Inqilab Logo

মঙ্গলবার, ১৮ জানুয়ারী ২০২২, ০৪ মাঘ ১৪২৮, ১৪ জামাদিউস সানি ১৪৪৩ হিজরী

ভারতের বিরুদ্ধে অর্থনৈতিক নিষেধাজ্ঞা দিচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র?

অনলাইন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৪ নভেম্বর, ২০২১, ১:৪৪ পিএম

এস-৪০০ মিসাইল সিস্টেম নিয়ে তুঙ্গে ভারত-আমেরিকার টানাপোড়েন। নয়াদিল্লির উদ্বেগ বাড়িয়ে মঙ্গলবার আমেরিকা ইঙ্গিতে জানিয়েছে, রাশিয়ার তৈরি ওই ক্ষেপণাস্ত্র কিনলে অর্থনৈতিক নিষেধাজ্ঞার মুখে পড়তেও হতে পারে ভারতকে।

মার্কিন পররাষ্ট্র দপ্তরের মুখপাত্র নেড প্রাইস বলেন, “আমরা সকল বন্ধু দেশগুলির কাছে আবেদন জানিয়েছি, তারা যেন রাশিয়ার সঙ্গে এমন কোনও সামরিক চুক্তি না করে যার ফলে তাদের ‘কাটসা আইনে’ অর্থনৈতিক নিষেধাজ্ঞার মুখে পড়তে হয়। তবে এই ব্যাপারে ভারতকে ছাড় দেওয়া হবে কি না সেই বিষয়ে এখনও সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়নি। তবে কাটসা আইনে এমন ছাড় দেওয়ার কোনও বিধান নেই।”

উল্লেখ্য, সম্প্রতি ভূমি থেকে আকাশ ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরোধ ব্যবস্থা বা মিসাইল সিস্টেম ‘এস- ৪০০ ট্রায়াম্ফ’ ভারতে পাঠানো শুরু করেছে রাশিয়া। সামরিক বিষয়ে ওয়াকিবহাল মহলের দাবি, এর ফলে এক ধাক্কায় অনেকটাই শক্তি বেড়ে গেল ভারতীয় বিমানবাহিনীর।। শত্রুপক্ষের যুদ্ধবিমান ও দূরপাল্লার ক্রুজ মিসাইল মোকাবিলায় ‘এস- ৪০০’ মিসাইলের বিকল্প নেই।

প্রসঙ্গত, ভারত প্রথম দেশ নয় যার বিরুদ্ধে এই এস-৪০০ কেনার জন্য নিষেধাজ্ঞার হুঁশিয়ারি দিয়েছে আমেরিকা। ভারতের আগে রাশিয়ার কাছ থেকে এই অস্ত্র কেনে তুরস্ক। যার ফলে ইতিমধ্যে আমেরিকার নিষেধাজ্ঞার মুখে পড়তে হয়েছে ন্যাটো সদস্য দেশটিকে।

বিষয়কে খুব বেশি আমল দিতে নারাজ ভারতের বিশেষজ্ঞ মহল। তাদের দাবি, রাশিয়ার সঙ্গে সামরিক চুক্তি বাতিল করবে না ভারত। মস্কোর সঙ্গে পরীক্ষিত বন্ধুত্ব বজায় রেখেই আমেরিকার সঙ্গে সম্পর্ক মজবুত করেছে নয়াদিল্লি। বাইডেন প্রশাসনকেও সেই কথা মাথায় রাখতে হবে। তাছাড়া, কৌশলগত কারণে এশিয়া মহাদেশে চীনকে ঠেকাতে ভারতের উপরই ভরসা রাখতে হবে ওয়াশিংটনকে। সূত্র: বিজনেস স্ট্যান্ডার্ড।



 

Show all comments
  • মোঃ বানি আমিন বিশ্বাস। ২৫ নভেম্বর, ২০২১, ৫:৫৫ এএম says : 0
    আমেরিকা তার স্বার্থ ও ইসলামী রাষ্ট্রের বিরুদ্ধে এই নিষেধাজ্ঞা গুলো ব্যাবহার করে।আর্থিক সহায়তা প্রদানও অনুরূপভাবে বাছাই করেন,যেমন ফিলিস্তিন কে দেয়না, ইজরায়েলকে না চাইলেও দিয়ে থাকেন।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: যুক্তরাষ্ট্র

১৭ জানুয়ারি, ২০২২

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ