Inqilab Logo

বুধবার, ২৬ জানুয়ারী ২০২২, ১২ মাঘ ১৪২৮, ২২ জামাদিউস সানি ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

নুসরাত-যশের সম্পর্কে বাড়ছে তিক্ততা, তুঙ্গে বিবাহবিচ্ছেদের জল্পনা !

বিনোদন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৭ নভেম্বর, ২০২১, ১০:১০ এএম

বিতর্ক-সমালোচনাকে তোয়াক্কা না করে সম্পর্কে লিপ্ত আছেন টালিউড অভিনেত্রী নুসরাত জাহান ও অভিনেতা যশ দাশগুপ্ত। কিছুদিন আগেই ভালোবেসে সন্তানের জন্ম দিয়ে একে অপরের সঙ্গে থাকতে শুরু করেন তারা। কিন্তু এরইমধ্যে শোনা যাচ্ছে তাদের বিচ্ছেদের জল্পনা। যশ এবং নুসরাতের সোশ্যাল মিডিয়া পোস্ট ঘিরে এই মুহূর্তে জল্পনা তুঙ্গে। নেটিজেনদের ধারণা সুখের সংসারে ফের অশান্তির আবহ তৈরি হয়েছে।

সম্প্রতি ইনস্টাগ্রাম স্টোরিতে নুসরাত লিখলেন, “যে ঘরে শান্তি নেই তা কারাগারে সমান। আর সেরা কারাগার হলো সেই ঘর যা ভালোবাসা দিয়ে তৈরি। যা কিনা কেউ ছেড়ে যেতে চায়না।” নুসরাতের এই মন খারাপের বার্তা নিয়ে নেটিজেনদের মধ্যে জল্পনা শুরু হয়েছিল আগেই। বিতর্কের আগুনে ঘি ঢাললেন যশ দাশগুপ্ত।

নুসরাতের এই পোস্টের পরেই যশের ইনস্টাগ্রাম স্টোরিতেও মিললো এই সম্পর্কিত একটি বার্তা। যাকে কার্যত নুসরাতের পোস্টের পাল্টা বলেই মানছেন নেটিজেনরা। যশের ইনস্টাগ্রাম স্টোরিতে লেখা ফুটলো, “কেন খাঁচায় বন্দি আছো? খাঁচার দরজা তো খোলাই রয়েছে”! এহেন মন্তব্যের পর নেটিজেনরা যশরতের সম্পর্কে ভাঙ্গনের আঁচ ঠিকই টের পেয়েছেন।

নিখিলের সঙ্গে যখন নুসরাতের সম্পর্কে ভাঙ্গন ধরতে শুরু করে তখন থেকেই সোশ্যাল মিডিয়াতে সেই নিয়ে সরব ছিলেন নুসরাত জাহান। সম্পর্ক, ভালোবাসা, প্রেম, বিয়ে নিয়ে একাধিক বার্তা তার সোশ্যাল মিডিয়া পোস্টে উঠে এসেছে বারবার। এরপর যখন যশের সঙ্গে সম্পর্কের কথা প্রচার হয়ে যায় তখন কোনও রাখঢাক না করেই সঙ্গিনীকে প্রেম নিবেদন করেছেন যশ।

আপাতত ৪ মাসের ছেলে ঈশানকে সঙ্গে নিয়ে যশ এবং নুসরাত একসঙ্গে একই ছাদের তলায় দিন কাটাচ্ছেন। নেটিজেনদের কটাক্ষ উপেক্ষা করেই বলতে গেলে প্রাক্তন স্বামীকে ছেড়ে নতুন সংসার পেতেছেন নুসরাত। এমনকি সোশ্যাল মিডিয়াতে সরাসরি যশকে নিজের স্বামী বলেও উল্লেখ করেছেন। ঈশানের বার্থ সার্টিফিকেটেও বাবার নামের জায়গায় জ্বল জ্বল করছে যশের নাম।

নেটিজেনদের ধারণা ছিল নতুন সংসারে সুখেই আছেন নুসরাত। তবে তারকা জুটির সাম্প্রতিক পোস্ট ঘিরে আপাতত জল্পনা তুঙ্গে সোশ্যাল মিডিয়াতে। যশরতের সম্পর্ক নিয়ে প্রশ্ন উঠছে নেটিজেনদের মনে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: নুসরাত


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ