Inqilab Logo

মঙ্গলবার, ২৮ জুন ২০২২, ১৪ আষাঢ় ১৪২৯, ২৭ যিলক্বদ ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

কুষ্টিয়ায় শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগ

আসামি গ্রেফতার

স্টাফ রিপোর্টার, কুষ্টিয়া থেকে : | প্রকাশের সময় : ২৬ নভেম্বর, ২০২১, ১২:০২ এএম

কুষ্টিয়া শহরতলীর ১৯ নং ওয়ার্ডের ফুলতলায় চার বছরের শিশুকন্যাকে ধর্ষণের অভিযোগে মোমিন শেখ নামের এক যুবককে আটক করেছে কুষ্টিয়া মডেল থানা পুলিশ। আটক মোমিন শেখ কুষ্টিয়া জেলার খোকসা উপজেলার রমানাথপুর গ্রামের আলম শেখের পুত্র। সে কুষ্টিয়ার ফুলতলায় একটি বাসায় পরিবার নিয়ে ভাড়া থাকতেন এবং স্থানীয় একটি ইন্টারনেট সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠানে টেকনিশিয়ান হিসাবে চাকরি করতেন।

ভুক্তভোগী শিশুকন্যাটির মা জানান, গত বুধবার তার মেয়েকে গোসল করানোর সময় তার মেয়ে তাকে জানায় তার বিশেষ অঙ্গে ব্যথা করছে। পরবর্তীতে মেয়েটির মা দেখেন শিশুকন্যাটির বিশেষ অঙ্গে ক্ষত চিহ্ন রয়েছে। সেই মুহূর্তে মেয়েটির মা মেয়েটির কাছে জানতে চাইলে তিনি অভিযুক্ত মোমিন শেখকে দেখিয়ে দেন। পরবর্তী বিষয়টি মেয়েটির মা তার বাড়ির মালিককে জানালে, বাড়ির মালিক স্থানীয় কাউন্সিলরসহ গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গকে বিষয়টি অবহিত করেন এবং এলাকাবাসী বিষয়টি কুষ্টিয়া মডেল থানা পুলিশকে অভিহিত করেন। পরবর্তীতে কুষ্টিয়া মডেল থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে অভিযুক্ত মোমিন শেখকে আটক করেন এবং মেয়েটির পরীক্ষার জন্য কুষ্টিয়া ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট সদর হাসপাতালে প্রেরণ করেন।

এলাকাবাসী জানায়, ৪ বছর শিশুর সাথে এমন অমানবিক অত্যাচার মেনে নেওয়া যায় না এবং আমরা অভিযুক্ত মোমিন শেখের সর্বোচ্চ শাস্তি দাবি করি। এই বিষয়ে কুষ্টিয়া পৌরসভার ১৯ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর মীর রেজাউল করিম বাবু জানান, ইতোমধ্যে অভিযুক্ত আসামিকে কুষ্টিয়া মডেল থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। এছাড়াও তিনি আরো বলেন, ভুক্তভোগী শিশুকন্যাটি ন্যায় বিচার পাবে বলে আশা করি। কুষ্টিয়া মডেল থানার ওসি তদন্ত নিশিকান্ত সরকার জানান, এই বিষয়ে মামলা প্রক্রিয়াধীন আছে এবং ভুক্তভোগী শিশুকন্যাকে শারীরিক পরীক্ষার জন্য কুষ্টিয়া সদর হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: শিশু ধর্ষণ

২৫ নভেম্বর, ২০২১
১৮ নভেম্বর, ২০২১

আরও
আরও পড়ুন