Inqilab Logo

মঙ্গলবার, ০৯ আগস্ট ২০২২, ২৫ শ্রাবণ ১৪২৯, ১০ মুহাররম ১৪৪৪ হিজরী

যশোর থেকে রাজধানীর আদাবর হতে নিখোঁজ তিন বোন উদ্ধার

যশোর ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ১৯ নভেম্বর, ২০২১, ৯:৩২ পিএম

রাজধানীর আদাবর হতে নিখোঁজ তিন বোনকে যশোর কোতোয়ালি থানা পুলিশ উদ্ধার করেছে। শুক্রবার (১৯ নভেম্বর) যশোর কোতোয়ালি মডেল থানা পুলিশ যশোর সদর উপজেলার চাঁদপাড়া পশ্চিমপাড়ায় তাদের পিতার বাড়ি থেকে উদ্ধার করেছে। এরা হলেন, রুকাইয়া আরা চৌধুরী (২১), জয়নব আরা চৌধুরী (১৯) ও খাদিজা আরা চৌধুরী (১৭)। পুলিশ তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করছে। ঢাকা থেকে তাদেরকে টিকটকে আসক্ত বলা হলেও যশোর পুলিশের দাবি, তারা টিকটক আসক্ত নয়, তাদের অ্যান্ড্রয়েড মোবাইল ফোনও নেই।

যশোর পুলিশের মুখপাত্র ডিবি ওসি রুপণ কুমার সরকার জানান, শুক্রবার যশোর কোতোয়ালি মডেল থানার এসআই আনসারুল হক ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে যশোর সদর উপজেলার চাঁদপাড়া পশ্চিমপাড়া হতে ভিকটিম রুকাইয়া, জয়নব ও খাদিজাকে উদ্ধার করেছে। তাদের পিতা রফিকুজ্জামান ও মাতা মৃত- তাসনিম আরা চৌধুরী।

ডিবি ওসি রুপণ কুমার সরকার আরো জানান, উদ্ধারকৃত ভিকটিমরা তাদের বাবা মায়ের সাথে উত্তরা লেকসিটি কনকর্ডে ভাড়া বাসায় থাকত। ২০১২ সালের দিকে তাদের বাবা-মায়ের মধ্যে ঝগড়া হলে তাদের বাবা যশোর চলে আসেন এবং ভিকটিমরা মায়ের সাথে ঢাকায় থেকে যায়।

ভিকটিমদের বাবা রফিকুজ্জামান স্কুল শিক্ষক ছিলেন। ২০১৩ সালের ২৮ আগস্ট ভিকটিমদের মা ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়ে মারা গেলে ভিকটিম রুকাইয়া আরা চৌধুরীকে লালন-পালনের দায়িত্ব নেন তার খালা সাজিয়া নওরিন চৌধুরী এবং ভিকটিম জয়নব আরা চৌধুরী ও খাদিজা আরা চৌধুরীর লালন-পালনের দায়িত্ব নেন আরেক খালা সামিয়ারা চৌধুরী। ভিকটিমদের লালন-পালনের এক পর্যায়ে গত ১৮ নভেম্বর সকাল ১১:০০ ঘটিকায় মুহাম্মদপুর বাসা থেকে তিনজন ভিকটিম নিখোঁজ হন এবং এ সংক্রান্ত সাজিয়া নওরিন আদাবর থানায় একটি নিখোঁজ জিডি করেন। জিডি নং-৮৭৫, তাং-১৮/১১/২১ ইং।

ভিকটিমদের জিজ্ঞাসাবাদের একপর্যায়ে জানা যায়, তাদের বাবা-মা আলাদাভাবে বসবাসের পর হতে ২০১২ সালের পর তাদের বাবার সাথে যোগাযোগ করতে দেওয়া হয়নি এবং তাদের উপর অত্যাচার করা হতো। তাই ভিকটিম তিনবোন পরামর্শ করে মুহাম্মদপুর হতে পালিয়ে যশোরে বাবার বাড়ি চলে আসে।

ডিবি ওসি রুপণ কুমার সরকার আরো জানান, ভিকটিমদের বাবা এখন প্যারালাইজড্ ও শয্যাশায়ী। তার বাসায় এই তিন বসে এসে অবস্থান করছিলেন। তারা টিকটক আসক্ত; এই তথ্য সঠিক নয়। কারণ তাদের অ্যান্ড্রয়েড মোবাইল ফোনও নেই।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: যশোর


আরও
আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ