Inqilab Logo

শুক্রবার, ২১ জানুয়ারী ২০২২, ০৭ মাঘ ১৪২৮, ১৭ জামাদিউস সানি ১৪৪৩ হিজরী

স্বামীর মাদক কারবার নিয়ন্ত্রণ করেন স্ত্রী!

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২ ডিসেম্বর, ২০২১, ৭:১৪ পিএম

রাজধানীর পল্লবী এলাকা থেকে ৭১ হাজার পিস ইয়াবাসহ তিন মাদক কারবারিকে গ্রেফতার করেছে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতর (ডিএনসি)। তাদের মধ্যে দুজন নারী। গ্রেফতারকৃতরা- শাহাদাত হোসেন, মনি ইসলাম ও জান্নাতুল ফেরদৌস রুপা। তাদের মধ্যে মনি ইসলামের স্বামীও একজন ইয়ায়াবা কারবারি। বর্তমানে মনির স্বামী কারাগারে রয়েছেন।

বৃহস্পতিবার (২ ডিসেম্বর) বিকেলে পুরান ঢাকার গেন্ডারিয়ায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতর-ডিএনসির ঢাকা মেট্রো উপ-অঞ্চলের (দক্ষিণ) কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে সংস্থার উপ-পরিচালক (ডিডি) পারভীন আক্তার এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, অধিদফতরের সহকারী পরিচালক রাজীব মিনা ও খিলগাঁও সার্কেলের ইন্সপেক্টর ফজলুল হক খানের নেতৃত্বে এই অভিযান চালানো হয়। এ সময় পৃথকভাবে লুকিয়ে রাখা দুটি গাড়ির ভেতর থেকে ৭১ হাজার পিস ইয়াবা উদ্ধার করা হয়। এ সময় গ্রেফতার করা হয় তিনজনকে।

পারভীন আক্তার বলেন, ইয়াবার চালানটি তারা টেকনাফ থেকে গোপনে ঢাকায় নিয়ে আসে। এগুলো রাজধানীর বিভিন্ন মাদক স্পটে সরবরাহের পরিকল্পনা ছিল তাদের। এই চক্রের প্রধান রাজু মোল্লা ওরফে সুজন। তার বিরুদ্ধে মাদক ও অস্ত্রসহ ৪টি মামলা রয়েছে। সুজনের অবর্তমানে স্ত্রী মনি ইসলাম মাদকের কারবার করছিলেন। তাকে সহযোগিতা করছিলেন গ্রেফতারকৃত অন্য দুজন। মনির বিরুদ্ধে এর আগেও শাহ আলীসহ রাজধানীর বিভিন্ন থানায় ৬টি মামলা রয়েছে। দীর্ঘদিন কারা ভোগ করে গত ২৬ নভেম্বর জামিনে মুক্তি পান। পরে আবারও স্বামীর সঙ্গে মাদক বাণিজ্য শুরু করেন।

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে পারভীন আক্তার বলেন, গ্রেফতারকৃতরা পেশাদার মাদক কারবারি। পারিবারিকভাবেও তারা দীর্ঘদিন ধরে এ ব্যবসা করছেন। উদ্ধার ইয়াবার চালানটি টেকনাফ থেকে গোপনে নিয়ে এসেছেন তারা। আটক মনির স্বামী রাজু মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতরের তালিকাভুক্ত একজন মাদক কারবারি।

অন্য এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, মনি ও তার স্বামীর বিরুদ্ধে ৩১ হাজার ৫০০ পিস ইয়াবা রাখার দায়ে ২০১৯ সালের শাহ আলী থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা দায়ের করা হয়। বর্তমানে মনির স্বামী কারাগারে রয়েছেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: গ্রেফতার


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ