Inqilab Logo

শনিবার, ২৯ জানুয়ারী ২০২২, ১৫ মাঘ ১৪২৮, ২৫ জামাদিউস সানি ১৪৪৩ হিজরী

সেই বেপরোয়া প্রাইভেটকার চালক স্কুলছাত্র গ্রেফতার

লাইসেন্স ছাড়াই গাড়ি চালায় তাসকিন

বিশেষ সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ২২ নভেম্বর, ২০২১, ১২:০৪ এএম

রাজধানীর বেইলি রোডে প্রাইভেটকার দিয়ে রিকশা আরোহী বাবা ও তার কোলে থাকা ছয় মাস বয়সী সন্তানকে চাপা দেয়া অপ্রাপ্তবয়স্ক চালক কিশোরকে চুয়াডাঙ্গা থেকে গ্রেফতার করেছে ডিএমপির তেজগাঁও বিভাগ। গ্রেফতারকৃত তাসকিন উইলস লিটল ফ্লাওয়ার স্কুলের দশম শ্রেণির ছাত্র। তাসকিন পরিবারের সঙ্গে রাজধানীর মগবাজারে থাকে। শনিবার দিবাগত রাত ৩টা ৪০ মিনিটে মেহেরপুর ও চুয়াডাঙ্গা জেলা পুুলিশের সহায়তায় আলমডাঙ্গা হাট বোয়ালিয়া নতুন বাজার এলাকা থেকে তাসকিনকে গ্রেফতার করে ডিএমপির তেজগাঁও বিভাগ।

তেজগাঁও বিভাগের ডিসি বিপ্লব কুমার সরকার গতকাল দৈনিক ইনকিলাবকে বলেন, গত শুক্রবার বেইলি রোডে বেপরোয়া গতির একটি প্রাইভেটকার রিকশা আরোহী বাবা ও তার কোলে থাকা ছয় মাস বয়সী ছেলেকে চাপা দেয়। এতে রিকশাচালক, রিকশা আরোহী বাবা-ছেলে গুরুতর আহত হন। পরবর্তী সময়ে গাড়ির নম্বর ও ভিডিও ফুটেজের মাধ্যমে গাড়ির মালিক ও চালককে শনাক্ত করা হয়। অভিযুক্ত প্রাইভেটকার চালক তাসকিন উইলস লিটল ফ্লাওয়ার স্কুলের দশম শ্রেণির ছাত্র। ঘটনার পর সে চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গায় পালিয়ে যায়। তাকে সেখান থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তাকে ঢাকায় নিয়ে আসা হয়েছে। অপরদিকে গাড়িটি মীরবাগ এলাকা থেকে জব্দ করা হয়েছে। সেটি বর্তমানে হাতিরঝিল থানায় রাখা হয়েছে। এ ঘটনায় ওই কিশোরের মা, বাবা ও ভাইকে পুলিশ হেফাজতে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে বলে তিনি জানান।
গত শুক্রবার বিকালে বেইলি রোডে বেপরোয়া গতিতে ছুটে আসা প্রাইভেটকারের ধাক্কায় গুঁড়িয়ে যায় একটি রিকশা। এ সময় রিকশার যাত্রী ফখরুল হাসানের কোলে থাকা ছয় মাসের একটি শিশু দূরে ছিটকে পড়লে তার পা ভেঙে যায়। হাত ভেঙেছে ফখরুলেরও। এ ঘটনায় আহত হন রিকশাচালকও। পরে তাদের উদ্ধার করে পথচারীরা হাসপাতালে নিয়ে যায়।
গত দুদিন থেকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল ওই ভিডিওতে দেখা যায়, একটি কালো রঙের প্রাইভেট কার (ঢাকা মেট্রো-গ-৩৪-২২৬৩) বেপরোয়া গতিতে পেছন থেকে চলন্ত রিকশাটিকে ধাক্কা দেয়। কিছু বুঝে ওঠার আগেই রিকশার চালকসহ আরোহী বাবা-শিশুসন্তান রাস্তায় ছিটকে পড়ে আহত হয়। এতে শিশুর পা ও তার বাবার হাত ভেঙে যায়। তবে ওই সময় পুলিশের একটি গাড়ি ঘটনাস্থলে থাকলেও প্রাইভেটকারটি আটকের চেষ্টা করেনি বলে প্রত্যক্ষদর্শীদের অভিযোগ।
ডিএমপির তেজগাঁও বিভাগ সূত্রে জানা যায়, সাইবার পেট্রোলিংয়ের অংশ হিসেবে ভাইরাল ভিডিওটি তেজগাঁও বিভাগের নজরে আসে। পরে ডিসি তেজগাঁও বিপ্লব কুমার সরকার তাৎক্ষণিকভাবে সংশ্লিষ্ট অফিসারকে প্রাইভেট কার চালককে শনাক্ত করে আটকের নির্দেশ দেন। এরই পরিপ্রেক্ষিতে শনিবার দিবাগত রাত সাড়ে ১২টার দিকে হাতিরঝিল এলাকা থেকে প্রাইভেটকারটি হেফাজতে নেয় হাতিরঝিল থানা পুলিশ। অন্যদিকে রাত ৩টা ৪০ মিনিটে মেহেরপুর ও চুয়াডাঙ্গা জেলা পুুলিশের সহায়তায় আলমডাঙ্গা হাট বোয়ালিয়া নতুন বাজার এলাকা থেকে তাসকিনকে আটক করে ডিএমপির তেজগাঁও বিভাগ।
তেজগাঁও বিভাগের অতিরিক্ত উপকমিশনার হাফিজ আল ফারুক বলেন, প্রাইভেটকারের চালক তাসকিনের বাসা রাজধানীর মগবাজারে। তাসকিনের পেশা কন্টেন্ট ক্রিয়েটর। পড়াশোনার পাশাপাশি সে ইউটিউব বা টিকটক কন্টেন্ট তৈরি করে। ওই গাড়ি চালানোর জন্য তার কোনো লাইসেন্স ছিল না।



 

Show all comments
  • Rafiqul Islam Imon ২৩ নভেম্বর, ২০২১, ১১:৪১ পিএম says : 0
    কিশোর ছেলের কিছুই হবে না। তার বাবার‌ও কিছুই হবেনা।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: স্কুলছাত্র গ্রেফতার
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ