Inqilab Logo

শুক্রবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০২১, ১৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ২৭ রবিউস সানী ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

প্রশ্ন ফাঁসকারী বুয়েট শিক্ষক নিখিল রঞ্জন ধরের অ্যাকাউন্টে ১০ কোটি টাকা

অনলাইন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৩ নভেম্বর, ২০২১, ১০:৪৩ এএম

গত ৬ বছরে বুয়েটের একজন শিক্ষকের অ্যাকাউন্টে ১০ কোটি টাকার লেনদেন হয়েছে। একজন শিক্ষকের অ্যাকাউন্টে এত টাকা কোথা থেকে এলো? সেই অর্থের সন্ধান করতে গিয়ে গোয়েন্দারা প্রশ্ন ফাঁসের সঙ্গে এই শিক্ষকের সম্পৃক্ততা পেয়েছেন।

এমনকি গ্রেফতারকৃত একজনের স্বীকারোক্তিতেও এসেছে ওই শিক্ষকের নাম।


রাষ্ট্রায়ত্ব পাঁচ ব্যাংকের সমন্বিত নিয়োগ পরীক্ষার প্রশ্ন ফাঁসের ঘটনায় যে শিক্ষকের নাম এসেছে তিনি বুয়েটের ইন্ডাস্ট্রিয়াল অ্যান্ড প্রোডাকশন ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের প্রধান নিখিল রঞ্জন ধর। গোয়েন্দা পুলিশের কাছ থেকে তার বিষয়ে জানতে পেরে বুয়েট কর্তৃপক্ষ তাকে বিভাগীয় প্রধানের দায়িত্ব থেকে সরিয়ে দিয়েছে। একই সঙ্গে ঘটনা তদন্তে পাঁচ সদস্যের কমিটি গঠন করা হয়েছে।

বুয়েট ভিসি অধ্যাপক সত্য প্রসাদ মজুমদার জানান, ‘গোয়েন্দা পুলিশ আমাদের যোগাযোগ করে কিছু তথ্য দিয়েছে। সেই তথ্যের ভিত্তিতেই এই ব্যবস্থা। আমরা তদন্ত কমিটিকে পাঁচ কর্মদিবস সময় দিয়েছি। তাদের রিপোর্ট পাওয়ার পর আমরা পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেব। পাশাপাশি গোয়েন্দা পুলিশকেও বিষয়টি জানাব।’

অবশ্য নিখিল রঞ্জন ধর তার বিরুদ্ধে আনা এই অভিযোগ অস্বীকার করে ডয়চে ভেলেকে বলেছেন, ‘প্রশ্ন ফাঁসের ঘটনার সঙ্গে তার কোন সম্পৃক্ততা নেই। দায়িত্ব থেকেই তিনি প্রেসে গেছেন এবং কাজটি তদারকি করেছেন।’

প্রশ্ন ফাঁসের বিষয়টি তদন্ত করছে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)। গোয়েন্দা পুলিশের একজন উর্ধ্বতন কর্মকর্তা ডয়চে ভেলেকে বলেন, ‘অধ্যাপক নিখিল রঞ্জন ধর নিয়োগ পরীক্ষা কমিটিতে ছিলেন না। কিন্তু তিনি প্রশ্ন ছাপার দিন সকাল থেকে ভোর পর্যন্ত আহছানিয়া মিশনের ঢাকার আশুলিয়ার ছাপাখানায় অবস্থান করতেন। ফেরার সময় দুই কপি প্রশ্ন তিনি সঙ্গে আনতেন। প্রশ্ন ব্যাগে ঢুকিয়ে দিতেন বিশ্ববিদ্যালয়ের পিয়ন দেলোয়ার হোসেন। গ্রেফতারের পর দেলোয়ার ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিতে এই তথ্য জানিয়েছেন।’



 

Show all comments
  • Shahidul islam ২৩ নভেম্বর, ২০২১, ১:০৭ পিএম says : 0
    When you checking this type position people you will get 10 crore is normal. anticorruption must check is and every one.
    Total Reply(0) Reply
  • Hossain Anwar Anu ২৩ নভেম্বর, ২০২১, ১:২৩ পিএম says : 0
    দাদাতেই মঙ্গল !
    Total Reply(0) Reply
  • MD Akram Pathan ২৩ নভেম্বর, ২০২১, ১:২৪ পিএম says : 0
    সুষ্ঠু নিরপেক্ষ বিচার করা হক
    Total Reply(0) Reply
  • iqbal ২৩ নভেম্বর, ২০২১, ১:০৯ পিএম says : 0
    VERY GOOD PERFORMENCE BY DR. DHAR.BRING HIM IN REMAND AND DO THE NEEDFUL.
    Total Reply(0) Reply
  • Md Anwar ২৩ নভেম্বর, ২০২১, ১:১৫ পিএম says : 0
    নিখিল রঞ্জন বলে সমস্যা হবেনা,,,এটা যদি কোন মাদ্রাসার শিক্ষক হত তাহলে এতক্ষনে মিডিয়া সব গরম করে ফেলত ।
    Total Reply(0) Reply
  • Mohammad Ahidujjaman ২৩ নভেম্বর, ২০২১, ১:১৭ পিএম says : 0
    দেশের সর্বোচ্চ শিক্ষাপীঠের একজন শিক্ষক যদি এমন অপকর্মে জড়িত থাকে তাহলে পরবর্তী প্রজন্ম কি শিখছে এবং দেশ ও জাতিকে কি দিবে? এভাবেই তো সমাজ আজ ধ্বংসের দ্বারপ্রান্তে।
    Total Reply(0) Reply
  • Nuruz Zaman Babul ২৩ নভেম্বর, ২০২১, ১:১১ পিএম says : 0
    একাউন্ট জব্দ করে তাকে শ্রীঘরে পাঠানো হোক।
    Total Reply(0) Reply
  • Mohammad Rahman ২৫ নভেম্বর, ২০২১, ২:৫১ এএম says : 0
    ওনাদের খুঁটির শক্তি ওপারে, তাই কিছুই হবেনা!
    Total Reply(0) Reply
  • Md. Azad hossain ২৬ নভেম্বর, ২০২১, ১০:১০ এএম says : 0
    ... দেখলে মনে হয় খাটি মুসলামান। েএদের কে মেরে পেলা হোক। কোট কোটি ভাল ছাত্রের ভবির্ষত নষ্ট কারী।
    Total Reply(0) Reply
  • শিকার উদ্দিন খান ২৬ নভেম্বর, ২০২১, ১১:০৯ এএম says : 0
    মন্তব্য করে লাভ কি? প্রমানের অভাব বলে আইন শাস্তি দিতে পারবে না। অথচ এরকম কাজের জন্য একজনকে ফাঁসিতে ঝুলিতে পারলে হয়ত আগামীতে এই ধরনের ঘটনার পুনরাবৃত্তি ঘটত না।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: প্রশ্ন ফাঁসকারী শিক্ষক
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ