Inqilab Logo

রোববার, ২৩ জানুয়ারী ২০২২, ০৯ মাঘ ১৪২৮, ১৯ জামাদিউস সানি ১৪৪৩ হিজরী

দূরত্ব ভুলে তৃণমূলের সাথে যোগদান রাহুল গান্ধীর

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১ ডিসেম্বর, ২০২১, ৩:৫৮ পিএম

বুধবার ভারতের সংসদ চত্বরে গান্ধীমূর্তির সামনে বিক্ষোভ করেন তৃণমূলের সংসদ সদস্যরা। সেখানে তাদের সাথে যোগ দেন কংগ্রেসের সাবেক সভাপতি রাহুল গান্ধী। তার সাথে ছিলেন লোকসভায় কংগ্রেসের দলনেতা অধীররঞ্জন চৌধুরী-সহ বহু কংগ্রেস সংসদ সদস্য। তৃণমূল নেতৃত্ব এবং রাহুল গান্ধীর একই মঞ্চে উপস্থিতি রাজনৈতিকভাবে তাৎপর্যপূর্ণ বলেই মনে করছে ওয়াকিবহাল মহল।

গত বাদল অধিবেশনে শৃঙ্খলাভঙ্গের অভিযোগে শীতকালীন অধিবেশন থেকে রাজ্যসভার ১২ সংসদ সদস্যকে সাসপেন্ড করা হয়েছে। এর পরই এই সাসপেনশন প্রত্যাহারের দাবিতে বিক্ষোভ করেন বিরোধীরা। তৃণমূলের তরফে জানিয়ে দেয়া হয়, অধিবেশনের শেষদিন অর্থাৎ ২৩ ডিসেম্বর পর্যন্ত গান্ধীমূর্তির সামনে প্রতিদিন সকাল থেকে সন্ধা বিক্ষোভ চালিয়ে যাবেন তৃণমূলের দুই সংসদ সদস্য দোলা সেন এবং শান্তা ছেত্রী। তাদের পাশে দাড়াতে প্রতিদিনই ধরনা মঞ্চে যাবেন রাজ্যসভা ও লোকসভার সংসদ সদস্যরাও। সেই মতো বুধবার সকাল থেকেই গান্ধীমূর্তির সামনে বিক্ষোভ করেন কংগ্রেস-সহ অন্যান্য বিরোধী দলের সাসপেন্ড সংসদ সদস্যরা।

এদিন ধরনামঞ্চে হাজির ছিলেন রাহুল গান্ধী, মল্লিকার্জুন খাড়গে এবং অধীররঞ্জন চৌধুরীও। সম্প্রতি একাধিক ইস্যুতে তৃণমূল-কংগ্রেসের দূরত্ব বেড়েছে বলেই দাবি ওয়াকিবহাল মহলের। দলীয় মুখপত্র হোক কিংবা সাংবাদিক সম্মেলন তৃণমূল নেতৃত্ব একাধিকবার রাহুল গান্ধী তথা কংগ্রেসের সমালোচনা করেছেন। এমনকী, গোয়া ফরওয়ার্ড পার্টি-কংগ্রেস জোটের পর রাহুল-বিজয় সরদেশাই জুটিকে ‘বিশ্বাসঘাতক’ বলেও কটাক্ষ করেছে তৃণমূল।

পালটা ঘাসফুল শিবিরের সমালোচনা করেছিলেন কংগ্রেস সংসদ সদস্য অধীর চৌধুরীও। অধিবেশনের আগে কংগ্রেসের ডাকা বৈঠকেও ছিলেন না তৃণমূলের প্রতিনিধিরা। বরং সংসদের রণকৌশল ঠিক করতে আলাদা বৈঠক করেছিল ঘাসফুল শিবির। এর পরও একই ধরনা মঞ্চে তৃণমূল নেতৃত্বের পাশে তাদের উপস্থিতি দিল্লির রাজনীতিতে নয়া মাত্রা যোগ করবে বলেই মনে করছে ওয়াকিবহাল মহল। পরে ফেসবুকে রাহুল লেখেন, ‘আমরা গান্ধীবাদিরা একনায়কতন্ত্রের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াই। আমরা নত হব না!’

শুধু সংসদের বাইরে নয়, সংসদের ভেতরেও পৌঁছে গিয়েছে সংসদ সদস্যদের বহিষ্কারের উত্তাপও। সাসপেনশন প্রত্যাহারের দাবিতে রাজ্যসভায় তুলকালাম। অধিবেশন শুরুর ১০ মিনিটের মধ্যে রাজ্যসভা অধিবেশন মুলতুবি হয়ে গিয়েছে। সূত্র: টাইমস নাউ।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ভারত

২৩ জানুয়ারি, ২০২২

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ