Inqilab Logo

শনিবার, ২২ জানুয়ারী ২০২২, ০৮ মাঘ ১৪২৮, ১৮ জামাদিউস সানি ১৪৪৩ হিজরী

আ.লীগ থেকে বহিষ্কারের দাবিতে ঝাড়ু মিছিল

ঈশ্বরগঞ্জ (ময়মনসিংহ) উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ২৮ নভেম্বর, ২০২১, ১২:০৩ এএম

ময়মনসিংহের নান্দাইলে আ.লীগ থেকে বহিষ্কারের দাবিতে এক ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ সমাবেশ ও ঝাড়ু মিছিল করেছে উপজেলা আ.লীগ। গত শুক্রবার বিকেলে ওই প্রতিবাদ সভা ও মিছিলটি হয়।
জানা যায়, ময়মনসিংহ-৯ (নান্দাইল) আসনের জাতীয় সংসদ সদস্য উপজেলা আ.লীগের আহ্বায়ক আনোয়ারুল আবেদিন খান তুহিন। তিনি ২০১৪ ও ২০১৮ সালে নৌকা প্রতীকে জাতীয় সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। এ অবস্থায় আসন্ন ইউনিয়ন নির্বাচনে সাবেক এমপি আলাদাভাবে প্রার্থী বাছাই শুরু করেন দলীয় কর্মী সমাবেশ করে। এরই মাঝে গত মঙ্গলবার উপজেলার চন্ডীপাশা ইউনিয়নের বাঁশহাটি এলাকায় তৃণমূল কর্মী সমাবেশের সভায় উপজেলা আ.লীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক, চন্ডীপাশা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও বাংলাদেশ ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান সমিতির সাধারণ সম্পাদক এমদাদুল হক ভ‚ঁইয়া বক্তব্য রাখেন। সেই বক্তব্যে চেয়ারম্যান এমদাদুল হক বলেন, ‘বর্তমান এমপি আনোয়ারুল আবেদীন খান তুহিন দুই বারের এমপি হলেও আপনারা কখনো ভোট দিতে পারেননি। তিনি আরো বলেন, ২০১৪ সালে বিনা ভোটে অটোপাস হয়েছেন অন্যদিকে ২০১৮ সালে রাতের ভোটে এমপি হয়েছেন। সেখানে আপনাদের ভোট লাগেনি। এই অবস্থায় ২০২৩ সালে তিনি বাঁশ খাবেন’।
চেয়ারম্যানের এমন বক্তব্যটি সরাসরি প্রচার হয় ফেসবুকের বিভিন্ন আইডিতে। তারপর বিষয়টি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হওয়ায় সাধারণ জনমনে আলোচনার সৃষ্টি হয় এরই মাঝে গত বৃহস্পতিবার তার বিরুদ্ধে দল থেকে বহিষ্কার চেয়ে সংবাদ সম্মেলন করেছেন উপজেলা আ.লীগ। ওই সংবাদ সম্মেলন থেকে কর্মসূচি দেন তাকে দল থেকে বহিষ্কার ও এমন বক্তব্যের বিচারের দাবিতে গত শুক্রবার বিকেলে প্রতিবাদ সমাবেশ ও বিক্ষোভ মিছিল করা হবে। তাই পূর্বের সিদ্ধান্ত মোতাবেক গত শুক্রবার বিকেলে হাজার হাজার নেতাকর্মীদের নিয়ে প্রতিবাদ সমাবেশ ও ঝাড়ু মিছিল করেছে উপজেলা আ.লীগ। ওই সমাবেশ ও মিছিলে তাকে দল থেকে বহিষ্কার ও বিচারের দাবি জানান নেতারা।
এসময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা আ.লীগের যুগ্ম আহ্বায়ক ও উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান হাসান মাহমুদ জুয়েল, ভাইস চেয়ারম্যান মনোয়ারা জুয়েল, পৌর মেয়র রফিক উদ্দিন ভ‚ইয়া, আ.লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক শরাফ উদ্দিন ভুইয়া ও মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডের সাবেক কমান্ডার মাজহারুল হক ফকির ছাড়াও উপজেলা ও পৌর আ.লীগের নেতাকর্মীরা।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন