Inqilab Logo

শুক্রবার, ২১ জানুয়ারী ২০২২, ০৭ মাঘ ১৪২৮, ১৭ জামাদিউস সানি ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

সীমান্তে ইরানি সেনার সঙ্গে তালেবানের সংঘর্ষ

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২ ডিসেম্বর, ২০২১, ৫:২০ পিএম | আপডেট : ৫:৩৯ পিএম, ২ ডিসেম্বর, ২০২১

আফগানিস্তানের তালেবান এবং ইরান বুধবার নিশ্চিত করেছে যে, দুই দেশের সীমান্ত নিরাপত্তা বাহিনীর মধ্যে সংঘর্ষ হয়েছে। তবে কোনো পক্ষই কোনো হতাহতের খবর জানায়নি।

বুধবার গভীর রাতে দেয়া এক বিবৃতিতে, তালেবান মুখপাত্র জাবিউল্লাহ মুজাহিদ বলেছেন, ‘স্থানীয় পর্যায়ে একটি ভুল বোঝাবুঝি’ আফগান সীমান্ত প্রদেশ নিমরুজের কাছে সংঘর্ষের সূত্রপাত করেছে। মুজাহিদ বলেন, উভয় পক্ষের বোঝাপড়ায় পরিস্থিতি এখন নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। তিনি যোগ করেছেন যে, তালেবান নেতারা এই ধরনের ভুল বোঝাবুঝি যাতে আবার না ঘটে তার জন্য ‘প্রয়োজনীয় নির্দেশনা’ জারি করেছেন।

বুধবার প্রকাশিত একাধিক ভিডিওতে ইরান সীমান্তে তালেবান যোদ্ধাদের ব্যস্ততা দেখা যায়। এসময় গুলির আওয়াজও শোনা যাচ্ছিল। আরেকটি ভিডিওতে এক ইরানি সেনাকে গোলাবর্ষণ করতে দেখা গেছে। ইরানের আধা-সরকারি বার্তা সংস্থা তাসনিম নিশ্চিত করেছে, দেশটির হিরমন্দ কাউন্টির শাঘলাক গ্রামে এ লড়াই হয়েছে। তারা জানিয়েছে, পাচার রোধে আফগানিস্তান সীমান্তে ইরানের ভূমিতে দেওয়াল তৈরি করা হয়েছে। বুধবার কয়েকজন ইরানি কৃষক ওই দেওয়াল পার হয়েছিলেন। তা দেখে তালেবান গুলি শুরু করে। সশস্ত্র গোষ্ঠীর সদস্যরা ভেবেছিলেন, কৃষকরা সীমান্ত লঙ্ঘন করেছেন, যদিও ওই সময় তারা ইরানের মাটিতেই ছিলেন।

তাসনিমের খবর অনুসারে, লড়াই থেমে গেছে এবং বিষয়টি নিয়ে ইরানি কর্তৃপক্ষ তালেবানের সঙ্গে আলোচনা করছে। ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে মুখপাত্র সায়িদ খতিবজাদেহ পরে এক বিবৃতিতে বলেছেন, সীমান্তে বাসিন্দাদের মধ্যে ভুল বোঝাবুঝির কারণে এ লড়াই হয়েছে। বিবৃতিতে তিনি অবশ্য তালেবানের নাম উল্লেখ করেননি।

ছড়িয়ে পড়া একটি ভিডিওতে দাবি করা হয়েছিল, তালেবান একটি ইরানি গ্যারিসনের ভেতরে ঢুকে কয়েকটি ফাঁড়ি দখল করে নিয়েছে। কিন্তু সেই দাবি অস্বীকার করেছে বার্তা সংস্থা তাসনিম। তারা জানিয়েছে, লড়াইয়ের একদম শুরুর দিকের কিছু ফুটেজ ছড়িয়েছে। সীমান্ত এখন পুরোপুরি নিয়ন্ত্রণে। ইরানের আরেকটি আধা-সরকারি বার্তা সংস্থা ফার্স অবশ্য বলেছে, এ ঘটনায় পাচারকারীদের হাত থাকতে পারে।

সাহায্য সংস্থাগুলো বলছে, আগস্টে তালেবানরা ক্ষমতায় পর থেকে ইসলাম কালা সীমান্ত ব্যবহার করে ৩ লাখেরও বেশি আফগান ইরানে পালিয়েছে। তেহরান আফগানিস্তানের নতুন তালেবান সরকারের সাথে সুসম্পর্ক এবং ঘনিষ্ঠ যোগাযোগ বজায় রেখেছে। ইরান চীন, রাশিয়া, পাকিস্তান এবং তুরস্ক সহ কয়েকটি দেশের মধ্যে রয়েছে যারা কাবুলে তাদের দূতাবাস খোলা রেখেছে। সূত্র: আল-জাজিরা, ভয়েস অব আমেরিকা।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: সংঘর্ষ


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ