Inqilab Logo

বৃহস্পতিবার, ২০ জানুয়ারী ২০২২, ০৬ মাঘ ১৪২৮, ১৬ জামাদিউস সানি ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

মাগুরার মহম্মদপুর ও শালিখায় আ.লীগের ২৪ জন বহিষ্কার

মাগুরা থেকে স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৯ নভেম্বর, ২০২১, ১২:০০ এএম

মাগুরার মহম্মদপুর ও শালিখা উপজেলায় ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে দলীয় প্রার্থীর বিরুদ্ধে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করায় শালিখা উপজেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক আরজ আলি বিশ্বাস সহ ২৪ বিদ্রোহী প্রার্থীকে বহিষ্কার করা হয়েছে। মাগুরা জেলা আওয়ামী লীগের কার্য নির্বাহী কমিটির জরুরী সভার সিদ্ধান্ত মোতাবেক বৃহস্পতিবার তাদের বহিষ্কারের বিষয়টি চূড়ান্ত করা হয়েছে।

কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের নির্দেশ মোতাবেক এবং উপজেলা আওয়ামী লীগের সুপারিশক্রমে দলীয় প্রতীকের বিরুদ্ধে নির্বাচনে অংশ নেওয়ায় তাদের বহিষ্কার করা হয়েছে বলে মাগুরা জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আফম আবদুল ফাত্তাহ এবং সাধারণ সম্পাদক পঙ্কজ কুমার কুণ্ডু স্বাক্ষরিত বহিষ্কারাদেশ থেকে জানা গেছে।

বহিষ্কৃতরা হচ্ছেন, মহম্মদপুর উপজেলার বাবুখালি ইউনিয়নের বিদ্রোহী প্রার্থী আলি আহম্মেদ মিন্জু, মিজানুর রহমান পলাশ ও সঞ্জয় কুমার, বিনেদাপুর ইউনিয়নের সাকিবুল ইসলাম, দীঘা ইউনিয়নের মুস্তাফিজুর রহমান, হাসানুজ্জামান ও আলী রেজা, রাজাপুর ইউনিয়নের শাখারুল ইসলাম ও শহিদুল ইসলাম সাগর, বালিদিয়া ইউনিয়নের পাননু মোল্যা, মহম্মদপুর সদর ইউনিয়নের ইকবল আকতার কাফুর উজ্জ্বল ও ইউসুফ শেখ, পলাশবাড়ীয় ইউনিয়নের রবিউল ইসলাম ও সেকেন্দার আলী, নহাটা ইউনিয়নের তৈয়েবুর রহমান, শালিখা উপজেলার আড়পাড়া ইউনিয়নের বিদ্রোহী প্রার্থী আরজ আলি বিশ্বাস, ধনেশ্বরগাতি ইউনিয়নের গোলাম সরোয়ার মল্লিক, শতখালি ইউনিয়নের আকবর আলি ও কামাল হোসেন, তালখড়ি ইউনিয়নের শামসুর রহমান, শালিখা ইউনিয়নের আনিচুর রহমান ও আলতাফ হোসেন, বুনাগাতি ইউনিয়নের ইমদাদুল মোল্যা এবং গঙ্গারামপুর ইউনিয়নের শামসুর রহমান।

মাগুরা জেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক পঙ্কজ কুমার কুণ্ডু জানান, উল্লেখিত বহিষ্কৃত প্রার্থীদের পক্ষে দলীয় কোনো নেতা-কর্মী নির্বাচনী কাজে অংশ নিলে তাদের বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: মাগুরা


আরও
আরও পড়ুন