Inqilab Logo

রোববার, ২৮ নভেম্বর ২০২১, ১৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ২২ রবিউস সানী ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

৭ বছর পর ঢাকার শিরোপা উল্লাস

রেকর্ড চ্যাম্পিয়ন খুলনার অবনমন

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৫ নভেম্বর, ২০২১, ১২:০১ এএম

শোকেসে তাদের জাতীয় ক্রিকেট লিগের ৫টি শিরোপা। তবে সবশেষে ট্রফি নিয়ে ঢাকা বিভাগ উল্লাস করেছিল সেই ২০১৩-১৪ মৌসুম। অবশেষে ঘুঁচলো সেই খরা। বর্তমান চ্যাম্পিয়ন খুলনা বিভাগকে হারিয়েই ফের এনসিএল চ্যাম্পিয়ন হয়েছে ঢাকা। গতকাল বিকেএসপিতে ঢাকার জয়টি ১৭৯ রানে। এই নিয়ে ষষ্ঠবার জাতীয় ক্রিকেট লিগের শিরোপা জিতল য়াকা। শুধু খুলনাই এর চেয়ে বেশি ৭ বার চ্যাম্পিয়ন হয়েছে জাতীয় লিগে। এবার সেই খুলনারই হলো বাজে অভিজ্ঞতা। ম্যাচটি হেরে তারা প্রথম স্তর থেকে নেমে গেল দ্বিতীয় স্তরে।
শিরোপা ঘরে তুলতে জয়ের বিকল্প ছিল না। শেষ দিনে প্রতিপক্ষের শক্তিশালী ব্যাটিং লাইন-আপ গুটিয়ে দেওয়াও ছিল না সহজ কাজ। কঠিন সেই চ্যালেঞ্জে তাইবুর রহমানের ক্যারিয়ার সেরা বোলিংয়ে উতরে গেল ঢাকা। পয়েন্ট তালিকায় সবার ওপরে থেকে শেষ রাউন্ড শুরু করা রংপুরের শেষ ম্যাচ জেতার কোনো সম্ভাবনা না থাকাতেই জিতেই শিরোপা উৎসব শুরু করে দেয় ঢাকা।
ঢাকা বিভাগকে শিরোপা বঞ্চিত করতে শেষ ইনিংসে ৩৭৯ রানের লক্ষ্য পেয়েছিল খুলনা। বিনা উইকেটে ৭ রান নিয়ে দিন শুরু করা দলটি ৯৯তম ওভারের প্রথম বলে অলআউট ১৯৯ রানে। ঢাকা বিভাগের অধিনায়ক তাইবুরের বাঁহাতি স্পিনে খুলনার শেষ ব্যাটসম্যান আল আমিন হোসেন স্টাম্পড হতেই উল্লাসে মাতে ঢাকা। ঢাকার জয়ের নায়ক তাইবুরের মূল কাজ ব্যাটিং হলেও বল হাতেও বেশ কার্যকর তিনি। দলকে জিতিয়ে তারই প্রমাণ দিলেন তিনি। বাঁহাতি স্পিনে দুর্দান্ত বোলিংয়ে ৪০ রান দিয়ে ৫ উইকেট নেন ঢাকার অধিনায়ক। তার আগের সেরা ৩১ রান দিয়ে চার উইকেট। তবে ম্যাচে ১০ উইকেট নেওয়া অলরাউন্ডার শুভাগত হোম চৌধুরী হয়েছেন ম্যাচসেরা। ক্যারিয়ার সেরা বোলিংয়ে প্রথম ইনিংসে ৪৮ রান দিয়ে ৭ উইকেট নেন তিনি। এই ইনিংসে নিলেন তিনটি। পাশাপাশি ব্যাট হাতে দুই ইনিংসে রান করেন ২১ ও ৩৩।
রান তাড়ায় খুলনা ১০৭ রানেই হারিয়ে ফেলে ৭ উইকেট। দলটির লেজের ব্যাটসম্যানরা এরপর শুধু ঢাকার অপেক্ষা বাড়িয়েছেন। পাশের চার নম্বর মাঠ থেকে তখন ঢাকাকে সুখবর দিচ্ছিলেন সিলেটের বোলাররা। ৫ উইকেটে ৪৫৫ রান নিয়ে দিন শুরু করা সিলেটের প্রথম ইনিংস ৫৪০ রানে থামতেই কার্যত নির্ধারিত হয়ে যায় ম্যাচের ভাগ্য। ১৪০ রানে পিছিয়ে থেকে দ্বিতীয় ইনিংস শুরু রংপুর ১২৯ রানে হারিয়ে ফেলে পঞ্চম উইকেট। পাশের মাঠে ঢাকার চ্যাম্পিয়নশিপ নির্ধারিত হয়ে যাওয়ার কিছু সময় পড়েই ড্র মেনে নেয় সিলেট ও রংপুর।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: জাতীয় ক্রিকেট লিগ
আরও পড়ুন