Inqilab Logo

শুক্রবার, ২৮ জানুয়ারী ২০২২, ১৪ মাঘ ১৪২৮, ২৪ জামাদিউস সানি ১৪৪৩ হিজরী

কলাপাড়ায় কেন্দ্রীয় শ্রমিক লীগ নেতার উপর হামলা

মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির নির্বাচনকে কেন্দ্র করে দুই পক্ষের মধ্যে হাতাহাতি

কলাপাড়া (পটুয়াখালী) সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ২৩ নভেম্বর, ২০২১, ১১:১৮ পিএম | আপডেট : ১:৪২ পিএম, ২৪ নভেম্বর, ২০২১

কলাপাড়ায় কেন্দ্রীয় শ্রমিক লীগ নেতা মাসুম বিল্লাহ’র (৩৫) উপর সন্ত্রাসী হামলার অভিযোগ পাওয়া গেছে। মঙ্গলবার সন্ধ্যার পর মিঠাগঞ্জ ইউনিয়নের পূর্ব মধুখালী গ্রামের বাইশাখোলা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। স্থানীয়রা আহতাবস্থায় মাসুম বিল্লাহকে উদ্ধার করে কলাপাড়া হাসপাতালে ভর্তি করেছে। আহত মাসুম বিল্লাহ বাংলাদেশ রেলওয়ে শ্রমিক লীগের কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য এবং ওই ইউপির মৃত তোজাম্মবর আলী খানের ছেলে।

স্থানীয় ও আহতের স্বজনরা এ প্রতিনিধিকে জানায়, মিঠাগঞ্জ ইউনিয়নের পূর্বমধুখালী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে ম্যানেজিং কমিটির নির্বাচনকে কেন্দ্র করে দুই সভাপতি প্রার্থীর মধ্যে হাতাহাতি ও বাকবিতন্ডার সৃষ্টি হয়। এ নিয়ে মাসুম বিল্লাহর কাছে একপক্ষ বিচার দিলে তিনি থানা পুলিশকে অবহিত করার কথা জানান। এর কিছু সময় পরে মাসুম বিল্লাহ নিজ বাড়িতে ফেরার সময় পথিমধ্যে বিদ্যালয়ের সহকারী প্রধান শিক্ষক আক্তার মোল্লা ও তার ভাই হারুন মোল্লা তার উপর হামলা চালায়।

আহত মাসুম বিল্লাহ এ প্রতিবেদককে বলেন, কোন কিছু বুঝে ওঠার আগেই আমার মাথার পিছনে আঘাত করে। এমনকি আমাকে তুলে নেয়ার চেষ্টা চালায়। স্থানীয়দের বাধার মুখে আমাকে নিতে পারেনি। কিন্তু এর আগেই তার সাথে থাকা জমি কেনার চার লক্ষাধিক টাকা ও একটি আইফোন ছিনিয়ে নেয় বলেও অভিযোগ করেন তিনি।

পূর্বমধুখালী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সহকারী প্রধান শিক্ষক আক্তার মোল্লা এ প্রতিনিধিকে জানান, নির্বাচনে পরাজিত সভাপতি প্রার্থী আ: রাজ্জাক খানের লোকজন মাসুম বিল্লাহর নেতৃত্বে উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তার উপস্থিতে আমাকে মারধর করেছে। এসময় ট্রিপল নাইনে ফোন দিলে পুলিশ গিয়ে আমাদের উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে।

কলাপাড়া উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মোকলেছুর রহমান গণমাধ্যমকে বলেন, শিক্ষকের উপর হামলা হলে আমি পুলিশে অবহিত করি। তবে আমি অনেককেই চিনি না।

কলাপাড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো: জসিম সাংবাদিকদের জানায়, মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির নির্বাচন নিয়ে দুই পক্ষের মধ্যে হাতাহাতির ঘটনা ঘটেছে। তবে কেউ অভিযোগ নিয়ে আসেনি। অভিযোগ পেলে তদন্ত করে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে তিনি জানান।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: পটুয়াখালী


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ