Inqilab Logo

শনিবার, ২৯ জানুয়ারী ২০২২, ১৫ মাঘ ১৪২৮, ২৫ জামাদিউস সানি ১৪৪৩ হিজরী

নারী শ্রমিকদের জন্য পোশাক কারখানায় স্যানিটারি ন্যাপকিন ভেন্ডিং মেশিন স্থাপন করছে বিকাশ

অর্থনৈতিক রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৪ ডিসেম্বর, ২০২১, ৬:২৫ পিএম

তৈরি পোশাক খাতের নারী শ্রমিকদের জন্য ৫ টি কারাখানায় স্যানিটারি ন্যাপকিন কেনার ভেন্ডিং মেশিন স্থাপন করেছে বিকাশ। হাতের কাছে জরুরি স্যানিটারি ন্যাপকিন পাওয়ার সুবিধা নিশ্চিত করার মাধ্যমে পোশাক কারখানায় নারীবান্ধব স্বাস্থ্যকর পরিবেশ তৈরি করার লক্ষ্যেই বিকাশের এই উদ্যোগ। ভবিষ্যতে আরো কারখানায় এই সেবা বিস্তৃত করবে বিকাশ।

সম্প্রতি সাভারের আশুলিয়ার অনন্ত গার্মেন্টস, নিউএজ অ্যাপারেলস, গাজীপুরে মেগা ডেনিম ও হ্যামস গার্মেন্টস এবং চট্টগ্রামের ইন্ডিপেনডেন্ট অ্যাপারেলস কারখানায় ভেন্ডিং মেশিন স্থাপনের মাধ্যমে এই কার্যক্রম উদ্বোধন করা হয়েছে।

ভার্টিক্যাল ইনোভেশনস এর প্রযুক্তিগত সহায়তায় পোশাক কারখানায় এই অটোমেটিক স্যানিটারি ন্যাপকিন ভেন্ডিং মেশিনগুলো স্থাপন করছে বিকাশ। বিকাশ অ্যাপ থেকে কিউআর কোড স্ক্যান করে অথবা *২৪৭# ডায়াল করে সহজেই ভেন্ডিং মেশিন থেকে স্যানিটারি ন্যাপকিন কিনতে পারবেন শ্রমিকরা। শ্রমিকদের সুবিধার্থে ভেন্ডিং মেশিনের পাশেই ধাপে ধাপে পেমেন্ট করার পদ্ধতি প্রদর্শন করা হয়েছে। বিকাশে পেমেন্ট করে বাজার মূল্যের চেয়ে কম দামে স্যানিটারি ন্যাপকিন কেনার সুযোগ পাবেন পোশাক শ্রমিকরা।

সম্প্রতি অনন্ত গার্মেন্টস এবং নিউএজ অ্যাপারেলস এ ভেন্ডিং মেশিন স্থাপনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে যথাক্রমে উপস্থিত ছিলেন অনন্ত গার্মেন্টস এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক ইনামুল হক খান, উপ-ব্যবস্থাপনা পরিচালক এম সাজেদুল করিম এবং নিউএজ অ্যাপারেলস এর নির্বাহী পরিচালক মাহমুদ হোসেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন বিকাশের চিফ কমার্শিয়াল অফিসার আলী আহম্মেদ, ভার্টিক্যাল ইনোভেশনস লিমিটেডের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা রেজওয়ান আহমেদ নূর সহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।

বিকাশের চিফ কমার্শিয়াল অফিসার আলী আহম্মেদ বলেন “পোশাক কারখানায় নারী শ্রমিকদের শারীরিক সুস্বাস্থ্যের কথা মাথায় রেখেই আমরা এই স্যানিটারি ন্যাপকিন ভেন্ডিং মেশিন স্থাপনের উদ্যোগ নিয়েছি। ফ্যাক্টরি প্রাঙ্গনে অবস্থিত এই মেশিন থেকে সহজেই নারী শ্রমিকরা বাজার মূল্যের চেয়ে কম দামে ন্যাপকিন কিনতে পারবেন। এই উদ্যোগকে আগামীতে পর্যায়ক্রমে আরো বড় পরিসরে নিয়ে যাবে বিকাশ।”

পোশাক খাতের শ্রমিকদের সহজ, নিরাপদ ও সাশ্রয়ী ডিজিটাল বেতন বিতরণ ব্যবস্থা এবং তাদের জন্য টেকসই আর্থিক ইকোসিস্টেম গড়ে তুলতে কাজ করছে বিকাশ। শ্রমিকরা এখন বিকাশে পাওয়া বেতন ডিজিটাল পদ্ধতিতেই ব্যবহার করে তাদের আর্থিক ব্যবস্থাপনাকে আরো উন্নত করার সুযোগ পাচ্ছেন।

এই ইকো-সিস্টেমের অংশ হিসেবে ফ্যাক্টরির ভেতরেই ন্যায্য মূল্যের দোকান ‘সুলভ বাজার’স্থাপন করছে বিকাশ যেখানে বিকাশ পেমেন্টে শ্রমিকদের জন্য বিভিন্ন পণ্যে থাকছে আকর্ষণীয় ছাড়। ফ্যাক্টরি কর্মীদের আর্থিক ব্যবস্থাপনা সম্পর্কে আরো সচেতন করতে বিকাশ, বিজনেস ফর সোশ্যাল রেসপন্সিবিলিটি (বিএসআর) এর সাথে যৌথভাবে আয়োজন করেছে গবেষণা ও ট্রেনিং প্রোগ্রাম। এছাড়াও শ্রমিকদের প্রতিদিনকার কেনাকাটায় সরাসরি বিকাশ পেমেন্টের সুবিধা দেয়ার লক্ষ্যে কর্ম এবং আবাসস্থলের কাছাকাছি মার্চেন্ট অবকাঠামো নির্মাণে কাজ করছে বিকাশ।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: বিকাশ

১৯ ডিসেম্বর, ২০১৯

আরও
আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ