Inqilab Logo

সোমবার, ১৭ জানুয়ারী ২০২২, ০৩ মাঘ ১৪২৮, ১৩ জামাদিউস সানি ১৪৪৩ হিজরী

অস্ত্রবিরতি রাশিয়ার মধ্যস্থতায়

ফের রক্তক্ষয়ী সংঘাতে জড়িয়েছিল আজারবাইজান ও আর্মেনিয়া

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৮ নভেম্বর, ২০২১, ১২:০২ এএম

রাশিয়ার মধ্যস্থতায় পূর্ব সীমান্তে যুদ্ধবিরতি মেনে নেয়ার ঘোষণা দিয়েছে আর্মেনিয়া। মঙ্গলবার আজারবাইজান এবং আর্মেনিয়ার সামরিক বাহিনীর মধ্যে প্রাণঘাতী সংঘর্ষের পর আর্মেনিয়া যুদ্ধবিরতি মেনে নেয়ার ঘোষণা দেয়। দেশটির প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় গতকাল জানিয়েছে, সীমান্ত সংঘর্ষ বন্ধ করার জন্য রাশিয়া যে আহ্বান জানিয়েছে বাকু ও ইয়েরেভান তা মেনে নিয়েছে। সংঘর্ষে আর্মেনিয়ার ১৫ সেনা নিহত হয়েছে বলে দেশটির প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় দাবি করেছে।

এর কয়েক ঘণ্টা পর মন্ত্রণালয় এক বিবৃতিতে জানায়, রাশিয়ার মধ্যস্থতায় আজারবাইজানের সাথে যুদ্ধবিরতি চুক্তির পরে আজারবাইজান-আর্মেনিয়া সীমান্তের পূর্বাঞ্চলে সঙ্ঘাত বন্ধ রয়েছে এবং সেখানকার পরিস্থিতি তুলনামূলক শান্ত। আর্মেনিয়ার কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, লড়াইয়ে তাদের অন্তত ১৫ সৈন্য নিহত এবং বেশ কয়েকজন আটক হয়েছেন। সীমান্তে দুটি অবস্থানের নিয়ন্ত্রণও তারা হারিয়েছেন। আর আজারবাইজান জানিয়েছে, তাদের দুই সৈন্য আহত হয়েছেন এ সংঘর্ষে। গত বছরের ৪৪ দিনের যুদ্ধের পর থেকে সবচেয়ে প্রাণঘাতী এ লড়াই শেষ পর্যন্ত রাশিয়ার আহ্বানে বন্ধ হয়েছে বলে বার্তা সংস্থা রয়টার্সের প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে।

আর্মেনিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, রাশিয়ার মধ্যস্থতায় মঙ্গলবার তারা অস্ত্রবিরতিতে সম্মত হয়েছে। ‘রাশিয়ার মধ্যস্থতায় হওয়া চুক্তি অনুসারে আর্মেনিয়া-আজারবাইজান সীমান্তের পূর্ব অংশে গোলাগুলি বন্ধ হয়েছে, এখন পরিস্থিতি অনেকটা স্থিতিশীল রয়েছে’, বলেছে তারা। এ বিষয়ে মন্তব্যের জন্য অনুরোধ জানানো হলেও আজারবাইজানের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় তাৎক্ষণিকভাবে সাড়া দেয়নি বলে রয়টার্স জানিয়েছে।
বিবিসি জানিয়েছে, আর্মেনিয়া মঙ্গলবার আজারবাইজানের আক্রমণ থেকে তাদের ভূখণ্ডগত সার্বভৌমত্ব রক্ষার জন্য দীর্ঘদিনের প্রধান মিত্র রাশিয়াকে অনুরোধ জানায়। এরপর আর্মেনিয়ায় সামরিক ঘাঁটি থাকা রাশিয়া পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে এগিয়ে আসে। পরে আর্মেনিয়া ও রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় জানায়, রাশিয়ার উদ্যোগে অস্ত্রবিরতি হয়েছে। কিন্তু আজারবাইজান এ বিষয়ে প্রকাশ্যে কোনো মন্তব্য করেনি।

আর্মেনিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় বলেছে, আজারবাইজান তাদের সৈন্যদের ওপর গোলা নিক্ষেপ করতে শুরু করে এবং ১২ সৈন্যকে আটক করে, এসময় সীমান্তে দুটি যুদ্ধ অবস্থানও হারায় তারা। আর্মেনিয়ার পার্লামেন্টের বৈদেশিক সম্পর্ক কমিটির প্রধান এডুয়ার্ড আগাজেনিয়ান জানিয়েছেন, আর্মেনিয়ার ১৫ জন সৈন্য নিহত হয়েছে।
আজারবাইজানের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় বলেছে, আর্মেনিয়ার বাহিনীগুলো আজারবাইজান সেনাবাহিনীর অবস্থানে গোলা নিক্ষেপের মাধ্যমে বড় ধরনের ‘উস্কানি’ দেওয়া শুরু করলে তারা জবাব দেয় আর তাদের নিজেদের অভিযান সফল হয়।

বার্তা সংস্থা ইন্টারফ্যাক্স জানিয়েছে, রাশিয়ার প্রতিরক্ষামন্ত্রী সের্গেই শোইগু ফোনে আর্মেনিয়া ও আজারবাইজানের প্রতিরক্ষামন্ত্রীদ্বয়ের সঙ্গে কথা বলেছেন। গত বছর বিতর্কিত ছিটমহল নাগোরনো-কারাবাখ নিয়ে এই দুই পক্ষের মধ্যে যুদ্ধে ৬৫০০ জনেরও বেশি মানুষ নিহত হয়েছিল। সূত্র : বিবিসি, রয়টার্স, ইন্টারফ্যাক্স।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: আজারবাইজান ও আর্মেনিয়া
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ