি আকবর। তবে টি-টোয়েন্টি সংস্করণে ২১ ইনিংস খেলে তার স্ট্রাইক রেট বাংলাদেশের বাস্তবতায় খারাপ নয়, ১২৬.৬৯।
আকবরের চেয়ে অবশ্য অনেক অনেক বড় চমক সাইফের সুযোগ পাওয়া। বয়সভিত্তিক ক্রিকেট থেকেই তাকে বড় দৈর্ঘ্যরে উপযোগী ব্যাটসম্যান বলে মনে করা হচ্ছে। বাংলাদেশের হয়ে ৫টি টেস্ট খেলে ফেলেছেন। সেখানে তার টেকনিক ও পায়ের কাজে দুর্বলতা ফুটে উঠেছে বারবার। সেখানে উন্নতি প্রমাণের আগে তাকে তুলে আনা হলো পুরো উল্টো ঘরানার এক সংস্করণে। সাইফকে কখনোই টি-টোয়েন্টির জন্য কার্যকর মনে করা হয়নি। ঘরোয়া ক্রিকেটেও এই সংস্করণে খুব ভালো নয় তার পারফরম্যান্স। পেসার শহিদুল গত কিছুদিন ধরেই নিয়মিত জাতীয় দলের প্রাথমিক স্কোয়াডে জায়গা পাচ্ছেন, দলের আশেপাশে আছেন। তবে টি-টোয়েন্টিতে ডাক পেয়ে যাওয়াটা একটু বিস্ময়করই। ঘরোয়া টি-টোয়েন্টিতে তার রেকর্ড অবশ্য খারাপ নয়। ৩৭ ম্যাচে উইকেট নিয়েছেন ৫৪টি। ব্যাটের হাতও বেশ ভালো তার।
১৯ নভেম্বর মিরপুর শেরে বাংলা ক্রিকেট স্টেডিয়ামে পাকিস্তানের বিপক্ষে প্রথম টি-টোয়েন্টিতে নামবে বাংলাদেশ। পরদিনই দ্বিতীয় ও ২২ নভেম্বর একই ভেন্যুতে হবে শেষ ম্যাচ। সন্ধ্যার শিশিরের কথা মাথায় রেখে সবক’টি ম্যাচই হবে দুপুর ২টায়। এই সিরিজের জন্য ভাবনায় রেখে ‘টিম ডিরেক্টর’ খালেদ মাহমুদের তত্ত¡াবধানে মিরপুর শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামে অনুশীলন করছিলেন বেশ কজন ক্রিকেটার। তাদের মধ্যে পারভেজ হোসেন ইমন ও তৌহিদ হৃদয় দলে সুযোগ পেতে পারেন বলে গুঞ্জন থাকলেও শেষ পর্যন্ত রাখা হয়নি দুজনের কাউকেও।
এরপর দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজ। ২৬ নভেম্বর প্রথম টেস্ট শুরু হবে চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে। দ্বিতীয় টেস্ট শুরু হবে ৪ ডিসেম্বর, মিরপুরে। টেস্টের দল এখনও ঘোষণা করা হয়নি। পাকিস্তানের এই সফরে টেস্ট বা টি-টোয়েন্টি কোনো ফরম্যাটেই ইনজুরির কারণে খেলা হবে না সাকিব আল হাসানের। একই কারণে খেলা না-ও হতে পারে দেশসেরা ওপেনার তামিম ইকবালের। যদিও টেস্ট সিরিজে খেলার ইচ্ছা থেকে গত ক’দিন আগে নিজ উদ্যোগেই অনুশীলনে ফিরেছিলেন সেচ্ছায় বিশ্বকাপ না খেলা ড্যাশিং এই ওপেনারের।

পাকিস্তান সিরিজের টি-টোয়েন্টি দল
মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ (অধিনায়ক), সাইফ হাসান, মোহাম্মদ নাঈম শেখ, নাজমুল হোসেন শান্ত, আফিফ হোসেন ধ্রুব, কাজী নুরুল হাসান সোহান, মেহেদী হাসান, আমিনুল ইসলাম বিপ্লব, মুস্তাফিজুর রহমান, শরিফুল ইসলাম, তাসকিন আহমেদ, ইয়াসির আলী রাব্বি, শামিম হোসেন পাটোয়ারি, আকবর আলী, নাসুম আহমেদ ও শহিদুল ইসলাম

 

 

 

 

 

 



 

Show all comments
  • হাসান সোহাগ ১৭ নভেম্বর, ২০২১, ৯:৪৮ এএম says : 0
    মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ বাদে বাকি তো প্রায় সবাই ই নতুন
    Total Reply(0) Reply
  • হাসান সোহাগ ১৭ নভেম্বর, ২০২১, ৯:৪৯ এএম says : 0
    দেখা যাক আকবর আলী কি চমক দেখাতে পারে
    Total Reply(0) Reply
  • ইলিয়াস ১৭ নভেম্বর, ২০২১, ৯:৪৭ এএম says : 0
    আশা করি নতুনরা ভালো খেলবে
    Total Reply(0) Reply
  • হাসান সোহাগ ১৭ নভেম্বর, ২০২১, ২:৩৩ এএম says : 0
    তার জন্য অনেক অনেক শুভ কামনা রইলো
    Total Reply(0) Reply
  • Dhiman Nath ১৭ নভেম্বর, ২০২১, ৩:০২ এএম says : 0
    সবাইকে সুযোগ দেওয়া জরুরি। পুরাতন এর পাশাপাশি নতুন প্লেয়ারদের দক্ষতা ও বিবেচনা করা উচিত। সৌম্য, লিটনকে অনেক সুযোগ দেওয়া হয়েছে, তারা বরাবরের মতোই ব্যর্থ। বাংলাদেশে আফিফ হোসেনের মতো অনেক অলরাউন্ডার আছে, এদের খুঁজে বের করে সুযোগ দিলে, বাংলাদেশ টিমে একাধিক প্রতীয়মান ক্রিকেটার বের করা যাবে
    Total Reply(0) Reply
  • Mainuddin Islam ১৭ নভেম্বর, ২০২১, ৩:০৩ এএম says : 0
    যাদেরকেই নিছে তারা, সৌম্য সরকার আর লিটনের চাইতে ভালো খেলবে
    Total Reply(0) Reply
  • Miah Rahman ১৭ নভেম্বর, ২০২১, ৩:০৩ এএম says : 0
    Good go ahead.so many better than those.
    Total Reply(0) Reply
  • Mohammad Shawon ১৭ নভেম্বর, ২০২১, ৩:০৪ এএম says : 0
    উচিৎ শিক্ষা এইবার আয়নায় মুখ দেখার প্রচুর সময় পাবে তারা।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: বিসিবি

১৮ নভেম্বর, ২০২১

আরও
আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ