Inqilab Logo

রোববার, ২৩ জানুয়ারী ২০২২, ০৯ মাঘ ১৪২৮, ১৯ জামাদিউস সানি ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

পরমাণু সমঝোতায় ফিরতে হবে সব দেশকেই : এরদোগান

যত দ্রুত সম্ভব আফগানিস্তানে শান্তি ও স্থিতি প্রতিষ্ঠা জরুরি

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৩০ নভেম্বর, ২০২১, ১২:০৫ এএম

তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়্যিপ এরদোগান বলেছেন, আফগানিস্তানে যত দ্রুত সম্ভব স্থায়ী শান্তি ও স্থিতিশীলতা প্রতিষ্ঠা জরুরি। তুর্কমেনিস্তানে অনুষ্ঠিত ইকোনমিক করপোরেশন অরগানাইজেশনের ১৫তম সম্মেলনে তুরস্কের প্রেসিডেন্ট এ কথা বলেন। খবর হুররিয়াত ডেইলি নিউজের। এরদোগান বলেন, আফগানিস্তানে যত দ্রুত সম্ভব স্থায়ী শান্তি ও স্থিতিশীলতা প্রতিষ্ঠা জরুরি। দেশটি ভয়াবহ অর্থনৈতিক ও মানবিক সঙ্কট মোকাবিলা করছে। আমাদের সাধারণ ইচ্ছা ও লক্ষ্য হলো- সেখানে এমন একটি প্রশাসন তৈরি করা যা দেশের সব পক্ষের প্রত্যাশা পূরণ করবে। তুরস্কের প্রেসিডেন্ট বলেন, আঙ্কারা আফগানিস্তানে স্বাস্থ্য ও শিক্ষার মতো গুরুত্বপূর্ণ খাতসহ মৌলিক সরকারি কাঠামো কার্যকর রাখার প্রচেষ্টাকে সমর্থন করে। ক্ষুধা ও দুর্ভিক্ষের শঙ্কায় থাকা আফগানিস্তানে টার্কিশ রেড ক্রিসেন্ট এবং তুরস্কের বেসরকারি সংস্থাগুলো মানবিক সহায়তা কার্যক্রম বাড়িয়েছে, বলেন এরদোগান। দীর্ঘ ২০ বছর পর যুক্তরাষ্ট্র আফগানিস্তান থেকে সেনা প্রত্যাহার করে নেয়। এর পর দেশটির রাজধানী কাবুলের নিয়ন্ত্রণ নেয় তালেবান। পরে পাঞ্জশির দখলের পর দেশটিতে সরকার গঠন করে গোষ্ঠীটি। যদিও এখনও নতুন সরকারকে কোনো দেশ স্বীকৃতি দেয়নি। এর মধ্যে শীত চলে আসায় দেশটিতে মানবিক সঙ্কট দেখা দিয়েছে। এদিকে সম্মেলনে মধ্যপ্রাচ্য ও মধ্য এশিয়া অঞ্চলে শান্তির জন্য ইরানের ওপর থেকে একতরফা নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করা দরকার বলে মনে করেন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট এরদোগান। তিনি বলেন, ইরানের ওপর থেকে একতরফা নিষেধাজ্ঞার অবসান এবং সব পক্ষের পরমাণু চুক্তিতে ফিরে এসে বাধ্যবাধকতাগুলো পুনরায় গ্রহণ করা আমাদের অঞ্চলের অর্থনৈতিক সমৃদ্ধি ও স্থিতিশীলতায় অবদান রাখবে। ইরানের ওপর একতরফাভাবে নিষেধাজ্ঞা দিয়ে রেখেছে যুক্তরাষ্ট্র। এসব নিষেধাজ্ঞার কারণে মধ্যপ্রাচ্যের দেশটিকে নানা সংকটের মুখোমুখি হতে হচ্ছে। তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়্যেব এরদোগান ইরানের পরমাণু সমঝোতায় স্বাক্ষরকারী পশ্চিমা দেশগুলোকে এই সমঝোতায় ফিরে এসে এতে দেয়া প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়ন করার আহ্বান জানিয়েছেন। তিনি সোমবার তুর্কমেনিস্তানের রাজধানী আশখাবাদে অর্থনৈতিক সহযোগিতা সংস্থা ‘ইকো’র ১৫তম শীর্ষ সম্মেলনে দেয়া ভাষণে এ আহ্বান জানান। এরদোগান বলেন, পরমাণু সমঝোতা বাস্তবায়ন করা হলে মধ্যপ্রাচ্যে শান্তি ও স্থিতিশীলতা প্রতিষ্ঠা করা সম্ভব হবে। তিনি ইরানের ওপর আরোপিত একতরফা নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করারও আহ্বান জানান। এর আগে সোমবারই চীনা পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র বলেছেন, পরমাণু সমঝোতা নিয়ে বর্তমান অচলাবস্থার জন্য দায়ী দেশ হিসেবে আমেরিকাকে ‘সর্বোচ্চ চাপ প্রয়োগের’ নীতি পরিহার করতে হবে এবং এটিতে স্বাক্ষরকারী অন্যান্য দেশকেও ইতিবাচক ভূমিকা রাখতে হবে। পাঁচ মাস বিরতির পর অস্ট্রিয়ার রাজধানী ভিয়েনায় ইরান ও পাঁচ জাতিগোষ্ঠীর মধ্যে নতুন করে পরমাণু সমঝোতা ইস্যুতে আলোচনা হচ্ছে। ইরানের বিরুদ্ধে মার্কিন সরকার একতরফা ও অবৈধভাবে যেসব নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে তা প্রত্যাহার করার লক্ষ্য নিয়ে ইরান এ আলোচনা শুরু করতে যাচ্ছে। ইরানের অবস্থানের প্রতি রাশিয়া ও চীন সমর্থন দিচ্ছে। পরমাণু সমঝোতার কোনো পক্ষ না হওয়ায় আমেরিকা আলোচনায় সরাসরি যোগ দিতে পারছে না। হুররিয়াত ডেইলি নিউজ, ইয়েনি শাফাক।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ